BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দীপিকার নাক কাটার হুমকি কর্ণি সেনার, ছবিমুক্তির দিন ভারত বনধের ডাক

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 16, 2017 9:17 am|    Updated: September 23, 2019 6:36 pm

Padmavati row: Fringe group threatens to chop off Deepika Padukone’s nose

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একের পর এক হুমকি দিয়ে চলেছে কর্ণি সেনা। এবার তাঁদের আক্রমণের নিশানা অনস্ক্রিন ‘পদ্মাবতী’ ওরফে দীপিকা পাড়ুকোন। নায়িকার নাক কেটে নেওয়ার হুমকি দিল স্বঘোষিত এই রাজপুত সংগঠন। এমনকী তাঁকে পঙ্গু করার শাসানি দেওয়া হয়। পর্দার ‘পদ্মাবতী’কে ‘নাচনেওয়ালি’ বলে কটাক্ষ করলেন কর্ণি সেনার নেতা লোকেন্দ্র সিং কালভি। এই ঘটনায় ছবির মুক্তির দিন অর্থাৎ পয়লা ডিসেম্বর ভারত বনধের ডাক দিয়েছেন তিনি।

[জীবনকে নতুন করে কাছে টেনে নিন আজকের চলচ্চিত্র উৎসবে]

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে হিংসাত্মক চেহারা নিচ্ছে কর্ণি সেনার আন্দোলন। কোটায় প্রেক্ষাগৃহ ভাঙচুর থেকে শুরু হয়েছে এই ধ্বংসলীলা। রাজস্থানের বিভিন্ন জায়গায় ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে ছবির পোস্টার। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছিলেন নায়িকা দীপিকা পাড়ুকোন। পরিস্থিতিকে ভয়াবহ আখ্যা দেন অভিনেত্রী। জানান, এমন ঘটনার জন্যই দেশ পিছিয়ে পড়ছে। এর বিরোধিতা করতে গিয়ে বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী বলেছিলেন, নায়িকা চাইলেই দেশ পিছিয়ে পড়বে? ‘পদ্মাবতী’ আন্ডারওয়ার্ল্ডের টাকায় তৈরি হয়েছে বলেও পরোক্ষে অভিযোগ করেন তিনি। সেই অভিযোগই এদিন শোনা গেল কর্ণি সেনার রাজস্থান শাখার সভাপতি মহীপাল সিং মকরালের গলায়। নায়িকা দীপিকা পাড়ুকোনকেও ছাড়লেন না তিনি। এক সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে প্রকাশ্যে নায়িকার নাক কেটে নেওয়ার হুমকি দিলেন। এদিকে এই ইস্যুতে বিজেপি নেতা রাম কদমের প্রতিক্রিয়া চাওয়া হলে তিনি জানান, হিংসাত্মক ঘটনা কোথাও কাম্য নয়। কিন্তু এর জন্য পরোক্ষে পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালিই দায়ী। সামনে এসে বিষয়টি  না মিটিয়ে এভাবেই নিজের ছবির প্রচার করছেন পরিচালক। এদিকে পদ্মাবতী নিয়ে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ কৌশলে বিরোধিতা করেছেন। তিনি জানিয়েছেন ছবি মুক্তি পেলে রাজ্যে আইনশৃঙ্খলার অবনতি হতে পারে। তার দায় কিন্তু প্রশাসন নেবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন যোগী।

[খোলামেলা ব্লাউজ পরে ফের নেটদুনিয়ার সমালোচনার মুখে দীপিকা]

তবে নিজের অবস্থান আগেই ব্যাখ্যা করেছেন পরিচালক। মরুশহরে শুটিংয়ের সময় কর্ণি সেনা সেটে তাণ্ডব চালিয়েছিল, তখনই বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলেছিলেন তাঁর ছবিতে আপত্তিকর কিছু নেই। ‘পদ্মাবতী’-তে কোনওভাবে ইতিহাসকে বিকৃত করা হয়নি। রানি পদ্মাবতী ও আলাউদ্দিন খিলজির মধ্যে কোনও প্রেমের দৃশ্য নেই। বরং রাজপুত রানির শৌর্যের গাথাই তুলে ধরা হয়েছে। পরে আবার ভিডিও প্রকাশ করে একই কথা বলেন পরিচালক।

তবে এ আরজি শোনার বদলে বিক্ষোভ আরও জোরদার করছে কর্ণি সেনা। মদত দিচ্ছে সর্ব ব্রাহ্মণ মহাসভার মতো সংগঠনও। বৃহস্পতিবার সংগঠনের সদস্যরা রক্ত দিয়ে ছবির মুক্তির বিরুদ্ধে একটি আবেদনপত্রে সই করেছেন। তা সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ফিল্ম সার্টিফিকেশনের কাছে পাঠানো হবে বলে জানা গিয়েছে।

সূত্রের খবর সিবিএফসি প্রধান প্রসূন জোশী নাকি ইতিমধ্যেই ছবিটি দেখে ফেলেছেন। আর তিনি ছবিতে কোনও আপত্তিকর বিষয় পাননি। আর বিনা কাটেই এ ছবিকে ছাড়পত্র দিতে চলেছে সেন্সর।

[অফিসিয়াল পোস্টারে রহস্য উসকে দিয়ে ‘আসছে আবার শবর’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে