৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  রবিবার, ৮ সেপ্টেম্বর ‘গুমনামি’র ট্রেলার লঞ্চের দিন ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য দপ্তরে একটি মিটিংয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানেই উপস্থিত ছিলেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। সেখানেই দলের বিশিষ্ট সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা সারেন পরিচালক। ছবির প্রিমিয়ারের দিন ফরওয়ার্ড ব্লকের ২০ জন সদস্য থাকবে বলেও জানান তিনি। তবে বেনজিরভাবে ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য দপ্তরে গিয়ে সৃজিতের  মুখোপাধ্যায়ের এই প্রয়াসে অনেকে বাহবা দিলেও বসু পরিবার মানভঞ্জন এখনও অধরাই রয়ে গেল। বরং, তার পরের দিনই সৃজিতকে ‘সুযোগসন্ধানী’ আখ্যা দিয়ে আক্রমণ করলেন চিত্রা বসু এবং দ্বারকা বসু।

[আরও পড়ুন: ‘জানতামই না পাকিস্তানও রকেট ওড়াতে পারে’, বিদ্রুপ করে পাক রোষানলে আরশাদ]

গুমনামি‘র ট্রেলার প্রকাশ্যে আসার পর ফের বসু পরিবারের বাক্যবাণ ধেঁয়ে আসে সৃজিতের দিকে। ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য দপ্তরে যাওয়ার পর পরদিনই তাঁকে ‘সুযোগসন্ধানী’ বলেন নেতাজির ভাইঝি অধ্যাপিকা চিত্রা বসু এবং ভাইপো অধ্যাপক দ্বারকা বসু। এক প্রেস বিবৃতি মারফত এমনই অভিযোগ তুলেছেন নেতাজির পরিবারের সদস্যরা।

‘গুমনামি’ নিয়ে বিতর্ক অবশ্য এই প্রথম নয়! ছবির জন্মলগ্ন থেকেই বসু পরিবারের তরফ থেকেও একাধিকবার একাধিক ইস্যু নিয়ে আপত্তি তুলেছে। কিন্তু সেদিকে খুব একটা কর্ণপাত করতে নারাজ সৃজিত মুখোপাধ্যায়। বরং তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন যে হাজারও আপত্তি এলেও তা একেবারেই শোনার প্রয়োজন বোধ করছেন না তিনি।

সোমবার এক প্রেস বিবৃতিতে চিত্রা বসু ও দ্বারকা বসু অভিযোগ তুলেছেন, “সৃজিত বারবার নিজের কথা নিজেই ভেঙেছেন। প্রথমটায় তিনি বলেছিলেন  চন্দ্রচূড় ঘোষ ও অনুজ ধরের বই ‘কোনানড্রাম’ অবলম্বনে তৈরি হয়েছে ‘গুমনামী’। অথচ সেই তিনিই সেন্সর বোর্ডে জানালেন, তাঁর ছবি মুখার্জি কমিশনের রিপোর্টের ওপর আধারিত। আসলে সৃজিত নিজে একজন ‘সুযোগসন্ধানী।”

[আরও পড়ুন: ‘পিটিয়ে মেরে ফেলব’, খুনের হুমকি পেলেন পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায়]

শুধু তাই নয়, ছবির নাম নিয়েও জোর আপত্তি তুলেছেন বসু পরিবারের দুই সদস্য। গুমানামি যে নেতাজি নয়, সেকথার উপর আবারও আলোকপাত করেছেন প্রেস বিবৃতিতে। এমনকী, ‘গুমনামি’র প্রদর্শন বন্ধ করার দাবিও তোলা হয়েছে নেতাজি পরিবার থেকে। উল্লেখ্য, রবিবার ফরওয়ার্ড ব্লকের রাজ্য দপ্তরে বিবৃতি দেওয়ার সময়ে সৃজিত আবারও দাবি করেছেন যে তাঁর ছবি তথ্য নির্ভর। কিন্তু ছবিতে নেতাজি অন্তর্ধান রহস্য প্রসঙ্গে চূড়ান্ত পর্যায়ে কোনও মতামত তিনি দেননি বলেই জানান। ‘গুমনামি’ মুক্তি পাচ্ছে ২ অক্টোবর। সেন্সর বোর্ড যদিও একবাক্যে সৃজিতের ছবিকে সবুজ সংকেত দিয়েছে, তবুও বসু পরিবারের বেজায় আপত্তির জন্য মুক্তির আগে কি আবারও জোর বিতর্কের স্বীকার হতে হবে ‘গুমনামি’কে? এমনটাই কিন্তু মনে করছেন সিনেমহলের একাংশ। তবে পালটা দিয়ে সৃজিতও ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছেন।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং