১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কুপ্রস্তাবে ‘না’, কাটোয়ায় গৃহবধূর মুখে গরম তেল ঢেলে দিল ‘চাচা’

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: February 15, 2019 6:31 pm|    Updated: February 15, 2019 6:31 pm

Woman attacked in Ketugram

ধীমান রায়, কাটোয়া: কিশোরী বেলায়ই তার উপর কুনজরে পড়েছিল গ্রামেরই এক প্রৌঢ়ের। বিয়ে করে এখন তিনি ঘোরতর সংসারী। কিন্তু, তাতেও রেহাই মিলল না। কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ঘুমন্ত অবস্থায় ওই গৃহবধূর উপর গরম তেল ঢেলে দিল সেই বৃদ্ধ। গুরুতর অবস্থায় তিনি ভরতি হাসপাতালে। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রামের এহিয়াপুর গ্রামে। 

[প্রেমদিবসেই প্রেমিকার বিয়ের খবর পেয়ে আত্মঘাতী যুবক]

প্রায় ১২ বছর আগে বিয়ে হয়ে গিয়েছে। দুই ছেলে ও এক মেয়ের মা তিনি। আক্রান্ত গৃহবধূর বাপের বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রামে এহিয়াপুর গ্রামে। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, মাস দেড়েক আগে সন্তানদের নিয়ে বাপের বাড়িতে আসেন ওই গৃহবধূ। বুধবার রাতে সন্তানদের নিয়ে ঘরে শুয়েছিলেন। জানালা খোলা ছিল। আক্রান্ত গৃহবধূর অভিযোগ, ঘুমন্ত অবস্থায় জানলা দিয়ে তাঁর মুখে গরম তেল ঢেলে দেন ফজল দফাদার নামে গ্রামেরই এক প্রৌঢ়। তাঁকে আবার ‘চাচা’ বলে ডাকেন আক্রান্ত ওই গৃহবধূ। রাতেই গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালে। সেখানেই চিকিৎসা চলছে তাঁর। শারীরিক অবস্থা খুব একটা ভাল নয় বলে জানা গিয়েছে। ওই গৃহবধূকে কলকাতা নিয়ে যাওয়ার তোড়জোড় করছেন পরিবারের লোকেরা।

কিন্তু, হঠাৎ করে কেন ওই গৃহবধূ উপর কেন হামলা হল? আক্রান্ত গৃহবধূর দাবি, বিয়ের আগে তাঁকে নানাভাবে উত্যক্ত করত এহিয়ারপুর গ্রামেরই বাসিন্দা ফজল দফাদার। কুপ্রস্তাব দিত সে। কিন্তু সেই প্রস্তাব কোনও দেননি ওই গৃহবধূ। পরে তাঁর বিয়েও হয়ে যায়। কিন্তু অভিযুক্তের স্বভাব বদলায়নি। কুপ্রস্তাবের রাজি না হওয়ায় ফজল দফাদার ওই গৃহবধূর উপর হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ।     

ছবি: জয়ন্ত দাস

  [ অগ্নিকাণ্ডের পর তিনদিন পার, ঘোলার কারখানা থেকে উদ্ধার দেহাংশ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে