১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘ইন্ডাস্ট্রি সেভাবে চিন্ময়কে আবিষ্কার করতে পারেনি’, শোকজ্ঞাপন সৌমিত্রর

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: March 18, 2019 1:27 pm|    Updated: March 18, 2019 1:54 pm

Aparna Sen and Soumitra Chattopadhay paying homage to Chinmoy Roy.

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রবিবার, মেঘলা দুপুর, বৃষ্টির দিন। রাত সাড়ে দশটা নাগাদ টলিউডে ইন্দ্রপতন। চিরনিদ্রায় গেলেন অভিনেতা চিন্ময় রায়। বর্ষীয়ান এই অভিনেতার প্রয়াণে শোকের ছায়া বাংলা ইন্ডাস্ট্রিজুড়ে। কারণ, সবার প্রিয় ‘টেনিদা’ আর নেই। দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন এই বর্ষীয়ান অভিনেতা। ছেলে শঙ্খ রায় জানিয়েছেন, রবিবার সারাদিন মোটামুটি সুস্থই ছিলেন তিনি। তবে, রাতে খাওয়ার পর অসুস্থ হয়ে পড়েন। বাসভবনেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তাঁর মৃত্যুতে শোকজ্ঞাপন করেছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় এবং অপর্ণা সেন। এই দুই তারকাই একসঙ্গে বসন্ত বিলাপ ছবিতে কাজ করেছেন চিন্ময় রায়ের সঙ্গে। আবেগঘন হয়ে সেই স্মৃতিচারণাই করলেন তাঁরা।

[বাঙালি চিরকাল মনে রাখবে পর্দার টেনিদাকে]

“চিনুদার সঙ্গে বেশ কটা ছবিতে কাজ করেছি। ‘বসন্ত বিলাপ’, ‘এখনি’, ‘ছুটির ফাঁদে’তে ছিলেন চিনুদা। ভীষণ ভাল অভিনেতা তো ছিলেনই। সঙ্গে ওঁর সেন্স অফ কমিক টাইমিংও ছিল দুর্ধর্ষ। তবে, চিনুদার সঙ্গে আমার একটা অসুবিধে হত। আর সেটা ছিল ওর সঙ্গে সিন থাকলেই আমি হেসে ফেলতাম। আর উনি যতারীতি আমায় জিজ্ঞেস করতেন, আচ্ছা আপনি হাসছেন কেন? আমি বলতাম, চিনুদা, আপনি যেরকম এক্সপ্রেশন দিচ্ছেন তাতে আমার হাসি পেয়ে যাচ্ছে। আমার কনসেনট্রেট করতে খুব অসুবিধে হত তখন। হেসে ফেলতাম বারবার। আমাকে ভালবেসে বন্যা বলে ডাকতেন। আমি একদিন জিজ্ঞেস করেছিলাম, আচ্ছা, নামটা বন্যা কেন? উনি হেসে উত্তর দিয়েছিলেন, আপনি লাবণ্য। আর সেই থেকেই আদর করে তাঁর বন্যা ডাকা। সেটে কাজের ফাঁকে আমরা খুব আড্ডা মারতাম। বেশ অনেকদিন ধরেই ওঁর সঙ্গে সেরকম যোগাযোগ ছিল না। ওঁর স্ত্রী জুই মারা যাওয়ার পর সেই দেখা হয়েছিল। চেহারা ভেঙে গিয়েছিল। খুব খারাপ লাগছিল সেদিন। মনে হচ্ছিল, এই তো ‘বসন্ত বিলাপ’-এর সময় থেকেই জুঁই আর ওঁর সম্পর্কটা গড়ে উঠল। ওদের বিয়ে হল। সবেরই সাক্ষী ছিলাম। একজন একজন করে কেমন যেন সব চলে যাচ্ছেন, খুব ফাঁকা লাগছে। এতো বড় মাপের অভিনেতা ছিলেন, কিন্তু সেভাবে সুযোগ পাননি কখনও।”- এমনটাই জানিয়েছেন অপর্ণা সেন।

অন্যদিকে একইভাবে স্মৃতিচারণার মাধ্যমে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ও এভাবেই শোকজ্ঞাপন করেছেন, “বয়সে আমার থেকে ছোট হলেও অত্যন্ত দক্ষ অভিনেতা ছিলেন চিন্ময়। ওঁর সঙ্গে অনেক ছবিতেই কাজ করেছি। আমাদের অনেকের সঙ্গেই চিন্ময়ের বেশ শখ্যতা ছিল। ও যেরকম মাপের অভিনেতা ছিল, ইন্ডাস্ট্রি সেভাবে ওঁকে আবিষ্কার করতে পারেনি।”

[প্রয়াত অভিনেতা চিন্ময় রায়, শোকের ছায়া বাংলা চলচ্চিত্র জগতে]

টুইটারে শোকবার্তা দিয়েছেন অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ও। “চিন্ময় রায়ের মতো একজন কৌতুক অভিনেতাকে হারিয়ে বাংলা ইন্ডাস্ট্রির অনেক বড় ক্ষতি হল। আমরা আপনাকে মিস করব চিন্ময় রায়।”

১৯৪০ সালের জানুয়ারিতে অবিভক্ত বাংলায় জন্মগ্রহণ করেন চিন্ময় রায় (বর্তমানে কুমিল্লা)। প্রথমটায় ছোট ভূমিকায় অভিনয় করলেও, অভিনয়ক্ষমতায় টলি ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের জায়গা পাকা করে নিয়েছিলেন তিনি। জানা গিয়েছে, শেষ জীবনে ছবি পরিচালনার কথাও নাকি তিনি ভেবেছিলেন। তাঁর এই প্রয়াণে বাংলা চলচ্চিত্র জগতের যে এক অপূরণীয় ক্ষতি হল, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। সোমবারই তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। স্ত্রী অনেকদিন আগেই গত হয়েছেন। মৃত্যুকালে রেখে গিয়েছেন এক ছেলে এবং এক মেয়েকে। মেয়ে থাকেন চেন্নাইতে। তিনি কলকাতায় এলেই চিন্ময় রায়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে বলে জানা গিয়েছে সূত্রের খবরে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে