১৪ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

চাপের মুখে নতি স্বীকার, সম্প্রচার বন্ধ হচ্ছে বচ্চনের বিতর্কিত বিজ্ঞাপনের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 23, 2018 5:21 pm|    Updated: January 11, 2021 5:23 pm

Amitabh Bachchan, Shweta Nanda’s controversial ad withdrawn

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মেয়ের সঙ্গে প্রথমবার কাজ করলেন। তা নিয়েই তুমুল বিতর্ক। অমিতাভ-শ্বেতার বিজ্ঞাপন নিয়ে প্রবল আপত্তি তুলেছেন ব্যাংক কর্মীদের সংগঠন। অবিলম্বে ব্যবস্থা না নেওয়া হলে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছিল। চাপের মুখে পিছু হটল গয়না প্রস্তুতকারক সংস্থা। প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইল। পাশাপাশি বিজ্ঞাপনের ভিডিও বিভিন্ন মাধ্যম থেকে তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথাও জানানো হল।

গয়না প্রস্তুতকারক ওই সংস্থার সঙ্গে বচ্চন পরিবারের সম্পর্ক বহুদিনের। বরাবরই সংস্থার বিজ্ঞাপনে দেখা গিয়েছে অমিতাভ-জয়াকে। এবারে বিজ্ঞাপনে অমিতাভের সঙ্গী হয়েছিলেন মেয়ে শ্বেতা। প্রথমবার বাবার সঙ্গে স্ক্রিনস্পেস শেয়ার করেন মেয়ে। আবেগের সেই মুহূর্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ারও করেন বিগ বি।

[মৌলবিকে কষিয়ে থাপ্পড় মারতে চাইলেন ফারহা খান, কেন জানেন?]

কিন্তু সুখের সেই মুহূর্ত বেশিক্ষণ স্থায়ী হল না। কারণ বিজ্ঞাপনের একটি দৃশ্য নিয়ে আপত্তি তুলল ব্যাংককর্মীদের সংগঠন। এক মধ্যবিত্ত পরিবারের বৃদ্ধ হিসেবে দেখানো হয়েছে অমিতাভকে। যাঁর পেনশন অ্যাকাউন্টে ভুল করে বেশি টাকা চলে গিয়েছিল। সে টাকা ফেরত দিতে গেলে ব্যাংক ম্যানেজার হেসে বলছেন, রেখেই দিন। এই দৃশ্য নিয়েই আপত্তি ব্যাংককর্মীদের। তাঁদের মতে, কোনও ব্যাংক ম্যানেজারই এ কথা বলতে পারেন না। কারণ এ কাজটিই নিয়মবিরুদ্ধ। এখানে ব্যাংককর্মীদের যেভাবে দেখানো হয়েছে তা নিতান্ত অবমাননাকর। ব্যাংকে যাঁরা কাজ করেন তাঁদের ছোট করতেই এরকম একটা দৃশ্যের অবতারণা। জনসমাজেও এর খারাপ প্রভাব পড়বে। সারা ভারত ব্যাংক ইউনিয়ন কনফেডারেশনের প্রায় সাড়ে তিন লক্ষ সদস্য ওই গয়না প্রস্তকারক সংস্থার বিরুদ্ধে মামলার হুঁশিয়ারি দেন।

চাপের মুখে নিজেদের অবস্থান থেকে সরে আসে গয়না প্রস্তুতকারক সংস্থা। যদিও তাঁদের দাবি ছিল বিষয়টি সম্পূর্ণ কাল্পনিক। তবুও এতে যদি কারও সম্মানহানি হয়ে থাকে তাহলে সংস্থার পক্ষ থেকে ক্ষমা চাওয়া হয়েছে। বলা হয়েছিল, প্রয়োজনে বিজ্ঞাপনে আপত্তিকর জায়গাটি সংশোধন করা হবে। তবে মামলার হুঁশিয়ারির ফলে, পুরো বিজ্ঞাপনটিই বিভিন্ন মাধ্যম থেকে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অবশ্য এখনও বেশ কিছু জায়গায় বিজ্ঞাপনটি চলছে।

[জীবন সায়াহ্নে এসে সত্যান্বেষণে আদৌ সফল হলেন কি বৃদ্ধ ব্যোমকেশ?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে