৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গান্ধীগিরি নিয়ে রাজকুমার হিরানি আগই ছবি বানিয়েছিলেন- ‘লগে রহো মুন্নাভাই’। এবার গান্ধীজির ১৫০তম জন্মবার্ষিকীতে সলমন খান, আমির খান, শাহরুখ খান, রণবীর কাপুর, ভিকি কৌশল, কঙ্গনা রানাউত, আলিয়া ভাট, সোনম কাপুরকে নিয়ে একটি ভিডিও বানানোর পরিকল্পনা করছেন। ইংরাজি ও হিন্দি, দুই ভাষাতেই তৈরি হয়েছে ভিডিও।

পরিচালক বলেছেন, “এক বছর আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দিল্লিতে দেখা করেছিলেন তিনি। সেই সময় তাঁদের মধ্যে সিনেমা নিয়ে কথা হয়। তিনি তখন বলেছিলেন, সরকার আইন বানাতে পারে। কিন্তু চিত্রপরিচালকরা মানুষের মনে ঢুকে পড়তে পারেন। তিনিই আমাকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন মহাত্মা গান্ধীর ১৫০তম জন্মবার্ষিকীতে তাঁকে নিয়ে একটা ছবি বানাতে। তারই পরিস্ফুটন এই ভিডিও।” পরিচালক এও জানিয়েছেন, সমস্ত অভিনেতা-অভিনেত্রীরা এই ভিডিওর জন্য প্রচুর খেটেছেন। বিভিন্ন দিন, বিভিন্ন জায়গায় শুটিং করার কথা হয়েছিল এই ভিডিওর। কারণ যাঁদের এখানে দেখা গিয়েছে, তাঁরা প্রত্যেকেই খুব ব্যস্ত। কিন্তু শেষ মুহূর্তে সবাই সময় বের করেন। স্টুডিওতেই শুটিং হয়। হিরানির বক্তব্য, মহাত্মা গান্ধীকে কখনও সংক্ষিপ্তকরণ করা সম্ভব নয়। তিন ঘণ্টার একটি সিনেমায় তাঁর জীবন তুলে আনা সম্ভব নয়। তাই ভিডিওতে তিনি গান্ধীজির আদর্শ, তাঁর মূল্যবোধকে তুলে আনতে চেয়েছেন।

[ আরও পড়ুন: বাস্তবের ‘গোত্র’র গল্প, ভিনধর্মী ঠাকুমা-নাতিকে ছবি দেখার আমন্ত্রণ শিবু-নন্দিতার ]

১৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় বাপুজির জন্মদিন উপলক্ষেই মোদির বাসভবন লোককল্যাণ মার্গে আয়োজিত হয়েছিল একটি অনুষ্ঠানের। যেখানে প্রধানমন্ত্রী মোদির তরফে আমন্ত্রিত ছিলেন ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা। উপস্থিত ছিলেন শাহরুখ খান, সোনম কাপুর, পরিচালক রাজকুমার হিরানি, কঙ্গনা রানাউত, রাজকুমার সন্তোষী, আনন্দ এল রাই, নীতীশ তিওয়ারি, অশ্বিনী আইয়ার তিওয়ারি, প্রযোজক বনি কাপুর ও একতা কাপুর-সহ আরও অনেকেই।

সেখানে বলি তারকাদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মহাত্মা গান্ধীর আদর্শ প্রচারে বলিউডের শিল্পীদের ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী। কিছু শিল্পী প্রচুর পরিশ্রম করেছেন বলেও উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ‘গান্ধীজির আদর্শ ও জীবন সাধারণ মানুষের মধ্যে তুলে ধরতে আপনারা সবাই দারুণ কাজ করছেন। এর ফলে বিশ্বজুড়ে যে প্রভাব পড়েছে তার পুরোটা হয়তো আপনারাও জানেন না। কখনও আপনাদের এই ধরনের সৃষ্টিশীল কাজে যদি সাহায্য করার সুযোগ পাই তাহলে আনন্দিত হব। আমি মনে করি সৃজনশীলতার অপরিসীম ক্ষমতা। জাতির চেতনাকে জাগ্রত করার জন্য এই সৃজনশীলতা অপরিহার্য। দীর্ঘদিন ধরেই ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতের মানুষরা মহাত্মা গান্ধীর আদর্শকে ছড়িয়ে দেওয়ার কাজে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়ে এসেছেন। কীভাবে এটা আরও বাড়ানো যায় তাই নিয়ে চিন্তা করতে হবে।’ মহাত্মা গান্ধীর আদর্শ প্রচার করার পাশাপাশি ভারতীয় পর্যটন শিল্পের জন্য তারকাদের কিছু করার অনুরোধ করেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং