BREAKING NEWS

১৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  সোমবার ৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

CAA বিরোধী পড়ুয়াদের পাশে বলিউডের একাংশ, সমালোচিত অক্ষয়-শাহরুখ

Published by: Bishakha Pal |    Posted: December 16, 2019 2:38 pm|    Updated: December 16, 2019 9:22 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে অশান্তির আবহ দেশের বিভিন্ন অংশে। পশ্চিমবঙ্গ ও অসম ছাড়িয়ে বিক্ষোভের আঁচ পড়েছে দিল্লিতেও। রবিবার সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদ করে দিল্লিতে পুলিশের রোষের মুখে পড়তে হয় জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের। ক্যাম্পাসে ঢুকে পড়ুয়াদের মারধরের অভিযোগ ওঠে পুলিশের বিরুদ্ধে। অন্তত ৫০ জন পড়ুয়াকে গ্রেপ্তারও করা হয়। জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ছাত্রদের উপর পুলিশি নির্যাতনের প্রতিবাদে মাঝরাতেই পথে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের পড়ুয়ারা। মশাল, স্লোগান, পোস্টার আর গানে মুখরিত প্রতিবাদ। কলকাতা, বম্বে, কোচি, হায়দরাবাদ, পাটনা, আলিগড়, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে একই ছবি। এবার প্রতিবাদী পড়ুয়াদের পাশে বলিউডের একাংশও।

সোশ্যাল মিডিয়ায় পড়ুয়াদের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন তাপসী পান্নু, অনুভব সিনহা, রিচা চাড্ডা, স্বরা ভাস্করের মতো অভিনেতা-অভিনেত্রীরা। দিল্লি পুলিশের ভূমিকার সমালোচনা করে স্বরা ভাস্কর লিখেছেন, ‘জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের উপর কাঁদনে গ্যাস ছোঁড়া হল। হিংসার রোমহর্ষক এক উদাহরণ। পড়ুয়াদের সঙ্গে কেন অপরাধীদের মতো ব্যবহার করছে দিল্লি পুলিশ? ওদের কী হয়েছে?’ গোটা ঘটনাটিকে ‘লজ্জাজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন স্বরা।

অনুভব সিনহা লিখেছেন, ‘এই প্রতিবাদ সাম্প্রদায়িক নয়, জাতীয়।…. যখন কারওর কাছে কোনও উত্তর থাকে না, ছাত্রছাত্রীরা কাজটি হাতে তুলে নেয়। বিশ্বের ইতিহাস তার সাক্ষী।’

অভিনেত্রী সায়নী গুপ্তা তো সরাসরি বলিউডের কয়েকজনকে ট্যাগ করে এই ঘটনার বিরুদ্ধে সরব হওয়ার অনুরোধ করেছেন। টুইটারে তিনি আয়ুষ্মান খুরানা, রণবীর সিং, করণ জোহর ও রাজকুমার রাওকে ট্যাগ করে লিখেছেন, ‘কেউ তো আওয়াজ তোলো! এই নৃশংসতা ও হিংসার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে মেসেজ বা ট্যুইট করে জানাও।’

কঙ্কনা সেনশর্মা লিখেছেন, ‘আমরা ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে আছি।’ রিচা চাড্ডা, বিক্রান্ত মাসে, তাপসী পান্নু ও সোনি রাজদানের মতো অনেকে প্রতিবাদ জানিয়েছেন টুইটারে।

তবে এই পরিস্থিতির মধ্যে অক্ষয় কুমার ও শাহরুখ খানের মতো প্রথম সারির দুই অভিনেতা সমালোচনার মুখে পড়েছেন। সম্প্রতি অক্ষয় কুমার জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এক পড়ুয়ার ভিডিও লাইক করে ফেলেন। পরে সেটি আনলাইক করে তিনি সাফাই দেন, ‘ভুল করে’ তিনি ভিডিওটি লাইক করে ফেলেছিলেন। তিনি একেবারেই এই হিংসাত্মক ঘটনার সমর্থন করেন না। অক্ষয়ের এই লাইক-আনলাইকের ঘটনা ভাইরাল হয়ে গিয়েছে নেটদুনিয়ায়।

অন্যদিকে শাহরুখ খান নিজে জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলেন। কিন্তু এই উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে তিনি চুপ। ফলে নেটিজেনদের একাংশের কটাক্ষের শিকার হয়েছেন তিনি। বলেছেন, ‘যখন পড়ুয়াদের উপর অত্যাচার চালাচ্ছে দিল্লি পুলিশ, তখন শাহরুখ কেন একটিও কথা বলছেন না? তাঁর কি কোনও দায়িত্ব নেই?’

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement