BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শুক্রবার ২০ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মহানায়ককে ঘিরে সেজে উঠছে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের মঞ্চ

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 4, 2018 3:01 pm|    Updated: November 4, 2018 3:01 pm

24th KIFF to kick off on Nov 10

স্টাফ রিপোর্টার: মহানায়ক উত্তমকুমারের ছবি দিয়ে শুরু হচ্ছে ২৪তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। উদ্বোধনী মঞ্চে প্রদর্শিত হবে মহানায়ক অভিনীত ছবি ‘অ্যান্টনি ফিরিঙ্গি’। এতেই শেষ নয়। বাংলা সিনেমার শতবর্ষপূর্তি উপলক্ষে উৎসবের দিনগুলিতে দেখানো হবে ১৪টি কালজয়ী বাংলা সিনেমা। বিশ্বের দরবারে বাংলা সিনেমার গরিমাকে তুলে ধরার লক্ষ্যে উদ্বোধনী মঞ্চে প্রকাশিত হবে ‘বেঙ্গলি ফিল্ম ডিরেক্টরি।’ বিগত একশো বছরে বাংলা চলচ্চিত্রের বিভিন্ন স্মরণীয় মুহূর্তের সাক্ষী থাকবে এই ‘চলচ্চিত্র অভিধান’। বাংলা সিনেমাকে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানানোর পাশাপাশি উৎসবের পরতে পরতে মিশে থাকবে আন্তর্জাতিকতাও। চলতি বছর উৎসবের ‘ফোকাস কান্ট্রি’ অস্ট্রেলিয়া। বিশেষ ফোকাস কান্ট্রি তিউনিশিয়া। এই প্রথম কোনও আন্তর্জাতিক রেডিও স্টেশন উৎসবের সমস্ত খবর সরাসরি সম্প্রচার করবে। “এই উপলক্ষে অস্ট্রেলিয়ার বিশিষ্ট সঞ্চালক মিক মলয় আসবেন কলকাতা। ১২-১৬ নভেম্বর পর্যন্ত কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের খুঁটিনাটি সরাসরি তাঁর মাধ্যমে পৌঁছে যাবে বিশ্বের আঙিনায়।” শনিবার চলচ্চিত্র উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত সাংবাদিক বৈঠকে একথা জানিয়েছেন রাজ্যের তথ্য-সংস্কৃতি সচিব তথা কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের ডিরেক্টর জেনারেল বিবেক কুমার। 

[মুক্তি পেলেই হবে বিক্ষোভ, পুরোহিতদের হুমকির মুখে ‘কেদারনাথ’]

রয়েছে আরও চমক। এবছরও চলচ্চিত্র উৎসবের সূচনা হবে বাংলার জামাইবাবু অমিতাভ বচ্চনের উপস্থিতিতে। থাকবেন বাংলার ব্র‌্যান্ড অ্যাম্বাসাডর শাহরুখ খান। উৎসবের মঞ্চ আলো করতে দেখা যাবে বিশ্বজিৎ চট্টোপাধ্যায়, জয়া বচ্চন, ওয়াহিদা রহমান, নন্দিতা দাস, মহেশ ভট্ট, সঞ্জয় দত্তকে। মাজিদ মাজিদি, ফিলিপ নয়েস, জিল বিলকক, সাইমন বেকারের মতো প্রথিতযশা নির্দেশকরাও থাকবেন। বাংলা চলচ্চিত্রের আইকন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়, মাধবী মুখোপাধ্যায়, গৌতম ঘোষ, রঞ্জিত মল্লিক প্রমুখ উদ্বোধনী মঞ্চে বাংলার প্রতিনিধিত্ব করবেন বলে এদিন জানান ক্রীড়া ও যুবকল্যাণমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। বস্তুত, ছবির সংখ্যা, দেশের প্রতিনিধিত্ব-সহ উৎসবের পুরস্কার মূল্য, হল-এর সংখ্যা-এত বৃহৎ আকারে চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন আগের বছরগুলিতে হয়নি বলেই এদিন জানান উৎসবের আয়োজকরা। এবছরই প্রথম অনলাইনে ছবি সাবমিশন চালু করেছে উৎসব কর্তৃপক্ষ। মিলেছে অভূতপূর্ব সাড়াও। ৭০টি দেশের ১৫০০টি ছবি উৎসবে অংশগ্রহণ করেছে। যার মধ্যে পূর্ণ দৈর্ঘ্য, স্বল্প দৈর্ঘ্য ও তথ্যচিত্র মিলিয়ে বেছে নেওয়া হয়েছে ৩২১টি ছবিকে। উৎসবের দিনগুলিতে যা প্রদর্শতি হবে ১৬টি প্রেক্ষাগৃহে। প্রসঙ্গত, চলতি বছর শহর ছাড়িয়ে হাওড়া ও দমদমে কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব সম্প্রসারণ করা হয়েছে।

[নতুন রূপে আসছে ‘চৌরঙ্গী’, প্রকাশ্যে ‘শাহজাহান রিজেন্সি’-র ফার্স্ট লুক]

“এতো ছিল ট্রেলার। আগামী বছর উৎসবের সুবর্ণজয়ন্তী বর্ষে পুরো ছবি দেখা যাবে।”-মন্তব্য উৎসবের চেয়ারম্যান প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের। তাঁর কথায়, বাংলা ছবিকে বিশ্বের আঙ্গিনায় পৌঁছে দেওয়ায় এ বছর উৎসবের মূল লক্ষ্য। পাশাপাশি আগামী বছরের প্রস্তুতি-পর্ব শুরু হয়ে যাবে চলতি বছর থেকেই। প্রসেনজিতের সুর ধরে একই কথা বলেন পর্যটন ও তথ্য-সংস্কৃতি দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেনও। তিনি জানান, বাংলা সিনেমার ১০০ বছর পূর্তি উপলক্ষে থাকছে বিভিন্ন অনুষ্ঠান। বাংলা ফিল্ম ডাইরেক্টরির পাশাপাশি ‘জলসাঘর’ বিভাগে প্রকাশিত হবে ১০০টি কালজয়ী বাংলা গান। ভারতীয় সিনেমার স্রষ্টা হীরালাল সেন-এর স্মরণে আগামী ১৩ নভেম্বর মধুসূদন মঞ্চে মঞ্চস্থ হবে নাটক ‘হীরালাল বায়োস্কোপ’। বিশিষ্ট অভিনেত্রী প্রয়াত সুপ্রিয়াদেবীকে শ্রদ্ধা জানাতে হোমেজ বিভাগে প্রদর্শিত হবে ‘মেঘে ঢাকা তারা’। উৎসবের আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র প্রতিযোগিতা বিভাগে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রকে ৫১ লক্ষ টাকা ও শ্রেষ্ঠ নির্দেশককে ২১ লক্ষ টাকা এবং রয়্যাল বেঙ্গল গোল্ডেন টাইগার ট্রফি দেওয়া হবে। সেরা ভারতীয় ছবিকে ‘হীরালাল সেন মেমোরিয়াল অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান করা হবে। এই বিভাগের শ্রেষ্ঠ নির্দেশক পাবে সাত লক্ষ টাকা এবং শ্রেষ্ঠ ছবিকে দেওয়া হবে পাঁচ লক্ষ টাকা। সেরা স্বল্প দৈঘ্যের চলচ্চিত্র ও শ্রেষ্ঠ তথ্যচিত্রকে যথাক্রমে পাঁচ লক্ষ ও তিন লক্ষ টাকা দেওয়া হবে।

[বিতর্কিত বিজ্ঞাপনের জেরে আবারও বিপাকে বিগ বি]

চলতি বছর উৎসবে পুনরুদ্ধার করা প্রাচীন ও বিখ্যাত চলচ্চিত্রগুলির প্রদর্শনীর উদ্বোধন করবেন জয়া বচ্চন। এতেই শেষ নয়, প্রাচীন ও বিখ্যাত চলচ্চিত্রগুলিকে সংরক্ষণের উদ্দেশে একটি কর্মশালার আয়োজন করেছে উৎসব কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববরেণ্য সংরক্ষকরা সেই কর্মশালায় ক্লাস নেবেন। বিবেক কুমার জানান, এই কর্মশালায় অংশ নিতে ইতিমধ্যে ৬০ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। যার মধ্যে ২০ জন দেশের বাইরের। এছাড়াও এ বছর উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ বিশিষ্ট পরিচালক ফিলিপ নয়েস-এর ‘মাস্টার ক্লাস’। শতবর্ষে শ্রদ্ধা জানানো হবে ফরাসি চলচ্চিত্র পরিচালক অ্যান্ড্রুজ বেজিন এবং সুইডেন-এর চলচ্চিত্র নির্মাতা ইঙ্গমার বার্গম্যানকে। সত্যজিৎ রায় স্মারক বক্তৃতা দেবেন নন্দিতা দাস।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে