BREAKING NEWS

১৪ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

হরিয়ানা জুড়ে হিংসা, এদিকে সিদ্ধার্থ মালহোত্রা কী টুইট করলেন জানেন?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 26, 2017 6:25 am|    Updated: October 3, 2019 2:53 pm

Sidharth Malhotra trolled while tweeting on RamRahim

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোশ্যাল সাইটে একদিকে যেমন সহজেই সেলেব্রিটিরা ভালবাসা পান তাঁর ফ্যানেদের কাছে, অন্যদিকে সেই সোশ্যাল সাইটে মন্তব্যের জেরে সেলেবরা জড়িয়ে পড়েন নানা বিতর্কে। নিজের ছবির প্রচার করতে গিয়ে এবার কিছুটা সেভাবেই বিপাকে পড়লেন অভিনেতা সিদ্ধার্থ মালহোত্রা। শুক্রবার মুক্তি পেয়েছেন তাঁর ছবি ‘আ জেন্টলম্যান’। দিল্লির ছেলে সিদ্ধার্থ পাঞ্জাবি। তাই শুক্রবার একদিকে যেমন ছবি মুক্তি নিয়ে চিন্তিত ছিলেন তিনি, অন্যদিকে চিন্তিত ছিলেন তাঁর রাজ্য নিয়েও। কারণ সেদিনই ছিল ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত স্বঘোষিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিম সিং-এর বহু প্রতীক্ষিত শুনানির দিন। আর সেই শুনানিকে ঘিরে এমনিতেই বেশ কয়েকদিন ধরে থমথমে পরিবেশ পাঞ্জাব ও হরিয়ানায়। দুটোকে মিলিয়ে টুইট করতে গিয়েই অভিনেতা ডেকে আনলেন বিপত্তি। আর সেই টুইটের জেরেই দিনভর সমালোচনার ঝড় সিদ্ধার্থকে ঘিরে। এখানেই শেষ নয়, সারাদিন সোশ্যাল সাইটে ট্রোল হলেন সিদ্ধার্থ।

[গণেশ বন্দনায় মেতেছে বলিউড, উৎসবের মেজাজে শচীনরাও]

শুক্রবার ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত স্বঘোষিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিম সিংকে দোষী সাব্যস্ত করল বিশেষ সিবিআই আদালত। আদালতের নির্দেশ প্রকাশ্যে আসতেই ধুন্ধুমার পরিস্থিতি সৃষ্টি হয় পাঞ্জাব ও হরিয়ানায়। কয়েক মুহূর্তের মধ্যেই বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ে হরিয়ানার বেশিরভাগ অঞ্চল। জায়গায় জায়গায় ধর্মগুরুর ভক্তদের সঙ্গে পুলিশের খণ্ডযুদ্ধ বাধে। দুই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় আগুন ধরিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা। মোতায়েন করা হয় সেনা। এখনও অবধি মৃতের সংখ্যা ৩০, আহত ২০০ জনেরও বেশি। কারফিউ জারি করা হয় হরিয়ানার ১১টি জেলা ও পাঞ্জাবের ৯টি জেলায়। যখন কার্যত নিস্তরঙ্গ হয়ে পড়েছে জনজীবন, সেইরকম অবস্থাতে হঠাৎই ভেসে আসে সিদ্ধার্থের টুইট। যেখানে তিনি হরিয়ানাবাসীকে সাবধানে থাকতে বলেন আর তাঁর ছবি দেখতে বলেন। সেখান থেকেই শুরু বিতর্ক। যেখানে মানুষের প্রাণসংশয় সেখানে কি করে সিনেমা দেখার কথা বলছেন অভিনেতা!

[OMG! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল আলিয়া ভাটের নগ্ন ছবি!]

সিদ্ধার্থের কাণ্ডজ্ঞানহীনতা নিয়ে সরব হয়ে ওঠে সোশ্যাল মিডিয়া। যেখানে বিপন্ন জনজীবন সেখানে নিজের ছবি নিয়েই ব্যস্ত বি-টাউনের স্টারেরা। সারাদিন ট্রোল হতে থাকেন সিদ্ধার্থ। তাঁকে নিয়ে নানা ব্যঙ্গাত্মক সমালোচনা ছড়িয়ে সোশ্যাল সাইটে। এরপর শুক্রবার রাতে আবারও সেই টুইটারেই সাফাই দেন অভিনেতা। লেখেন, সকালে তাঁর বার্তা নিয়ে যাঁরা নানা বক্তব্য প্রকাশ করছেন, তাঁদের জেনে রাখা দরকার, তিনি এই টুইটটি করেছিলেন রায়দানের আগে। আরও একটি টুইটে অভিনেতা পাঞ্জাব ও হরিয়ানাবাসীর জন্য প্রার্থনাও করেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে