BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সামান্য হলেও স্থিতিশীল সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, আজ হবে না ডায়ালিসিস

Published by: Suparna Majumder |    Posted: October 30, 2020 3:55 pm|    Updated: October 30, 2020 5:22 pm

An Images

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত ৩ দিনের তুলনায় সামান্য হলেও স্থিতিশীল সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় (Soumitra Chatterjee)। শুক্রবার বেলা তিনটের মেডিক্যাল বুলেটিনে বেলভিউ হাসপাতালের পক্ষ থেকে এমনটাই জানালেন চিকিৎসক অরিন্দম কর।

বৃহস্পতিবার বেলভিউ হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল তিন দফায় কিংবদন্তি অভিনেতার ডায়ালিসিস করা হবে। তার মধ্যে দুই দফার ডায়ালিসস গত দিনেই করা হয়ে গিয়েছে। তার ফল মিলেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সৌমিত্রবাবুর ইউরিন আউটপুটের উন্নতি হয়েছে। প্রায় ১.৫ লিটার। ইউরিয়া ক্রিয়েটিনিনের পরিমাণও কমেছে। তাই শুক্রবার আর ডায়ালিসিস করা হবে না বলেই জানিয়েছেন ডা. কর। শুক্রবারটা দেখে নিয়ে তারপর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে প্রবীণ অভিনেতার আর ডায়ালিসিসের প্রয়োজন আছে কিনা।

[আরও পড়ুন: সুশান্ত কাণ্ডে এবার বলিউড পরিচালককে সমন! টুইটারে কেন ট্রেন্ডিং #WhoKilledSushant?]

সৌমিত্রবাবুর চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা বিশেষজ্ঞ টিমের সদস্য জানান, ভেন্টিলেশনে আগের থেকে অনেক স্থিতিশীল সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। এদিন সকালে তিনি চোখও খুলেছেন। তবে আচ্ছন্নভাব এখনও রয়েছে। শরীরে আরও নতুন জটিলতা তৈরি হয়নি। রক্তক্ষরণও হয়নি। রক্তের অ্যাসিডোসিস পার্টও চিহ্নিত করা গিয়েছে। অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৪০ শতাংশের নিচে নেমে গিয়েছে। হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ আগের থেকে ভাল হয়েছে। তবে এখনও কিছুটা কম. তাই রক্ত দিতে হয়েছে। তবে বর্ষীয়ান অভিনেতার প্লেটলেট কাউন্ট ঠিক আছে। তাই নতুন করে প্লেটলেট ট্রান্সফিউশন করার প্রয়োজন হয়নি।  

৬ অক্টোবর থেকে বেলভিউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অভিনেতা। করোনা (CorinaVirus) আক্রান্ত অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়। প্লাজমা থেরাপির পর তাঁর করোনা (COVID-19) রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। সেই সঙ্গে চিকিৎসাতেও সাড়া দিতে থাকেন তিনি। কিন্তু আচমকাই তাঁর শারীরিক অবস্থা সংকটজনক হয়ে পড়ে। চিকিৎসকরা জানান, সৌমিত্রর শরীরে সমস্যা বাড়িয়েছে কোভিড এনসেফ্যালোপ্যাথি। সেই কোভিড এনসেফ্যালোপ্যাথিই এখনও চিন্তায় রাখছে চিকিৎসকদের। শুক্রবার সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মস্তিষ্কের স্নায়ুর সচেতনতা অর্থাৎ গ্লাসগো কোমা স্কেলে সূচক ১০-এর কাছাকাছি।  গত তিন সপ্তাহ ধরে ICU-তে রয়েছেন বর্ষীয়ান শিল্পী।  চিকিৎসকদের আশঙ্কা, এতদিন ICU-তে থাকার ফলে অভিনেতার শরীরে পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে।

[আরও পড়ুন: ‘জানি না ওর মা কী শিক্ষা দিয়েছে’, ছেলে জানের বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন কুমার শানু]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement