৩০ আশ্বিন  ১৪২৬  শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের ‘গুমনামি’ নিয়ে বিতর্ক। সৃজিত মুখোপাধ্যায় পরিচালিত এই ছবি জন্মলগ্ন থেকেই বিতর্কের সম্মুখীন হয়েছে। কখনও বসু পরিবার আপত্তি তুলেছে ‘গুমনামি’ নিয়ে তো কখনও রাজনৈতিক দলের রোষানলে পড়তে হয়েছে। তবে সেন্সর বোর্ড সবুজে সংকেত দেওয়ায় অনেকটাই রেহাই পেয়েছিলেন ‘গুমনামি’ নির্মাতারা। কিন্তু বিতর্কের রেশ যেন থামতেই চাইছে না। ‘গুমনামি’র স্থগিতাদেশ দাবি করে কলকাতা হাই কোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করলেন ফরওয়ার্ড ব্লকের নেতা দেবব্রত রায়।

[আরও পড়ুন: পুজোর বিশেষ গানে একসঙ্গে ধরা দেবেন মিমি-নুসরত-শুভশ্রী ]

উল্লেখ্য দিন কয়েক আগেই ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য দপ্তরে ট্রেলার লঞ্চ উপলক্ষে পরিচালক সৃজিত-সহ জড়ো হয়েছিলেন দুই অভিনেতা।  তবে বেনজিরভাবে ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য দপ্তরে গিয়ে সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের এই প্রয়াসে অনেকে বাহবা দিলেও দলের একাংশের মানভঞ্জন বোধহয় এখনও অধরাই রয়ে গেল। তাই সম্ভবত ছবির মুক্তির হপ্তা তিনেক আগে ‘গুমনামি’ প্রদর্শন রোখার জন্য জনস্বার্থ মামলা দায়ের করলেন দেবব্রত রায়।

ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য দপ্তরে সৃজিত মুখোপাধ্যায়

ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা দেবব্রত রায়ের বক্তব্য, “ছবির নাম ‘গুমনামি’ কিন্তু মুখার্জি কমিশন কিন্তু বলেনি যে গুমনামিবাবাই নেতাজি। ভারত সরকার যেখানে এই যুক্তির পক্ষে প্রমাণ দিতে পারেনি, সেখানে নেতাজিকে নিয়ে সিনেমা বানিয়ে অপমান করার অধিকার কারও নেই। কারণ, নেতাজির সঙ্গে গোটা দেশের আবেগ জড়িত।” অন্যদিকে নেতাজি অন্তর্ধান রহস্য আজও অধরা। তাহলে, সৃজিত কিংবা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় কীভাবে এই সিনেমা বানাতে পারেন, সওয়াল করেছেন দেবব্রত। অতএব সেন্সর বোর্ড ‘গুমনামি’ মুক্তির নির্দেশ তুলে নিক, দাবি তুলেছেন এই ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা। মামলার শুনানি রয়েছে আগামী শুক্রবার।

[আরও পড়ুন: বিনোদনের মোড়কেও গভীর বার্তা দেয় ‘ড্রিমগার্ল’]

টানা বাহাত্তর বছর ধরে নেতাজির অন্তর্ধান নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন উঠেছে। স্বাধীনতার পর একাধিক কমিশনও গঠিত হয়েছে। কিন্তু উত্তর মেলেনি। এমনই একটি হল মুখার্জি কমিশন। ‘গুমনামি’ সিনেমার ট্রেলার দেখানোর পর ফরওয়ার্ড ব্লক অফিসে বসে এমনটাই দাবি করেছেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। পরিচালকের কথায়, তিনি গবেষক নন। মুখার্জি কমিশনে যে তথ্য রয়েছে তাকে তিনি চলচ্চিত্রে দেখানোর চেষ্টা করেছেন। কোনও সিদ্ধান্তে আসেননি। কোনও রায় দেননি। অন্যদিকে, পরিচালকের বক্তব্য ও ট্রেলার দেখে ফরওয়ার্ড ব্লকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, “এখনই তারা এই ছবি সম্পর্কে কোনও মন্তব্য করবেন না। ২ অক্টোবর ছবি রিলিজ করার পর সম্পাদক মণ্ডলীর সব সদস্য আলোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে।” তবে তার আগেই কলকাতা হাই কোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হল ফরওয়ার্ড ব্লকের নেতা দেবব্রত রায়ের তরফে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং