২১  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ৬ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সিনেমা হলের বক্সে নাবালিকাকে লাগাতার ধর্ষণ, গ্রেপ্তার অভিযুক্ত

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 17, 2017 10:07 am|    Updated: June 17, 2017 10:07 am

Youth arrested for raping minor on pretext of marrying her

স্টাফ রিপোর্টার, বারাসত: বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে সিনেমা হলে নিয়ে গিয়ে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক করার অভিযোগ উঠল এক যুবকের বিরুদ্ধে। প্রায় এক বছর নিজের যৌনতৃষ্ণা মিটিয়ে অবশেষে সম্পর্ক ভেঙে দেয় সে। আর তার জেরেই হাতের শিরা কেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করে ওই ছাত্রী। শুক্রবার অপূর্ব চক্রবর্তী (৩২) নামে ওই যুবকের বিরুদ্ধে অশোকনগর থানায় ধষর্ণের অভিযোগ দায়ের করে ছাত্রীর পরিবার। এদিন রাতেই পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

[মোর্চার হাতে IRB কমান্ডান্টের মৃত্যুতে উত্তপ্ত পাহাড়]

উত্তর ২৪ পরগনার দমদম নাগেরবাজার এলাকার বাসিন্দা ওই ছাত্রীর সঙ্গে প্রায় বছরখানেক আগে পরিচয় হয় ওই যুবকের। তার পরিবার সূত্রে জানা যায়, অশোকনগরের কয়াডাঙায় ওই ছাত্রীর মামারবাড়ি। ওই এলাকাতেই থাকত অপূর্ব। বছর খানেক আগে মামাবাড়িতে গিয়ে অপূর্বর সঙ্গে দেখা হয় তার। সেখান থেকেই দু’জনের পরিচয়। ওই নাবালিকা তার পরিবারকে জানিয়েছে, অপূর্ব তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিল। প্রথমে ওই ছাত্রী সে প্রস্তাবে রাজি হয়নি। পরে চাপে পরে রাজি হয় সে। তার অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে অপূর্ব তার সঙ্গে বহুবার শারীরিক সম্পর্ক করে। মামাবাড়িতে ঘুড়তে গেলেই নানা অছিলায় তাকে ওই এলাকার একটি সিনেমা হলের ‘বক্সে’ নিয়ে ধর্ষণ করত। সম্প্রতি অপূর্ব ওই ছাত্রীকে ফোন করে জানায়, সে তার সঙ্গে আর সম্পর্ক রাখতে চায় না। ওই ছাত্রী যেন আর তাকে বিরক্ত না করে। এর পরই ভেঙে পড়ে বছর পনেরোর ওই ছাত্রী। কেরোসিন তেল খায় সে এবং হাতের শিরা কেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার রাতে অশোকনগর থানায় অপুর্বর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে ওই ছাত্রীর পরিবার। অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই এদিন রাতেই পুলিশ অপূর্বকে গ্রেপ্তার করে। শনিবার তাকে বারাসত আদালতে পেশ করা হবে।

এদিনের ঘটনা আবারও প্রশ্নের মুখে ফেলে দিল অশোকনগর এলাকার সিনেমা হলগুলির ‘বক্স’ ব্যবস্থাকে। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, দর্শক টানার জন্য হলের মধ্যে যুগলদের জন্য এই ধরনের বক্স বানিয়ে ব্যবসা চালাচ্ছে হলগুলি। এবং তার মধ্যেই আবাধে চলে অশালীন কাজকর্ম। স্কুল কলেজের পড়ুয়ারা বেশিরভাগ সময় এই বক্সগুলিতে ভিড় জমায়। কয়েক বছর আগে পুলিশ অভিযান চালিয়ে এই বক্সগুলি বন্ধ করে দিয়েছিল। আপত্তিজনক অবস্থায় বক্স থেকে কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছিল। তবে ফের পুলিশের নজর এড়িয়ে হলগুলিতে আবার গজিয়ে উঠেছে ‘বক্স’। জেলা পুলিশের এক কর্তা জানিয়েছন, হলে বক্স বন্ধ করার জন্য ফের অভিযান চালানো হবে। সিনেমা হলের বক্সে এমন অনৈতিক কার্যকলাপের অভিযোগ দীর্ঘদিনের। কিন্তু কোনও অভিযোগ না আসায় পুলিশ ব্যবস্থা নেয়নি।

[ফের উত্তপ্ত পাহাড়, মোর্চা-পুলিশ সংঘর্ষে রণক্ষেত্র সিংমারি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে