১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভক্তদের অপেক্ষায় ঢেলে সাজছে তারাপীঠ

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: November 3, 2018 5:36 pm|    Updated: November 3, 2018 5:36 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কালীপুজো উপলক্ষে ঢেলে সাজছে তারাপীঠ৷ পুজো সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ব্যস্ত তুঙ্গে সেবাইতরা থেকে শুরু করে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মধ্যে৷ চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতির কাজ৷ মন্দির চত্বর ঢেলে সাজানোর পাশাপাশি ভক্তদের জন্য নিরাপত্তা আঁটসাঁটও করা হয়েছে৷ মন্দির কমিটির উদ্যোগে ভক্তদের ভিড় সামলাতে নিরাপত্তা ব্যবস্থায়ও জোর দেওয়া হয়েছে৷ হোটেল চেকিং থেকে শুরু করে এলাকায় বাড়তি পুলিশি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে৷ কালীপুজোয় অমাবস্যা তিথি অনেক রাত পর্যন্ত থাকায় ভক্তদের জন্য সারারাত মন্দির খোলা থাকবে বলে জানিয়েছেন মন্দির কমিটির তরফে জানানো হয়েছে৷ ইতিমধ্যেই দীপাবলি উপলক্ষে পুরো মন্দির চত্বর অত্যাধুনিক টুনি দিয়ে সাজিয়ে তোলার কাজ চলছে৷

[সম্পর্কের অবনতি, ফেসবুকে পোস্ট করে আত্মঘাতী ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া]

প্রথা বলছে, প্রতিবছর কালীপুজোয় দুর্গা-কালী রূপে পূজিত হন তারা মা৷ ভক্তদের দেওয়া রত্নালঙ্কারে সাজিয়ে তোলা হয় তারা মা-কে৷ এই একবারই মা-কে সমস্ত অলঙ্কারে সাজানো হয়৷ মায়ের বিশালাকার সোনার মুকুট, সাত নলা হারও পড়ানো হয়৷ মা-কে পাঁচরকমের ভাজা, পাঁচ রকম মিষ্টি-সহ নানা ভোগ নিবেদন করা হয়৷ মায়ের প্রিয় শোল মাছ পোড়া দেওয়া হয় এদিন৷ মহাকাল ভৈরবের খিচুড়ি প্রসাদও নিবেদন করা হয়। বলির মাংস ও কারণ মাকে নিবেদন করেন সেবাইতরা৷ জানা গিয়েছে, আগামী মঙ্গলবার রাত ৯.৫৯ মিনিটে অমাবস্যা লাগছে৷ অমাবস্যা লাগার পর নিশিপুজো শুরু হবে৷ তার আগে রাজবেশে সাজিয়ে তোলা হবে তারা মা-কে৷

[ইসলামপুরে উর্দু শিক্ষকের আকাল, নিয়োগে সাবধানী রাজ্য]

ফলে, বিশেষ এই দিনে মন্দির চত্বরে যে বাড়তি ভিড় জমবে, তা এখনই আন্দাজ পাচ্ছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীদের থেকে করে মন্দির কমিটির কর্তারা৷ কারণ, ইতিমধ্যেই হোটেল বুকিং শুরু হয়েছে৷ মানত পুজো দেওয়ার জন্যও অনেকেই মন্দির কমিটির সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন৷ কর্তৃপক্ষের অনুমান, এবার ভক্তদের ভিড়ে রেকর্ড গড়বে তারাপিঠ৷

[বেহাল রাস্তার জেরে কিশোরের মৃত্যু, ভাঙচুর-অবরোধে রণক্ষেত্র পালিতপুর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement