৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উপদেষ্টা কমিটি থেকে নাম সরিয়ে নিলেন টলিউডের খ্যাতনামা পরিচালক তথা অভিনেত্রী অপর্ণা সেন। দিন দুয়েক আগেই চলচ্চিত্র উৎসবের চেয়ারম্যান পদে রাজ চক্রবর্তীকে বসানোর জন্য অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন তিনি। এবার সেই কারণেই কি উপদেষ্টা কমিটি থেকে বেরিয়ে এলেন তিনি? এমন প্রশ্ন কিন্তু অনেকেই তুলেছেন।

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের চেয়ারম্যান পদে তাঁর থেকে অভিজ্ঞ কেউ থাকলে, তবেই তিনি উপদেষ্টা কমিটিতে থাকবেন।

উল্লেখ্য, এবছর কলকাতা ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের ২৫ বছর উপলক্ষে বিশেষভাবে উপদেষ্টা কমিটি গঠন করা হয়েছিল। যেই কমিটিতে কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়, গৌতম ঘোষের মতো পরিচালকেরাও রয়েছেন। তা ঠিক কী কারণে উপদেষ্টা কমিটি থেকে নিজের নাম সরালেন অপর্ণা সেন? এপ্রসঙ্গে তাঁর বক্তব্য, কমিটিতে তাঁর নাম রাখার আগে রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রকের তরফে তাঁর সঙ্গে একবারও আলোচনা করা হয়নি। উপরন্তু তাঁর ক্ষোভ, কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের চেয়ারম্যান পদে তাঁর থেকে অভিজ্ঞ কেউ থাকলে, তবেই তিনি উপদেষ্টা কমিটিতে থাকবেন। এছাড়াও অভিজ্ঞ পরিচালকের দাবি, তাঁকে চলচ্চিত্র উৎসবের চেয়ারম্যান করা উচিত ছিল। কারণ, সিনেমা জগতে তাঁর অভিজ্ঞতা অনেকটাই বেশি। এছাড়াও, অপর্ণা সেন অবশ্য জানিয়েছেন তাঁর সময়ের অভাবের কথা।

[আরও পড়ুন: দিল্লিগামী বিমানে প্রসেনজিৎ-মুকুল সাক্ষাৎ, মুখ খুললেন ‘সাক্ষী’ মিমি চক্রবর্তী]

অপর্ণা সেনও প্রায় প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের সুরেই বলেছেন এই মুহূর্তে তাঁর সময়ের বড্ড অভাব। কারণ, নতুন ছবির কাজে হাত দিয়েছেন তিনি। এছাড়া, সামনেই অস্কার নমিনেশনের জুরি মিটিং রয়েছে। সেখানেও তাঁকে থাকতে হবে। ২৫তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব শুরুর আগে বিতর্ক যেন কিছুতেই পিছু ছাড়তে চাইছে না। রাজ্যের সংস্কৃতিমনস্ক ব্যক্তিদের মতে সব ক্ষেত্রেই রাজনীতির রং লাগায় এই পরিস্থিতি।

[আরও পড়ুন: বড়পর্দায় ফের জুটি বাঁধছেন আবীর-সোহিনী, আসছে ইন্দ্রদীপ দাশগুপ্তর নয়া ছবি]

রাজ চক্রবর্তী অবশ্য জানিয়েছেন, তিনি অপর্ণা সেন এবং প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় দু’জনের সঙ্গেই আলোচনা করবেন। কারণ তাঁদের পরামর্শের প্রয়োজন। সরকার তাঁকে এই পদে নির্বাচিত করেছেন। তাই চলচ্চিত্র উৎসবকে সাফল্যের শিখরে নিয়ে যাওয়ার সবরকম চেষ্টা তিনি করবেন।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং