BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

জটিলতার অবসান, শ্রীদেবীর মরদেহ দেশে ফেরানোর ছাড়পত্র দিল দুবাই

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 27, 2018 2:46 pm|    Updated: September 16, 2019 2:25 pm

Dubai police issues release letter for Sridevi’s mortal remains

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টানা ৬০ ঘণ্টার জটিলতা অবশেষে কাটল। তদন্তে সন্তুষ্ট হয়ে শ্রীদেবীর মরদেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল দুবাই প্রশাসন ও পুলিশ। চার থেকে পাঁচ ঘণ্টার মধ্যেই পরিবার দেহ ফিরে পাবে।

[  সম্ভবত খুন করা হয়েছে শ্রীদেবীকে, বিস্ফোরক দাবি সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর ]

শ্রীদেবীর মৃত্যুরহস্যে গত তিন দিনে নানা মোড় নিয়েছে। ময়নাতদন্তে জানা গিয়েছিল, মদ্যপ অবস্থায় জলে ডুবে মৃত্যু হয়েছে অভিনেত্রীর। তবে পরে জানা গিয়েছিল অভিনেত্রীর মাথায় গভীর ক্ষতচিহ্নেরও সন্ধান মিলেছে। ফলে মৃত্যু না হত্যা, সে ধন্ধ ফের জেগে উঠেছিল। পাসপোর্ট আটক করা হয়েছিল অভিনেত্রীর স্বামী বনি কাপুরের। তৃতীয়বারের জন্য তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের পাশাপাশি খতিয় দেখা হচ্ছিল সিসিটিভি ফুটেজও। গোড়া থেকেই শ্রীদেবীর মৃত্যু নানা রহস্যে মোড়া। পারিবারিক বন্ধুরা জানাচ্ছেন, শ্রীদেবী মদ্যপান করতেন না। এদিকে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বলছে, তিনি মদ্যপ ছিলেন। তাহলে সেদিন কেন মদ্যপান করেছিলেন? কেউ কি জোর করে তাঁকে মদ খাইয়ে বেসামাল করে তুলেছিলেন? এ প্রশ্ন ঘুরছিলই। তার মধ্যে ক্ষতচিহ্ন অন্য প্রশ্ন তুলে দিয়েছিল। এশিয়ানেট নিউজের খবর অনুযায়ী, অভিনেত্রীর মাথায় দুটি গভীর ক্ষতচিহ্ন দেখা গিয়েছিল। ফলে তা দুর্ঘটনা নাকি তাঁকে ঠেলে দেওয়া হয়েছিল, তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। রামগোপাল ভার্মার মতো পরিচালক দাবি তোলেন, ফ্যানদের অন্তত এই সত্যি জানা উচিত।

এই নিয়ে জটিলতা ক্রমশ বাড়ছিল। তবে স্থানীয় আইন মেনেই তদন্ত চলছিল। মঙ্গলবার ফের বনি কাপুরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সিটিসিটিভি ফুটেজ ও তাঁর বয়ানের উপর ভিত্তি করে পুরো ঘটনা আরও একবার খতিয়ে দেখে দুবাই পুলিশ।পুনরায় চলে তদন্ত। অবশেষে তদন্তে সন্তুষ্ট হয়ে শ্রীদেবীর মৃতদেহ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিল দুবাই প্রশাসন। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তা পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হবে। ফলে সন্ধে বা রাতের দিকে মুম্বই পৌঁছতে পারে শ্রীদেবীর মরদেহ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে