BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

পাক ‘আত্মীয়’র সঙ্গে সম্পত্তি নিয়ে বিবাদে জড়ালেন নবাব সইফ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 21, 2017 10:40 am|    Updated: September 26, 2019 4:53 pm

Saif Ali Khan in property battle with Pakistani relatives

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শেষ হিট ছবি কবে দিয়েছেন। মনে করা একটু কষ্টকর ব্যাপার। তবে নবাব হিসেবেই বলিউডে তাঁর খ্যাতি। বেগম করিনা ও ছেলে তৈমুরকে নিয়ে ব্যক্তিগত সময়টা ভালই যাচ্ছিল। এর মধ্যেই ফের সম্পত্তি নিয়ে বিপাকে পড়লেন সইফ আলি খান। তাঁর নবাবিয়ানা নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিলেন ইয়াসের মিরজা নামের এক পাকিস্তানের বাসিন্দা। যাঁর দাবি, তিনি ভোপালের নবাব স্বর্গীয় হামিদুল্লা খানের আসল উত্তরসূরি তিনিই। তাই ভোপালের নবাব হওয়ার অধিকার একমাত্র তাঁরই আছে।

[ভ্রাতৃদ্বিতীয়ায় জওয়ান ভাইদের উদ্দেশ্যে বিশেষ বার্তা লতা মঙ্গেশকরের]

২৯ বছরের ইয়াসের পাকিস্তানে দাঁতের ডাক্তার। কিছুদিন আগেই এমার্জেন্সি পাসপোর্ট নিয়ে ভারতে এসেছেন। আর ভোপালের নবাবিয়ানা দাবি করেছেন। ইয়াসেরের কথায়, তাঁর ঠাকুমা রাবিয়া সুলতান স্বর্গীয় নবাবের কনিষ্ঠ কন্যা ছিলেন। তাই এ সম্পত্তির একমাত্র বৈধ উত্তরাধিকারী তিনিই। এই দাবি জানানোর অধিকার তিনি জব্বলপুর হাই কোর্টের কাছে চেয়েছেন। এই দাবি মিথ্যে বলে পালটা দাবি জানিয়েছেন শর্মিলা ঠাকুর ও সইফ আলি খান। তাঁদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ইয়াসের পাকিস্তানের নাগরিক। তাই প্রতিরক্ষা আইন ও শত্রু সম্পত্তি আইনে তাঁর এই সম্পত্তিতে কোনও বৈধতাই নেই। কোটি কোটি টাকার এই সম্পত্তি সইফের ঠাকুমা সাজিদা বেগমের। যাঁর একমাত্র উত্তরসূরি সইফ আলি খানই।

[যৌন হেনস্তার জন্য দায়ী মহিলারাই, টিসকা চোপড়ার মন্তব্যে বিতর্ক তুঙ্গে]

অক্টোবর মাসের ২৪ তারিখ এই মামলার শুনানি হবে। এক সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থার কাছে ইয়াসের দাবি করেন পাকিস্তানে থাকলেও তাঁর জন্ম ভোপালেও। খুব ছোটবেলায় তিনি মায়ের সঙ্গে পাকিস্তানে চলে গিয়েছিলেন। জন্মসূত্রে তাই তাঁর অধিকার অবশ্যই রয়েছে। পাক বাসিন্দার এ দাবি মানতে নারাজ নবাব পরিবার। বাকি সিদ্ধান্ত আদালতের উপরই ছেড়ে দিচ্ছেন শর্মিলা-পুত্র।

[আমিরের ‘দঙ্গল’ নিয়ে বিরূপ কথা, টুইটার থেকেই নির্বাসিত কেআরকে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে