BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

টিকল না মামলা, সলমনের ‘ভারত’-কে ছাড়পত্র দিল্লি হাই কোর্টের

Published by: Bishakha Pal |    Posted: June 3, 2019 9:37 pm|    Updated: June 3, 2019 9:38 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছবির নাম নিয়ে আপত্তি উঠেছিল মুক্তির ঠিক আগেই। অভিযোগ ছিল ‘ভারত’ নামটি বাণিজ্যিক কারণে ব্যবহার করা উচিত নয়। কিন্তু এই অভিযোগ নস্যাৎ করে দিয়েছে দিল্লি হাই কোর্ট। বিচারপতি জে আর মিধা ও চান্দের শেখরের ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, অভিযোগকারী শুধু ট্রেলার দেখেই এমন অভিযোগ তুলেছেন। পুরো ছবি তিনি দেখেননি। তাই এই অভিযোগ ধোপে টিকবে না।

ভারত’ নিয়ে বিকাশ ত্যাগী নামে এক সমাজসেবী অভিযোগ জানিয়ছিলেন দিল্লি হাইকোর্টে। তাঁর বক্তব্য ছিল, সলমনের ছবির নাম ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩ নম্বর ধারাকে লঙ্ঘন করেছে। এই ধারা অনুযায়ী ‘ভারত’ নামটি বাণিজ্যিক স্বার্থে ব্যবহার করা অপরাধ। কারণ সংবিধান অনুযায়ী ভারত এই দেশের নাম। শুধু তাই নয়, একটি সংলাপে দেখা গিয়েছে ছবির মুখ্য চরিত্রের সঙ্গে ভারত অর্থাৎ দেশের তুলনা টানা হয়েছে। যা কিছুতেই মেনে নেওয়া যায় না, এমনটাই অভিযোগ তোলেন ওই মামলাকারী। তাই ছবি থেকে ওই সংলাপ ছেঁটে ফেলার দাবিও করেন তিনি। এর প্রমাণ হিসেবে আদালতের কাছে তিনি  ছবির ট্রেলার পেশ করেছেন।  

[ আরও পড়ুন: ডায়েট ভেঙে ইফতারে কাবাব খেলেন শাহরুখ, একসঙ্গে পার্টিতে এলেন ক্যাট-সলমন-লুলিয়া ]

ডিভিশন বেঞ্চ ‘ভারত’ ছবির ট্রেলারও দেখে কোর্টরুমে। তারপরই বিচারপতি জে আর মিধা ও চান্দের শেখর জানান, ট্রেলারে কোনও সমস্যা নেই। বিকাশ ত্যাগী যে অভিযোগ করেছেন, তা ভিত্তিহীন। এরপর ‘ভারত’ মুক্তির পথে আর কোনও বাধা রইল না।

এদিকে ‘ভারত’ নিয়ে বিতর্কে জড়িয়ে গেলেন বিবেক ওবেরয়। ‘ভুলবশত’ নিজের টুইটারে এই ছবির প্রোমোশন করে ফেলেছিলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে তিনি #Bharat লিখে ফেলেন। ওই হ্যাশ ট্যাগটি ‘ভারত’ ছবির। ফলে বিবেকের টুইটের সঙ্গে জুড়ে যায় সলমনের ছবি। পরক্ষণেই নিজের ভুল বুঝতে পারেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে ডিলিট করে দেন। কিন্তু ততক্ষণে ছবির স্ক্রিনশট ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

vivek

[ আরও পড়ুন: সময় পেলেই কোমরে আঁচল জড়িয়ে রান্না, ‘রুমাদি’র স্মৃতিচারণায় কাতর সতীর্থরা ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement