BREAKING NEWS

২৯ শ্রাবণ  ১৪২৭  শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

শাবানা-আমিরকে ‘ইসলামিক উগ্রপন্থী’ বলে কটাক্ষ, নেটদুনিয়ায় বিতর্কের মুখে রঙ্গোলি

Published by: Bishakha Pal |    Posted: March 2, 2020 3:38 pm|    Updated: March 2, 2020 9:07 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রঙ্গোলি চান্দেল বরাবরই ঠোঁটকাটা। মাঝেমধ্যেই বলিউডের তাবড় সেলিব্রিটিদের তিনি এমন কোনও কথা বলেন যা নিয়ে তাঁদের অস্বস্তিতে পড়তে হয়। কখনও আবার আলটপকা মন্তব্য করার জন্য নেটদুনিয়ায় হাসির খোরাক হতে হয় রঙ্গোলিকে। এবারও বলিউডের একাধিক সেলেবকে নিয়ে বিতর্কে জড়ালেন রঙ্গোলি। অশালীন ভাষায় তিনি আক্রমণ করেছেন করণ জোহরকে। শাবানা আজমি, আমির খান ও জাভেদ আখতারকেও অসম্মান করেছেন। যৌনতা নিয়ে খোঁচা দিয়েছেন অক্ষয় ঘরনি টুইঙ্কল খান্নাকে।

সম্প্রতি করিনা কাপুর ফ্যান ক্লাবের তরফে একটি টুইট করা হয়। সেখানে লেখা ছিল, করিনা জানিয়েছেন, অভিনেত্রীরা এখন অনেক বেশি সাহসী হয়েছেন। বিদ্যা ও কঙ্গনা ভিন্ন পথে হেঁটে নতুন ধরনের চরিত্রে অভিনয় করছেন। এমন একটি টুইটের পর রঙ্গোলি তাঁকে ধন্যবাদ জানান। বলেন, যদিও ‘পাপা জো’ ও ‘মুভি মাফিয়া’দের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ভাল, তা সত্ত্বেও করিনা ভারতীয় সিনেমায় কঙ্গনার অবদান অস্বীকার করেননি। ‘মণিকর্ণিকা’র সময় কঙ্গনাকে তিনি সমর্থন করেছিলেন। ছবিটি যখন সবচেয়ে বেশি টাকা আয় করেছিল, তখনও কিন্তু এই ‘পাপা জো’ ও ‘মুভি মাফিয়া’রা চুপ ছিলেন। এরপর সরাসরি তোপ দাগের রঙ্গোলি। লেখেন, কঙ্গনা নাকি ‘বলিউড ইসলামিক উগ্রপন্থী’দের শিকার। ‘মণিকর্ণিকা’র মতো ছবি, যা এক হিন্দু শহিদের জীবন অবলম্বনে তৈরি, তা নিয়ে এইসব ‘বলিউড ইসলামিক উগ্রপন্থী’রা একটা শব্দও খরচ করেনি।

কিন্তু রঙ্গোলি কাজের ‘বলিউড ইসলামিক উগ্রপন্থী’ বললেন? তাঁদের নামও তিনি লিখেছেন টুইটাকে। শাবানা আজমি, জাভেদ আখতার ও আমির খান। ওই টুইটেই করণ জোহরকে ‘লিবারান্ডু’ বলেছেন তিনি। এও লিখেছেন ‘মণিকর্ণিকা’র পাশে না দাঁড়িয়ে তাঁরা ‘বোকা মেয়ে’ আলিয়ার ছবি ‘রাজি’কে নিয়ে অনেক কথা বলেছেন।

এখানেই শেষ নয়। অন্য এক বলিউড সেলিব্রিটিকেও নিশানা করেছেন রঙ্গোলি চান্দেল। তিনি টুইঙ্কল খান্না। রীতিমতো অশালীন ভাষায় অভিনেত্রীকে বিঁধেছেন তিনি। কিছুদিন আগে যখন দেশে এসেছিলেন মার্কিন প্রোসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মোতেরা স্টেডিয়ামে ট্রাম্পের নাম করতে গিয়ে ভুল উচ্চারণ করে বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ‘ডোনাল্ড’কে তিনি ‘ডোলান্ড’ বলেন। সোশ্যাল সাইটে এই নিয়ে হরেক করম মিম তৈরি হয়। সেই স্রোতে ভেসে টুইঙ্কল মন্তব্য করেন, ট্রাম্পের পৌরুষ কি সাধারণ পুরুষের থেকে বেশি? তাই কি ভারতীয়দের ‘নমস্তে’ বলে অভিবাদন জানালেন ট্রাম্প? এরপর আচমকাই রঙ্গোলি টুইঙ্কলকে অশালীন ইঙ্গিত করে টুইট করেন। টুইটারে তিনি লেখেন, টুইঙ্কলের নাকি পেনিস ও অণ্ডকোষের প্রতি অবসেশন রয়েছে। তাই তাঁর লেখায় এগুলো থাকে। এমনকী ডোনাল্ড ট্রাম্পের নামের মধ্যেও তিনি যৌনতা খুঁজে পেলেন। বোঝাই যাচ্ছে বিয়ের পর কয়েকটা বছর কেটে গিয়েছেন। সব জায়গাতেই কি তিনি এসব দেখতে পান? প্রশ্ন তোলেন রঙ্গোলি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement