BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

অনুভবের সঙ্গে ‘সহবাসে’র সিদ্ধান্ত ইশার! ব্যাপারটা কী?

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 26, 2019 8:45 pm|    Updated: April 26, 2019 8:48 pm

An Images

শম্পালী মৌলিক: ‘সোয়েটার’-এর সাফল্যের রেশ কাটতে না কাটতেই নতুন ছবিতে সাইন করে ফেললেন ইশা সাহা। ছবির নাম ‘সহবাসে’। পরিচালনায় অঞ্জন কাঞ্জিলাল। অঞ্জন মূলত থিয়েটার জগতের ব্যক্তিত্ব। তাঁরই প্রথম ফিচার ফিল্ম হতে চলেছে এটি। পরিচালক আদতে কলকাতার মানুষ হলেও, বিগত ২৫ বছর ধরে তিনি দিল্লিবাসী। তবে নিজের প্রথম সিনেমার শুটিং করবেন কলকাতাতেই। ছবির প্রধান দুটি চরিত্রে রয়েছেন ইশা এবং অনুভব কাঞ্জিলাল। মোবাইলে কথা হল পরিচালকের সঙ্গে। তিনি জানালেন, ‘মে মাসে শুটিং শুরু। লিভ ইন রিলেশনশিপের গল্প। এই গল্পের নেপথ্যে রয়েছে আজকের নতুন প্রজন্ম। যারা অস্থির সময়ের শিকার। জব স্টেবিলিটি নেই, কারণ এখন সরকারি চাকরি কম মানুষই করে। যারা কাজ করছে, তারা এমএনসি বা ক্রিয়েটিভের কাজ করছে। কর্পোরেট ক্রিয়েটিভের একটা আনসার্টেনিটি আছে। সবকিছু মিলিয়ে এদের মধ্যে অদ্ভুত অস্থির মানসিকতা কাজ করে। এই বিষয়টা নিয়ে ‘সহবাসে’-র নিটোল গল্প।কাহিনির লেয়ারে দু’টো প্রজন্মের মানসিকতার তফাৎ আছে। মানে আগের জেনারেশন পরিবারের কথা ভাবত। বিয়ে করা দরকার বা স্টেবল হওয়া দরকার মনে করত। কিন্তু এখনকার জেনারেশন এমনটা বিশ্বাস করছে না। এটা একেবারে আজকের গল্প। চিত্রনাট্য, সংলাপ, পরিচালনা আমার। আর কাহিনি লিখেছেন সুমনা কাঞ্জিলাল। গানের লিরিক্সও আমার লেখা।’ একটানা বলে থামলেন অঞ্জন।

[ আরও পড়ুন: পরিচালকের মুকুটে নতুন পালক, প্রথম ছবির কাজ শেষ করলেন অপরাজিতা]

গানের সুর করেছেন সৌম্য ঋত। লিভ ইন কাপ্‌লের চরিত্রে অনুভব ও ইশা থাকলেও, অন্য গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে পাওয়া যাবে রাহুল, সায়নী ঘোষ, দেবলীনা দত্ত, শুভাশিস মুখোপাধ্যায়, বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী, তুলিকা বসু, প্রহ্লাদ সর্দারকে। একটি বিশেষ চরিত্রে অতিথি শিল্পী হিসেবে থাকবেন ব্রাত্য বসু। সিনেমাটোগ্রাফির দায়িত্বে মধুরা পালিত। চিফ এডি টুটুল পাল। কলকাতার অন্যতম সেরা কারিগরি টিম নিয়ে কাজ করতে চলেছেন অঞ্জন। তবে পরিচালকের কথা শুনেই বোঝা গেল কারিগরি চমক নয়, ভাল গল্প বলাই পরিচালকের লক্ষ্য। ইশা জানালেন, “এর আগে পর্যন্ত আমি যা যা করেছি, তার থেকে একদম আলাদা ধরনের চরিত্র এটা। আমার ভাল লেগেছে। আর প্রধান আকর্ষণ ছিল গল্পটা। পরিচালকের সঙ্গে কথা বলেও আমি সেই আস্থাটা পাই। এবং অবশ্যই বলব, সৌম্য-শুভর কথা, যারা এ ছবির লাইন প্রোডিউসার। ওদের সঙ্গে আমি ‘সোয়েটার’-এ কাজ করেছি সদ্য। ওদের তরফ থেকেই আমার কাছে অফারটা আসে প্রথমে।”

[ আরও পড়ুন: অটোয় চড়ে গেলেন কোথায় নবাবনন্দিনী? জুহুতে সারাকে দেখে অবাক অনুরাগীরা]

ইশা যেমন এর আগে ‘প্রজাপতি বিস্কুট’, ‘গুপ্তধনের সন্ধানে’, ‘দুর্গেশগড়ের গুপ্তধন’ বা ‘সোয়েটার’-এর মতো ছবিতে কাজ করেছেন, প্রতিভাবান অভিনেতা অনুভবও ‘অব্যক্ত’ সহ আরও দুটি ছবিতে লিড করেছেন। এটি তাঁর চতুর্থ ছবি। তো এই অনুভব আর ইশাকে প্রধান চরিত্রে বেছে নেওয়া কেন? জানতে চাইলে অঞ্জন বললেন, ‘বাবা-ছেলের সম্পর্ক বলে অনুভব সুযোগ পেয়েছে এমনটা ভাবার কোনও কারণ নেই। বরং অনুভবের মধ্যেকার ইনোসেন্স, ফান লাভিং অ্যাটিটিউডের জন্যই ওকে নেওয়া। আর ইশার মুখের মধ্যে, অভিনয়ের মধ্যে একটা অদ্ভুত সহমর্মিতা আছে। যার ফলে দর্শকের সঙ্গে কানেকশন তৈরি হয়। দ্বিতীয়ত, এই ধরনের রোলে আমি যদি বিখ্যাত কাউকে নিতাম, বিশ্বাসযোগ্যতা কতটা তৈরি হত সন্দেহ আছে, নর্মালি দর্শক যখন একটা সিনেমা বা থিয়েটার দেখতে শুরু করে, পাঁচ মিনিটের মধ্যে চরিত্রগুলোর সঙ্গে একাত্ম হতে শুরু করে। যেটা ইশা আর অনুভবকে দেখলেও হবে। পাশের বাড়ির ছেলে বা মেয়ের ইমেজটা ওদের সঙ্গে যায়।’ ‘মোজোটেল এন্টারটেনমেন্টস’ প্রযোজিত এই ছবির দু’টি গানের ইতিমধ্যেই রেকর্ডিং হয়ে গিয়েছে। যে দু’টি গেয়েছেন শুভমিতা এবং রূপঙ্কর। রূপঙ্করের সঙ্গে গানে কণ্ঠ দিয়েছেন শাওনি মজুমদার। একটি গান গাইছেন দুর্নিবার। সোমবার শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জানা গেল। আর একটি গানের বিষয়ে শানের সঙ্গে কথা চলছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement