BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘পদ্মাবতী’র পর এবার সলমনের ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’র মুক্তি ঘিরে সংশয়

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 20, 2017 12:46 pm|    Updated: September 18, 2019 3:15 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘পদ্মাবতী’র পর এবার ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’। হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের রোষে সলমন খানের নয়া সিনেমা। বিতর্ক এমনই যে সিনেমাটি আদৌ মুম্বইতে মুক্তি পাবে কি না, সে নিয়েও সংশয় তৈরি হল। মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনার (এমএনএস) ফিল্ম বিভাগের প্রধান অমেয় খোপকারের হুমকি, যশ রাজ ফিল্মস তাঁদের দাবি না মানলে, কোনওদিন মুম্বইতে কোনও সিনেমার শুটিং করতে দেবে না সেনা।

[নগ্ন শরীরে কম্বলের ওম, শীতের মরশুমে নেটদুনিয়ার পারদ চড়ালেন করিশ্মা]

কিন্তু কী দাবি এমএনএস-এর?

উগ্র হিন্দু সংগঠনটির দাবি, সলমন ও ক্যাটরিনার ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ নয়, মহারাষ্ট্রের সিনেমা হলগুলিতে প্রাইম টাইমে দেখাতে হবে মারাঠি সিনেমা ‘দেবা’। ইতিমধ্যেই রাজ্যের সব হল মালিককে চিঠি দিয়ে এই দাবির কথা জানানো হয়েছে। এমনকী যশ রাজ ফিল্মসকেও এই কথা জানানো হয়েছে। এরপরই সংগঠনটির তরফে কার্যত হুমকি দিয়ে জানানো হয়েছে, যশ রাজ সেনার দাবি মেনে ‘দেবা’র জন্য স্ক্রিন খালি না রাখলে ভবিষ্যতে মুম্বইতে তাদের কোনও সিনেমার শুটিং চলতে দেওয়া হবে না।

মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনার নেতা শালিনী ঠাকরে অবশ্য দাবি করেছেন, তাঁরা কাউকে হুমকি দেননি। কিন্তু যশ রাজ আসন্ন ২২ ডিসেম্বর অন্য কোনও সিনেমাকে মুক্তি পেতে দিতে চাইছে না। সেনার বক্তব্য, ‘হিন্দি সিনেমা যেভাবে মারাঠি-সহ অন্যান্য সিনেমাকে গ্রাস করছে, সেটার বিরোধী সেনা।’ শালিনীর দাবি, মুরলী নালাপ্পার ডেবিউ সিনেমা, যেখানে অভিনয় করেছেন অঙ্কুশ চৌধুরি, তেজস্বিনী পণ্ডিত, সেই সিনেমাটিকে অবশ্যই সসম্মানে মুক্তি পেতে দিতে হবে মুম্বইয়ের সবকটি নামজাদা হলে। ‘দেবা’র সঙ্গে টক্করে সলমনের ‘এক থা টাইগার’-এর সিক্যুয়েলের কী দশা হয়, সেটাই এখন দেখার।

[অক্ষয়ের ‘টয়লেট: এক প্রেম কথা’ অনুপ্রাণিত করেছে বিল গেটসকে, জানেন কীভাবে?]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement