১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মা ও ছেলের সম্পর্কের সমীকরণ দেখাবে ‘অব্যক্ত’

Published by: Bishakha Pal |    Posted: September 10, 2018 8:25 pm|    Updated: August 9, 2021 6:59 pm

Story of Abyakto is Mother-Son relationship

মা ও ছেলের সম্পর্কের জটিল সমীকরণে আবৃত ‘অব্যক্ত’। লিখছেন সোমনাথ লাহা

সম্পর্কের আবহকে ভিত্তি করে তৈরি ছবি বরাবরই দর্শক ও সমালোচক মহলে প্রশংসিত হয়েছে। জীবনে বহু ক্ষেত্রেই অনেক কথা না বলা হয়ে থেকে যায়। কোনও কোনও ক্ষেত্রে কিছু সম্পর্কেরও কোনও নাম হয় না। বলতে না পারা সেই সমস্ত কথা, নামহীন সম্পর্কের রেশ রয়ে যায় মনের গহনে। জীবনে পারস্পরিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে তাই তৈরি হয়ে যায় জটিলতার। সম্পর্কের মধে্য চলে আসে সূক্ষ্ম টানাপোড়েন। সম্পর্কের এহেন জটিল আবহে ঘেরা ‘মা ও ছেলের মর্মস্পর্শী কাহিনিকে কেন্দ্র করেই পরিচালক অর্জুন দত্তর ছবি ‘অব্যক্ত’।

এক অর্থে ভালবাসা, দুঃখ হতাশা, একাকীত্ব, অস্তিত্ব খুঁজে ফেরার মতো সম্পর্কের আবহগাথার প্রতিচ্ছবি ফুটে উঠেছে এই ছবির মধ্যে দিয়ে। এটি পরিচালকের প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্যের ছবি। এর আগে ‘মেড ফর ইচ আদার’ ও ‘দ্য সিক্সথ এলিমেন্ট’-এর মতো দু’টি শর্ট ফিল্ম তৈরি করেছেন অর্জুন। তাঁর এই দু’টি স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবিই দেশে ও বিদেশে বিভিন্ন চলচ্চিত্র উৎসবে রীতিমতো প্রশংসিত হয়েছে। প্রসঙ্গত, ‘দ্য সিক্সথ এলিমেন্ট’ ছবিটি কান চলচ্চিত্র উৎসবের শর্ট ফিল্ম কর্নারে মনোনীত হওয়ার পাশাপাশি নেটপ্যাক জুরি পুরস্কারের জন্য নামাঙ্কিত হয়েছিল।

রাই সুন্দরীর মুকুটে নতুন পালক! হলিউডি স্বীকৃতিতে উচ্ছ্বসিত ঐশ্বর্য ]

তবে নিজের প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্যের ছবিতে কাস্টিংয়ে বেশ চমক দিয়েছেন পরিচালক। ছবিতে মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন অর্পিতা চট্টোপাধ্যায়, আদিল হুলেন, অনুভব কাঞ্জিলাল, খেয়া চট্টোপাধ্যায় ও অনির্বাণ ঘোষ। প্রসঙ্গত, এই ছবির হাত ধরেই প্রথমবার বড়পর্দায় একসঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করতে চলেছেন অর্পিতা ও আদিল। এ ছাড়াও টলিউড পেতে চলেছে নতুন জুটি খেয়া ও অনুভবকে। ‘প্রজাপতি বিস্কুট’ খ্যাত খেয়া ইতিমধ্যেই নিজ অভিনয় গুণে দর্শক-মনে আলাদা জায়গা করে নিয়েছেন। অপর দিকে, সদ্য টলিউডের আঙিনায় পা রাখা অনুভব ইতিমধ্যেই ‘আবার বসন্ত বিলাপ’ ও ‘আমার ভয়’-এর মতো ছবিতে কাজ করেছেন। তৃণা ফিল্মসের ব্যানারে নির্মিত এই ছবির প্রযোজক তরুণ দাস। এই ছবির হাত ধরেই প্রথমবার প্রযোজনার আঙিনায় পা রাখছেন তাঁরা।

মা ও ছেলের সম্পর্কের টানাপোড়েনের এই কাহিনি আবর্তিত হয়েছে মধ্যবয়সি সাথি (অর্পিতা) ও তার পঁচিশ বছর বয়সি পুত্র ইন্দ্র (অনুভব)-কে কেন্দ্র করে। সময়ের বিভিন্ন পর্যায়ে (ছোটবেলা, কৈশোর ও যৌবনে পদার্পণ করা ছেলে) মায়ের সঙ্গে ছেলের সম্পর্কের সমীকরণের কাহিনিই প্রতিফলিত হয়েছে এই ছবির মধ্যে দিয়ে। সাথি ও কৌশিক (অনির্বাণ)-এর একমাত্র ছেলে ইন্দ্র ছোট থেকেই বিভিন্ন ব্যাখ্যাতীত ঘটনার মধ্যে দিয়ে বড় হওয়ার ফলে এমন এক যুবকে পরিণত হয় যা সে নিজেও বোধ হয় হতে চায়নি। মা, বাবা ছাড়া ইন্দ্রর জীবনে অনেকটা জায়গা জুড়ে রয়েছে তার বাবার বন্ধু রুদ্র (আদিল)। ইন্দ্রর খুব প্রিয় কাকু রুদ্র। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অতীত ও বর্তমানের বিভিন্ন পর্যায়ে এসে ইন্দ্রর সঙ্গে তার মা সাথি ও বাকি মানুষদের কোনও জটিল আবর্তে এসে দাঁড়ায় তাই নিয়েই এগিয়েছে এই ছবির কাহিনি।

ছবির কাহিনি ও চিত্রনাট্য লিখেছেন পরিচালক স্বয়ং। সংলাপ রচয়িতা আশীর্বাদ মৈত্র ও পরিচালক নিজে। ছবিতে অন্যান্য চরিত্রে রয়েছেন লিলি চক্রবর্তী, দেবযানী চট্টোপাধ্যায় ও অন্য শিল্পীরা। সংগীত পরিচালনায় সৌম্যঋত। সিনেমাটোগ্রাফার জয় সুপ্রতিম। সম্পাদনা সুজয় দত্তরায়।

আমার ছবি ব্যান করুন, বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে বিস্ফোরক টুইঙ্কল ]

নিজের এই ছবি প্রসঙ্গে পরিচালক অর্জুন দত্তর অভিমত, “মা ও ছেলের সম্পর্ককে কেন্দ্র করে এই ছবির গল্প। সম্পর্কের সূক্ষ্ম টানাপোড়েনের প্রতিচ্ছবি এখানে দেখতে পাবেন দর্শকরা। ছবির বিষয়ভাবনাটিকে প্রাসঙ্গিকতার সঙ্গেই তুলে ধরার চেষ্টা করেছি যাতে কারও বুঝতে কোনওরকম সমস্যা না হয়। আমার ধারণা এই ছবিটি দেখে দর্শকরা বেশ কিছু ক্ষেত্রে নিজেদের জীবনের সঙ্গে মিল খুঁজে পাবেন। অর্পিতাদি, আদিল স্যরের মতো অভিনেতা আমার ছবিতে কাজ করতে রাজি হয়েছেন এটা আমার কাছে একটা বড় প্রাপ্তি। অর্পিতাদি ছবিটি করার জন্য রাজি হওয়ার পাশাপাশি যেভাবে আমায় সহযোগিতা করেছেন তা বলে বোঝাতে পারব না। আশা করছি সম্পর্কের এই ছবিটি দর্শকদের মন ছুঁয়ে যাবে।”

তবে এখনই ছবির মুক্তি নিয়ে কথা বলতে নারাজ পরিচালক। তবে জানালেন, ছবিটিকে বিভিন্ন চলচ্চিত্র উৎসবে পাঠানোর ইচ্ছে রয়েছে তাঁর।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে