১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বাংলায় ‘টাইটানিক’-এর রিমেক? মুখ খুললেন পরিচালক রাজ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 27, 2017 2:25 pm|    Updated: September 22, 2019 2:15 pm

Dev to play Leonardo DiCaprio's role in Titanic Bengali remake?

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: OMG! ‘টাইটানিক’ ছবির রিমেক হতে চলেছে টলিউডে! ১৯৯৭ সালে যে ছবি গোটা বিশ্বে সাড়া ফেলে দিয়েছিল, ঝুলিতে ভরেছিল ১১টি অস্কার পুরস্কার, সেই টাইটানিক এবার বাংলায়? পরিচালক রাজ চক্রবর্তীই নাকি পরিচালক জেমস ক্যামেরনের দেখানো পথে হাঁটতে চলেছেন। শুধু তাই নয়, জ্যাক ও রোজের চরিত্রের জন্য নায়ক-নায়িকাও বেছে ফেলেছেন পরিচালক! আন্দাজ করতে পারেন লিওনার্দো ডি’কাপ্রিওর জায়গায় বাংলার ‘টাইটানিক’ ছবির নায়ক হিসেবে কার নাম সামনে এসেছে? ঠিক ধরেছেন। পরিচালকের পছন্দের হিরো সুপারস্টার দেবের। কিন্তু সত্যিই কি বাংলায় তৈরি হতে চলেছে হলিউডের এই ঐতিহাসিক ছবিটি? উত্তর দিলেন স্বয়ং পরিচালক।

[গায়ে সাপ ফেলে দেওয়ার পালটা শোধ তুলতে এ কী করলেন সানি!]

ইংরাজি সংবাদমাধ্যমে ইতিমধ্যেই খবরটি ছড়িয়ে পড়েছে। লিওনার্দোর জায়গায় দেবকেই দেখা যাবে জ্যাকের ভূমিকায়। আর কেট উইনস্লেটের স্থানে একমাত্র রুক্মিনী মৈত্রকেই নাকি ভাবছেন পরিচালক। একটি বাংলা সংবাদমাধ্যমের দাবি, সম্প্রতি এক সাংবাদিক সম্মেলনে রাজকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল ভবিষ্যতে তাঁর কোন ছবির রিমেকের ইচ্ছা আছে। তখনই নাকি রাজ জানান, ‘টাইটানিক’ তাঁর অত্যন্ত পছন্দের একটি ছবি। ভবিষ্যতে এই সিনেমাটি রিমেক করার ইচ্ছা রয়েছে তাঁর। সঙ্গে জ্যাক ও রোজের চরিত্রে দেব এবং রুক্মিনীকে ‘পারফেক্ট চয়েজ’ বলেও জানান তিনি। এমন খবর চাউর হতে বিশেষ সময় লাগেনি। আর তারপরই সোশ্যাল সাইটে শুরু হয় ঠাট্টা-মশকরা। পরিচালক ও নায়ক, কাউকেই কটাক্ষ করতে ছাড়েনি নেটিজেনরা। ইতিহাস তৈরি করা এমন একটি ছবি নিয়ে টলিউডে হলে যে সত্যিই তা ডুববে, সে সমালোচনাও করা হয়।

tweet

[‘পদ্মাবতী’র পাশে টলিউড, মঙ্গলবার ১৫ মিনিটের ‘ব্ল্যাকআউট’-এর ঘোষণা]

তবে সব জল্পনায় জল ঢেলে দিলেন পরিচালক নিজেই। সোমবার সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটালকে তিনি ফোনে জানান, এমন খবর সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। তিনি নিজেও জানেন না কীভাবে এই ভুয়ো খবরটি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। তাই গোটা ঘটনায় বিস্মিত তিনিও। সাফ জানিয়ে দেন, এমন ছবি বানানোর কোনও পরিকল্পনা নেই তাঁর। অর্থাৎ ছবি তৈরিই হচ্ছে না। অদ্ভুত এমন ঘটনায় বেশ বিরক্ত পরিচালক।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে