BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

জেএনইউ কাণ্ডে মুখ খুললেন এআর রহমান, বলিউডকে ‘মেরুদণ্ড’ দেখাতে বললেন প্রকাশ

Published by: Bishakha Pal |    Posted: January 8, 2020 8:05 pm|    Updated: August 17, 2021 2:12 pm

A R Rahman and Prakash Raj opens up on JNU issue

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দুষ্কৃতী হামলায় আক্রান্ত জেএনইউ পড়ুয়াদের পাশে এখন গোটা দেশ। ব্যতিক্রম নয় বলিউডও। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রবাসের যে চত্বরে আক্রান্ত হয়েছিলেন ঐশী ঘোষ, সেখানেই দাঁড়িয়ে নেত্রীর সঙ্গে কথা বলেন অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। অভিনেত্রীর এই সাহসী পদক্ষেপের প্রশংসা করেছেন স্বরা ভাস্কর বা অনুরাগ কাশ্যপ। তবে তাঁরা সরাসরি জেএনইউ প্রতিবাদীদের সমর্থন করলেও চুপ বলিউডের বিগ বি ও তিন ‘সুপারস্টার’ খান। আর বলিউডের এমন প্রতিক্রিয়ায় ক্ষুব্ধ অভিনেতা প্রকাশ রাজ। যদিও ময়দানে হাঁকিয়ে ব্যাট করলেন না এ আর রহমানও। কিছুটা ডিপ্লোম্যাটিকই থাকলেন তিনি।

জেএনইউ কাণ্ডে বলিউডের অনেকে মুখ খুললেও প্রথম সারির অভিনেতারা এখনও নীরব।  যে অমিতাভ বচ্চনকে চেনা ছকের বাইরে হাঁটার জন্য ধন্য ধন্য করে মানুষ, সেই অমিতাভ জেএনইউয়ের ঘটনা নিয়ে মুখে রা কাড়েননি। জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়াদের উপর লাঠিচার্জের ঘটনায় তিনি যেমন চুপ ছিলেন, এক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটল। একই কথা শাহরুখ, সলমন আর আমির খানের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। তাঁরাও এনিয়ে একেবারে নিশ্চুপ। মুখ খোলেননি অনুষ্কা শর্মা, করিনা কাপুর খান, আলিয়া ভাটের মতো প্রথম সারির অভিনেত্রীরাও। এনিয়েই নেটদুনিয়ায় তো নিন্দার ঝড় শুরু হয়েছেই, অভিনেতা প্রকাশ রাজও সহকর্মীদের এমন আচরণে বেশ ক্ষুব্ধ। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, অনেক তো হল। এবার বলিউডকে উঠে দাঁড়াতে হবে। বলিউডকে অভিনেতার বার্তা, ‘মেরুদণ্ড দেখাও’।

[ আরও পড়ুন: ‘‌মনুষ্যত্বই পরম ধর্ম, যা বাকি সব কিছুর ঊর্ধ্বে’, মৌলবাদীদের মোক্ষম জবাব মীরের ]

অবশ্য দেরিতে হলেও জেএনইউয়ের পড়ুয়াদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বরুণ ধাওয়ান, সোনম কাপুর ও সুনীল শেট্টি। শিক্ষাক্ষেত্রে এমন হিংসাত্মক ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন বরুণ ধাওয়ান। বলেছেন, এমন মেনে নেওয়া যায় না। পড়ুয়াদের এটা প্রাপ্য নয়। পুলিশ ও সরকারের উচিত পড়ুয়াদের সুরক্ষা দেওয়া। তবে আইনের উপর তাঁর আস্থা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বরুণ। তাঁর আশা, মুখ ঢেকে যারা তাণ্ডব চালিয়েছে, তারা শাস্তি পাবেই।

অন্যদিনে সুনীল শেট্টির বক্তব্য, মুখোশ পরে গার্লস হস্টেলে ঢুকে যারা ছাত্রীদের বেধড়ক প্রহারের মতো কাজ মোটেই পুরুষোচিত নয়। ঘটনার নিন্দা করেছেন সোনম কাপুরও। তবে এ আর রহমান কিছুটা ডিপ্লোমেসির পথই হেঁটেছেন। তিনি বলেছেন, এবার অতীতকে ভুলে এগিয়ে যাওয়ার সময় এসেছে।

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 

#Repost • @rheakapoor Very rarely do I get into politics on social media because my first thought is who really cares what I think? Am I equipped to give an opinion on a public platform about things that I may barely understand? But now I have to say that I know our generation and when we look back I’m afraid we may be remembered for things we didn’t stand for. I know this is not who we are. This is not what we believe. So then I guess for those afraid to speak up fearing they may make a mistake, this is the only way to use your voice. To say, I don’t know everything and there may be things that i do not understand. But I know this isn’t right. For everyone who feels pressure to ‘pick a side’ don’t. Say what you feel. Most good people I know react to sincerity with understanding and empathy. Be sincere, use your voice and tell the truth. What’s happening in our country seems alien and unrecognisable. Im not sure how we got here. It’s always been a hidden truth that you may be punished if your opinions are too loud or unpopular. But now it’s there to see. And that scares the shit out of me. My thoughts are with the students at JNU you are so much braver than I could ever be. 🖤

A post shared by Sonam K Ahuja (@sonamkapoor) on

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে