BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

শ্রীদেবীর মৃত্যু কি আগেই আঁচ করেছিলেন অমিতাভ? টুইট ঘিরে জল্পনা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 25, 2018 12:14 pm|    Updated: January 11, 2021 5:24 pm

Amitabh Bachchan tweets he is feeling uneasy and a few minutes later Sridevi dies

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘কী জানি কেন, অদ্ভুত রকমের একটা অস্বস্তি হচ্ছে।’ শনিবার রাতে হঠাৎই এমন টুইট করেছিলেন বিগ বি অমিতাভ বচ্চন। ঠিক কেমন লাগছিল, বলে বোঝাতে পারেননি। আর তার মিনিট কয়েক পরই সেই অপ্রত্যাশিত খবরটি। চিরঘুমে চলে গিয়েছেন শ্রীদেবী।

শুনতে অবাক লাগতেই পারে। কিন্তু একেই হয়তো টেলিপ্যাথি বলে। কোনও দুঃসংবাদের আঁচ হয়তো আগে থেকেই পেয়েছিলেন বিগ বি। তাই ভিতরে ভিতরে ছটফট করছিলেন। ভক্তদের সঙ্গে সোশ্যাল সাইটে সে কথা শেয়ারও করেন তিনি। বিগ বির অসংখ্য অনুরাগীই তখন প্রশ্ন করেছিলেন, এ কেমন অনুভূতি? উত্তর পেতে অবশ্য বেশি দেরি হয়নি। সেই টুইটের কিছুক্ষণ পরেই দুঃসংবাদটা মেলে। তবে তা যে এতটাই খারাপ খবর হবে, কল্পনাও করতে পারেননি বলিউড শেহনশাহ। অত্যন্ত কাছের একজনকে হারিয়ে শোকস্তব্ধ অমিতাভ।

[চোখের চমক, মিষ্টি গলা আর অনবদ্য এক অভিনেত্রীকে হারিয়ে শোকাহত টলিপাড়া]

শ্রীদেবীর প্রয়াণে যেমন হতভম্ব দেশবাসী, ঠিক তেমনই বিগ বির টুইট নিয়েও চর্চা তুঙ্গে। কেউ একে কাকতালীয় বলছেন তো কেউ বলছেন, সিক্সথ সেন্স। আরেক নেটিজেন উল্লেখ করেছেন একটি বিশেষ ঘটনার। তিনি লেখেন, ‘কুলি’ ছবির শুটিয়ের সময় গুরুতর আক্রান্ত হয়েছিলেন অমিতাভ। সেই ঘটনার ঠিক আগে অভিনেত্রী স্মিতা পাতিল ফোন করে অমিতাভকে জিজ্ঞেস করেছিলেন, তিনি সুস্থ আছেন কিনা। কারণ সেদিন তাঁরও এমন অস্বস্তি হচ্ছিল।

‘ইনকালাব’, ‘আখরি রাস্তা’, ‘খুদা গাওয়া’র মতো সুপারহিট ছবিতে একসঙ্গে বড়পর্দা কাঁপিয়েছেন। ২০১৩ সালে ‘মুম্বই টকিজ’ ছবিতেও একসঙ্গে কাজ করেছিলেন তাঁরা। শুধু অনস্ক্রিনই নয়, ক্যামেরার বাইরেও শ্রীদেবীর গোটা পরিবারের সঙ্গেই বচ্চন পরিবারের সম্পর্ক বেশ ভাল। তাঁর অকাল প্রয়াণে তাই ভেঙে পড়েছেন অমিতাভ। এদিকে, দুবাই থেকে মুম্বই নিয়ে আসা হচ্ছে শ্রীদেবীর মরদেহ। হবে ময়নাতদন্ত। মুম্বইতেই শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। তাঁর বাড়ির বাইরে ভিড় জমিয়েছেন হাজার হাজার অনুরাগী।

[নক্ষত্র পতন, বিশ্বাসই হচ্ছে না শ্রীদেবী নেই]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে