১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনা টিকা বিক্রিতে অভিযুক্ত ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক! তড়িঘড়ি সাসপেন্ড করল নবান্ন

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 4, 2021 7:28 pm|    Updated: September 4, 2021 9:57 pm

Corona vaccine: BMOH in North 24 Parganas alleged to sell vaccines suspended by Nabanna | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা টিকা (Corona vaccine) নিয়ে বড়সড় কেলেঙ্কারির অভিযোগ। এবার অভিযুক্ত সরাসরি ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক। উত্তর ২৪ পরগনার ছোট জাগুলিয়ার ঘটনায় অভিযোগ এসে পৌঁছল নবান্নে। আর এহেন গুরুতর অভিযোগ পেয়েই ওই ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিককে (BMOH) সাসপেন্ড করল রাজ্য প্রশাসন। তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার জন্য স্বাস্থ্যসচিবকে নির্দেশও দেওয়া হয়েছে বলে খবর।

এই মুহূর্তে জোরকদমে চলছে দেশজুড়ে চলছে করোনা টিকাকরণ। রাজ্যগুলিতে টিকা বণ্টনে আরও জোর দিয়েছে কেন্দ্র। বাংলায় এমনিতে টিকা সরবরাহ নিয়ে সমস্যা চলছিল। তবে এই মুহূ্র্তে চাহিদা অনুযায়ী কেন্দ্র তা জোগান দিচ্ছেন বলেই খবর। তাতে টিকাকরণের এই মুহূ্র্তে খুব একটা সমস্যার হচ্ছে না। কিন্তু তারই মধ্যে বড়সড় দুর্নীতির অভিযোগ উঠল বারাসত (Barasat) ১ নং ব্লকের BMOH সব্যসাচী রায়ের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, ছোট জাগুলিয়া এলাকার এয়ারপোর্ট এলাকার বাসিন্দা বৃদ্ধ-বৃদ্ধাকে বাড়ি গিয়ে তিনি ভ্যাকসিন দিয়েছিলেন। তবে ভ্যাকসিন দেওয়ার পর টাকাও নেন। এই সংক্রান্ত একটি অডিও ক্লিপ ভাইরাল হতেই শোরগোল।

[আরও পডুন: Corovirus Update: একদিনে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত ৭০০, দুই জেলার কোভিড গ্রাফ নিয়ে জারি চিন্তা

বিষয়টি পৌঁছয় স্বাস্থ্য দপ্তর পর্যন্ত। সেখান থেকে রাজ্যের শীর্ষ প্রশাসনিক দপ্তর নবান্নে (Nabanna)। এই অভিযোগ পাওয়া মাত্রই নবান্ন সঙ্গে সঙ্গে ওই BMOH-কে সাসপেন্ড করা হয়েছে। স্বাস্থ্যসচিবকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, যত দ্রুত সম্ভব ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিকের বিরুদ্ধে FIR দায়ের করে তদন্ত শুরু হোক।  উত্তর ২৪ পরগনার জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের কাছে তিনদিনের মধ্যে এ নিয়ে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। 

[আরও পডুন: WB By-Election: ভবানীপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে লড়তে প্রস্তুত রুদ্রনীল ঘোষ]

তবে এই ঘটনায় প্রশ্ন উঠছে হাজারও। কেন বারাসত থেকে বিমানবন্দর এলাকায় গিয়ে কাউকে ভ্যাকসিন দিয়ে এলেন? কীভাবেই বা অনুমতি পেলেন? নিয়ম অনুযায়ী, কোনও বিশেষ ক্ষেত্রে বাড়ি গিয়ে সরকারি প্রতিনিধিরা দিয়ে এলেও তার বিনিময়ে অর্থ দেওয়া হয় না। কারণ, এটি সরকারি প্রকল্প। এবং তার সুবিধা পাবেন সব নাগরিকই। তাহলে কেন ওই BMOH ভ্যাকসিন দেওয়ার বিনিময়ে টাকা নিলেন?  কেনই বা টিকাপ্রাপকরা বিনা প্রশ্নে তাঁকে টাকা দিলেন, উঠছে সেই প্রশ্নও। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে