BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

অভিনেত্রীর শ্লীলতাহানি, অভিযুক্তর বিমানে ওঠা নিষিদ্ধ হতে পারে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 10, 2017 3:29 pm|    Updated: September 20, 2019 12:45 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘দঙ্গল’ সিনেমার সৌজন্য খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। কিন্তু যৌন হেনস্তার শিকার হওয়া থেকে নিজেকে বাঁচাতে পারেননি। বিমানের ভিতরে কাশ্মীরের কন্যা জায়রা ওয়াসিমের হেনস্তা হওয়ার খবরে রবিবার উত্তাল হয়ে উঠল গোটা দেশ। প্রতিবাদের ঝড় বইল সব মহলেই। আর এ খবর ছড়িয়ে পড়তেই নড়েচড়ে বসল প্রশাসন। ইতিমধ্যে জায়রা ওয়াসিমের ঘটনায় মামলা রুজু করল মু্ম্বই পুলিশ।

জানা গিয়েছে, জায়রার কাছ থেকে রবিবারই বয়ান রেকর্ড করে মুম্বই পুলিশ। তারপরই অজ্ঞাত পরিচয় ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি ৩৫৪ ধারায় এবং পকসো আইনে মামলা দায়ের করেছে। এদিকে, যে বিমান সংস্থার তরফ থেকে গোটা ঘটনায় পূর্ণাঙ্গ সহযোগিতার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। তাদের প্রতিনিধি দল জায়রার সঙ্গে দেখা করবে বলেও জানানো হয়েছে। এই ঘটনায় ওই বিমানসংস্থার কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছে ডিজিসিএ। এদিকে, জায়রার পাশে থাকার আশ্বাস দিলেন কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী জয়ন্ত সিং। তিনি বলেন, ‘আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। জায়রাজি আপনি মামলা রুজু করুন এবং বিমানসংস্থার বিরুদ্ধে পূর্ণ সহায়তা করুন। অভিযুক্ত ব্যক্তির দোষ প্রমাণিত হলে আমরা তার নাম ‘নো-ফ্লাই লিস্টে’ অন্তর্ভুক্ত করব।’

ঠিক কী হয়েছিল জায়রার সঙ্গে? অভিজাত বিমানসংস্থা ভিস্তারার যাত্রী ছিলেন জায়রা। সেখানেই অশালীন আচরণের মুখে পড়েন তিনি। ঘটনার বিবরণ দিতে গিয়ে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা এক ভিডিওয় কান্নায় ভেঙে পড়েছেন অভিনেত্রী। তিনি জানাচ্ছেন, কোন পরিস্থিতির মুখে পড়তে হয়েছিল। যে সিটে জায়রা বসেছিলেন, ঠিক তার পিছনের সিটেই যাত্রী ছিলেন এক প্রৌঢ়। অভিযুক্ত ব্যক্তি প্রথমে তার পা জায়রার সিটে তুলে দেয়। প্রতিবাদ করেন জায়রা। তাতে হিতে বিপরীত হয়। পা নামাতে অস্বীকার করে ওই ব্যক্তি। উলটে নানাভাবে হেনস্তা করতে থাকে তরুণী অভিনেত্রীকে। পুরো ঘটনায় চোখে জল জায়রার। তিনি জানাচ্ছেন, ওই ব্যক্তি পা দিয়েই এরপর তাঁকে খোঁচাতে থাকে। শরীরের আপত্তিকর জায়গায় স্পর্শ করেন। বিমানের মধ্যে আধো অন্ধকারের সুযোগ নিয়েই কুকর্ম চালাতে থাকে ব্যক্তিটি। আলো এত কম ছিল যে, পুরো ঘটনার ঠিকঠাক ভিডিও করতে পারেননি অভিনেত্রী। তবে তাঁর অপর ভিডিওয় স্পষ্ট যে, ঘটনায় কতটা আহত হয়েছেন এই কাশ্মীরি কন্যা।

[‘পাশে আছি জায়রা’, অভিনেত্রীকে কাঁদতে দেখে সমব্যথী দেশবাসী]

জায়রার অভিযোগ পেয়ে নড়েচড়ে বসেছে ভিস্তারা কর্তৃপক্ষ। জায়রার মতো তরুণী যদি এরকম অভিজাত সংস্থায় শ্লীলতাহানির শিকার হয়, তবে সংস্থার জন্যও তা ভাল বিজ্ঞাপন নয়। ইতিমধ্যেই ওই ব্যক্তিকে চিহ্নিত করে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। তবে জায়রারা ঘটনা গোটা দেশকেই এক বড় প্রশ্নচিহ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিল। নারী সুরক্ষা নিয়ে দেশ জুড়ে কম কথা হয় না। সেইসঙ্গে প্রায় পাল্লা দিয়ে বাড়ছে নারী নির্যাতনও। এর শেষ কোথায়? জায়রার ভিডিও যেন সে প্রশ্নই তুলে দিচ্ছে। তবে এর বিপরীত দিকও রয়েছে। অনেকেই আবার এটাকে পাবলিসিটি স্টান্ট আখ্যা দিয়েছেন। টুইটারে বেশ কিছু নেতিবাচক পোস্টও জমা পড়েছে। যদিও এখন গোটা বিষয়টি পুলিশি তদন্তের আওতায়। তাই ওই অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির পুলিশ খুঁজে বের করতে পারে কিনা, এখন সেদিকেই তাকিয়ে গোটা দেশ।

[নৃশংস! ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ করে গোপনাঙ্গে লাঠি ঢুকিয়ে খুন হিসারে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement