২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৭ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ঐন্দ্রিলার ইচ্ছেশক্তিকে কুর্নিশ প্রসেনজিতের, ‘কেন চলে গেলে?’ আক্ষেপ ঋতুপর্ণার

Published by: Suparna Majumder |    Posted: November 20, 2022 5:20 pm|    Updated: November 20, 2022 7:09 pm

Prosenjit Chatterjee, Rituparna Sengupta and other celebs express their condolences on Aindrila Sharma death | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেউ ব্যক্তিগতভাবে চিনতেন, কেউ চিনতেন না। কিন্তু ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma) যেন সকলের আপন হয়ে উঠেছিলেন। গোটা টলিউড ২৪ বছরের মেয়েটার জন্য প্রার্থনা করছিল। কিন্তু শেষরক্ষা হল না। বুধবার বেলা ১২.৫৯ মিনিটে প্রয়াত হন অভিনেত্রী। গত কুড়িটা দিন কী অসম্ভব লড়াই না লড়েছেন তিনি! ঐন্দ্রিলার এই লড়াইকে কুর্নিশ জানিয়েছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prosenjit Chatterjee)। “ভাল থেকো ঐন্দ্রিলা… তোমার ইচ্ছেশক্তি অনুপ্রেরণা হয়ে থাকুক…”, একথাই টুইটারে লিখেছেন ‘মিস্টার ইন্ডাস্ট্রি’।

Prosenjit-Chatterjee

ঐন্দ্রিলার জন্য প্রার্থনা করেছিলেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত (Rituparna Sengupta)  এভাবে চলে যাওয়া কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। ফেসবুকে লেখেন, “ঐন্দ্রিলা, কেন এত তাড়াতাড়ি চলে গেলে? তুমি তো যোদ্ধা ছিলে তুমি কেন চলে গেলে? তোমার তো ফিরে আসার কথা ছিল! সত্যিকারের বিজয়িনী…!! ওর লড়াই … এক দৃষ্টান্ত হয়ে রইল।”

Rituparna Sengupta

[আরও পড়ুন: ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে আর কখনও কিছু লিখবেন না! ফেসবুক প্রোফাইল মুছলেন সব্যসাচী]

ঐন্দ্রিলার যাওয়ার আভাস যেন আগেই পেয়ে গিয়েছিলেন অভিনেতা জিতু কমল (Jeetu Kamal)। শনিবার রাতেই নিজের প্রোফাইল পিকচারের জায়গাটি কালো করে দিয়েছিলেন তিনি। ঐন্দ্রিলার প্রয়াণের খবর পাওয়ার পর একই কাজ করেন জয়জিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়। ফোন করে যেন প্রতিক্রিয়া না চাওয়া হয়, সোশ্যাল মিডিয়ায় এই অনুরোধ জানিয়েছেন শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)। 

Sreelekha-Mitra

ঐন্দ্রিলার প্রয়াণের পর টেলিভিশন চ্যানেলে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন শ্রীমতা ভট্টাচার্য। ” ছেলেটার আবেগের সাথেই বেঁচে থাকুক তারার দেশের লড়াকু মেয়েটা। ঐন্দ্রিলার স্বজন সুজন ও সব্যসাচীকে শক্ত রাখুন ঈশ্বর”, লেখেন রুদ্রনীল ঘোষ।

‘কিছু বলার নেই, কেন এমন হয়?’, এক সংবাদমাধ্যমে ঐন্দ্রিলা সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে একথাই জানিয়েছেন অপরাজিতা আঢ্য।  ঐন্দ্রিলার এই লড়াইকে নজিরবিহীন আখ্যা দিয়েছেন অভিনেত্রী চৈতি ঘোষাল। যে সমাজের চারদিকে অমানবিকতার এত চিত্র, সেখানে সব্যসাচী-ঐন্দ্রিলার লড়াই দৃষ্টান্ত বলেই মত তাঁর। ” ঐন্দ্রিলা তুমি আজীবন রয়ে যাবে আমাদের সবার মনের মধ্যে”, ফেসবুকে লিখেছেন অভিনেতা গৌরব রায়চৌধুরী। অভিনেত্রীর আত্মার শান্তি কামনা করেছেন জিৎ (Jeet)। 

ছোটবেলা থেকেই ঐন্দ্রিলাকে চেনেন অঙ্কুশ। জন্মদিনে তিনি ও ঐন্দ্রিলা পাঠিয়েছিলেন কেক। পুরনো ছবি শেয়ার করে অভিনেতা লেখেন, “তখন আমার বয়স ছিল ২৪ আর তোর ১৪… তোকে জড়িয়ে ধরে আশীর্বাদ করে বলেছিলাম তুই যেদিন আমার বয়সি হবি অনেক বড় হিরোইন হবি… ভাল থাকিস বাবু… অনেক অনেক ভাল থাকিস…অনেক আদর, ভালবাসা তোর জন্য রাখা আছে… পারলে ফিরে আসিস।” ঐন্দ্রিলার প্রয়াণে শোকাতুর রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। 

Ankush

[আরও পড়ুন: ‘অসাধারণ প্রত্যাবর্তন’! নিজে হাতে তুলে দিয়েছিলেন সম্মান, ঐন্দ্রিলার মৃত্যুতে শোকাহত মমতা]

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে