৭  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

২৫ জুলাইয়ের বনধ প্রত্যাহার করল ইম্পা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 23, 2017 11:18 am|    Updated: July 23, 2017 11:18 am

EIMPA called off strike on 25th july

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কয়েকদিন আগেই এসকে মুভিজের উপর থেকে ব্যান তুলে নেওয়ার দাবিতে ২৫ জুলাই একদিনের প্রতীকী বনধ ডেকেছিল দ্য ইস্টার্ন ইন্ডিয়া মোশন পিকচার্স অ্যাসোসিয়েশনসের (EIMPA) প্রযোজক বিভাগ। শনিবার আচমকাই সেই বন্ধ প্রত্যাহার করে নিল ইম্পা। কিছুদিন আগেই সরাসরি সংঘাতে জড়িয়ে পড়েছিল ফেডারেশন অফ সিনে টেকনিশিয়ানস অ্যান্ড ওয়ার্কারস অফ ইস্টার্ন ইন্ডিয়া (FCTWEI) এবং দ্য ইস্টার্ন ইন্ডিয়া মোশন পিকচার্স অ্যাসোসিয়েশনস (EIMPA)। নিয়ম লঙ্ঘনের দায়ে প্রযোজনা সংস্থা এসকে মুভিজকে ব্যান করেছিল সিনে ফেডারেশন। এই ব্যানকে বেআইনি আখ্যা দিয়ে তারই প্রতিবাদে একদিনের বনধ ডেকেছিল ইম্পা।

[পুজোয় নতুন অভিযানে কাকাবাবু ও সন্তু]

বিদেশে শুটিং করতে হলে কলকাতা থেকে সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে ১৯ জন টেকনিশিয়ানকে। এই নিয়ম লঙ্ঘনের জন্য বেশ কিছুদিন ধরেই প্রযোজনা সংস্থা এসকে মুভিজের সঙ্গে সংঘাত বাধে সিনে ফেডারেশনের। বিদেশে গিয়েও ফেডারেশনের আপত্তি থাকায় শুটিং না করেই দেশে ফেরে এসকে মুভিজের নতুন ছবি ‘চালবাজ’-এর গোটা টিম। যার ফলে প্রায় এক কোটি টাকা ক্ষতির মুখে পড়তে হয় এই প্রযোজনা সংস্থাকে। ফেডারেশনের তরফ থেকে ব্যান করা হয়েছে এই প্রযোজনা সংস্থাকে। ফলে বন্ধ হয়ে যায় তাঁদের সমস্ত সিনেমার শুটিং। তারপর এসকে মুভিজের পাশে দাঁড়ায় দ্য ইস্টার্ন ইন্ডিয়া মোশন পিকচার্স অ্যাসোসিয়েশনস (EIMPA)। তাদের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার দাবি জানিয়ে ফেডারেশনকে নোটিস পাঠায় ইমপা। শনিবারের মধ্যে এই ব্যান তুলে নেওয়ার নির্দেশ জারি করা হয় ওই নোটিসে। কিন্তু সেকথা কানেই তোলেনি সিনে ফেডারেশন। তারপর এক সাংবাদিক বৈঠক ডাকা হয় ইম্পার তরফ থেকে। আর সেই সাংবাদিক বৈঠকে ডিরেক্টর গিল্ডের সভাপতি অশোক বিশ্বনাথন, সাধারণ সম্পাদক বিমল দে ও ইম্পার প্রযোজক বিভাগের সদস্যরা মিলে সিদ্ধান্ত নেন, সিনে ফেডারেশনের এহেন দাদাগিরি আর মুখ বুজে সহ্য করবেন না তাঁরা। তাই ফেডারেশনের বিরুদ্ধে একদিনের বনধের ডাক দেয় ইমপা। ২৫ জুলাই ইন্ডাস্ট্রির সব পরিচালক প্রযোজকদের সমস্ত শুটিং বন্ধ রাখার আর্জি জানান হয়। যদিও বেশিরভাগ পরিচালক প্রযোজকই কাজ বন্ধ করার এই সিদ্ধান্তকে মেনে নেননি।

[মেলবোর্ন চলচ্চিত্র উৎসব কেন ঐশ্বর্যর জন্য স্পেশ্যাল হতে চলেছে জানেন?]

শনিবার হঠাৎই ইম্পার তরফ থেকে জানানো হয়, বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস যে সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন তাঁকে সম্মান জানিয়ে বর্তমান ক্রাইসিসের কথা মাথায় রেখেই শনিবার জরুরি বেঠকে বনধ প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেন ইম্পার প্রযোজক বিভাগের চেয়ারম্যান কৃষ্ণ দাগা। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ইম্পার প্রেসিডেন্ট শ্রীকান্ত মোহতা, ভাইস প্রেসিডেন্ট পিয়া সেনগুপ্ত ও ডেপুটি চেয়ারম্যান নীতেশ শর্মা।

[এই ২৭টি দৃশ্যই সেন্সর বাদ দিয়েছে ‘লিপস্টিক আন্ডার মাই বুরখা’ থেকে]

বনধ প্রত্যাহারের এই সিদ্ধান্তে হতচকিত এসকে মুভিজের কর্ণধার হিমাংশু ধানুকা। টুইটে তাঁর প্রতিক্রিয়া জানান তিনি। যদিও কাজ বন্ধ করার পক্ষপাতি নন হিমাংশু। তবুও প্রযোজকদের না জানিয়েই ইম্পার প্রযোজক বিভাগ কীভাবে বনধ প্রত্যাহারের এই সিদ্ধান্ত নিল, তাতেই অবাক তিনি। মাননীয় মন্ত্রী তাঁর প্রতি ন্যায় বিচার করবেন এমনটাই আশা প্রযোজক হিমাংশু ধানুকার।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে