Advertisement
Advertisement
Sahitya Akademi

‘তুইও একদিন পাবি’, সত্যি হল নবনীতা দেবসেনের ভবিষ্যদ্বাণী! আত্মহারা দীপান্বিতা

ছোটদের মন ভালো করা উপন্যাস লিখে ২০২৪ সালে বাল সাহিত্য পুরস্কার জিতেছেন দীপান্বিতা রায়।

Sahitya Akademi Bal Sahitya Puraskar: Winner Dipanwita Roy reminds Nabaneeta Dev Sen's prediction on her award winning
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:June 15, 2024 9:01 pm
  • Updated:June 15, 2024 9:42 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুরস্কার তো শুধুই কাজের স্বীকৃতি নয়। পুরস্কার আরও অনেক কিছু। হয়ত সেই অনেকের মধ্যে একটা হল স্মৃতি। পুরস্কার কি স্মৃতিও ফিরিয়ে দেয়? অবশ্যই দেয়। নইলে সাহিত্য অকাদেমির বাল সাহিত্য পুরস্কার প্রাপ্তির খবর পেয়ে কেন সেই পাঁচ বছর আগের স্মৃতি জেগে উঠবে মনের গভীর অতল থেকে? কেন মনে পড়ে যাবে ‘ফ্রেন্ড, ফিলোজফার, গাইড’সম নবনীতা দেবসেনের ভবিষ্যদ্বাণী? যাঁর অমোঘ উচ্চারণ ছিল, ”তুইও একদিন এই পুরস্কার পাবি, আমি বলছি।” ছোটদের উপন্যাস লিখে ২০২৪ সালের বাল সাহিত্য পুরস্কার পেয়েছেন দীপান্বিতা রায়। ‘সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল‘-এ একান্ত আলাপে সেই স্মৃতির কথাই বললেন সদ্য পুরস্কারজয়ী শিশু সাহিত্যিক।

সাহিত্য অকাদেমির তরফে পুরস্কার প্রাপ্তির ঘোষণা।

ছোটদের জন্য লিখে তাদের মন পাওয়া সহজ নয় মোটেও। যতই তাদের কাছে টেনে, ভালোবেসে গল্প, ছড়া লিখুন না কেন, শিশু সাহিত্যিকদের কাছে এ এক বড় চ্যালেঞ্জ। তার উপর তিনি লিখেছেন আস্ত এক উপন্যাস (Novel) – ‘মহীদাদুর অ্যান্টিডোট’। আর সেটাই পুরস্কার পাওয়ার জন্য নির্বাচিত হল। ২০২৪ সালের সাহিত্য অকাদেমির বাল সাহিত্য পুরস্কার (Sahitya Akademi Bal Sahitya Purskar) পেল বাংলা ভাষার এই উপন্যাস। লেখিকা দীপান্বিতা রায় মূলত সাংবাদিক। সংবাদ জগতে পা রাখার পর তাঁর নিজস্ব লেখালেখির জগৎ তৈরি। ‘সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল‘-এর সঙ্গে কথোপকথনে এসব কথাই বলছিলেন তিনি। ভাগ করে নিলেন সুখবর পাওয়ার সেই আনন্দময় মুহূর্ত।

Advertisement

[আরও পড়ুন: তীব্র যন্ত্রণায় কাতর, গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে নীতীশ কুমার

দীপান্বিতা জানান, তিনি সংবাদমাধ্যমের (Media) কাজে অত্যন্ত ব্যস্ত ছিলেন। সেইসময়ই ফোন আসেন সাহিত্য অকাদেমির তরফে। জানানো হয়, তিনি এবছর বাল সাহিত্য পুরস্কার পাচ্ছেন ‘মহীদাদুর অ্যান্টিডোট’-এর জন্য। নিজের শ্রবণেন্দ্রিয়কেই প্রথমে বিশ্বাস করতে পারেননি দীপান্বিতা। ফের প্রশ্ন করেন, ”কী বললেন? আরেকবার বলবেন?” শুনতে পান একই কথা, তিনি পুরস্কার জিতেছেন। এর পর আর খুশির অন্ত ছিল না। প্রথমেই তিনি নিজের আপনজনদের সঙ্গে ভাগ করে নেন সুখবর। আর প্রথম অনুভূতির কথা বলতে গিয়ে স্মৃতির পাতা থেকে তুলে আনেন নবনীতা দেবসেনের সেই ভবিষ্যদ্বাণী। দীপান্বিতা জানান, ”খুব আনন্দ হল এই ভেবে যে নবনীতাদি যে বছর এই পুরস্কার পেলেন, তখন তিনি অনেকটাই অসুস্থ। ক্যানসার ধরা পড়েছে। তিনি বলেছিলেন, তুইও একদিন এই পুরস্কার পাবি। তখন হয়ত আমি থাকব না। কিন্তু পাবিই। আজ তাঁর কথা ভেবে আনন্দ হচ্ছে।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: দুই নারী! বাল সাহিত্য অকাদেমি পেলেন দীপান্বিতা রায়, যুব অকাদেমি কবি সুতপা চক্রবর্তীর]

নবনীতা দেবসেনের (Nabaneeta Dev Sen)সাহিত্য জীবনের অনেকটা জুড়ে ছিল শিশু সাহিত্য রচনা। তবে একেবারে শেষ প্রান্তে দাঁড়িয়ে তিনি বাল সাহিত্য পুরস্কার পেয়েছিলেন। সেটা ২০১৯ সাল। সে বছরই নভেম্বর মাসে প্রয়াত হন একাশি বছরের সাহিত্যিক। পাঁচ বছর পর তাঁরই স্নেহধন্যা দীপান্বিতার এই পুরস্কারজয় যেন অনেকটা নবনীতারও জিতে যাওয়া! চোখ বুজলেই দীপান্বিতা দেখতে পান, একাশির ‘তরুণী’র সদাহাস্যময় মুখ।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ