BREAKING NEWS

১৫ ফাল্গুন  ১৪২৭  রবিবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

পথ চলা শুরু ঊষা গঙ্গোপাধ্যায় মঞ্চের, পিছিয়ে পড়া শিল্পী আর নতুন প্রতিভার জন্ম দেওয়াই লক্ষ্য

Published by: Sulaya Singha |    Posted: December 20, 2020 3:06 pm|    Updated: December 20, 2020 3:06 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি নেই। কিন্তু তাঁর অভিনয়ের মধ্যে দিয়েই তিনি অমর। প্রয়াত নাট্যব্যক্তিত্ব ঊষা গঙ্গোপাধ্যায়কে উৎসর্গ করে তাই নির্মিত হল ঊষা গঙ্গোপাধ্যায় মঞ্চ। যার শুভ উদ্বোধন হয় শনিবার। দক্ষিণ কলকাতার প্রিন্স আনোয়ার শাহ রোডের অত্যাধুনিক, সুসজ্জিত নতুন স্টুডিওর উদ্বোধনে হাজির ছিলেন রঙ্গকর্মীর নতুন কার্যনির্বাহী দলের সদস্য হীরকেন্দু গঙ্গোপাধ্যায়, তৃপ্তি মিত্র, অনিরুদ্ধ সরকার-সহ অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা।

শুধু বাংলা নয়, ১৯৭০ ও ‘৮০-র দশকে কলকাতায় বহু হিন্দি থিয়েটারে অভিনয় করে জনপ্রিয়তার শিখর ছুঁয়েছিলেন কিংবদন্তি শিল্পী। ১৯৭৬ সালে রঙ্গকর্মী থিয়েটারের প্রতিষ্ঠা ছিল তাঁর অন্যতম সাফল্য। চলতি বছর এপ্রিলে সেই ঊষা গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রয়াণে থিয়েটার জগতে বিরাট শূন্যতার সৃষ্টি হয়। আকস্মিকভাবে চিরবিদায় নেন রঙ্গকর্মীর প্রধান কার্যনির্বাহী প্রশাসক রাজেশ পাণ্ডেও। ঊষা গঙ্গোপাধ্যায়ের স্মৃতিতেই এবার তৈরি হল মঞ্চ।  

[আরও পড়ুন: ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডে সেরা ওয়েব সিরিজ ‘পাতাললোক’, একাধিক বিভাগে পুরস্কৃত ‘পঞ্চায়েত’ও]

কেমন দেখতে হল নব নির্মিত মঞ্চ? স্টুডিও থিয়েটারের নকশা এবং রূপদানের দায়িত্বে ছিলেন খড়গপুর আইআইটির স্থপতি অমিতাভ ঘোষ। ভাবনায় অনিরুদ্ধ সরকার। ২০’x১৮’ স্থানজুড়ে পারফর্ম করা যাবে এই থিয়েটারে। মঞ্চের চারপাশে থাকছে অত্যাধুনিক সাউন্ড সিস্টেম। পাশাপাশি মঞ্চে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের অভিনয়কে আরও জীবন্ত করে তুলতে, বাস্তবের ছোঁয়া দিতে ৫০টি লাইট প্রোজেকশনের বন্দোবস্তও করা হয়েছে। একসঙ্গে ৭০ জন দর্শক গ্যালারিতে বসে নাটক দেখতে পারবেন। তবে শুধু স্টুডিও থিয়েটারই নয়, একইসঙ্গে এখানে থাকছে সুসজ্জিত লাইব্রেরি, পুরুষ ও মহিলা শিল্পীদের জন্য পৃথক গ্রিন রুম, ফটোশুটের ব্যাকড্রপস, রিফ্রেশমেন্টের জন্য আর (‘R’) ক্যাফে-সহ ভালভাবে সময় কাটানোর আরও নানা ব্যবস্থা।

ঊষা গঙ্গোপাধ্যায় ও রাজেশ পাণ্ডের অনুপস্থিতিতে কীভাবে রঙ্গকর্মী এগোবে, তা নিয়ে শনিবার আলোচনা করেন স্টুডিওর নবনির্মিত কার্যনির্বাহী দলের সদস্যরা। ভবিষ্যতে এখানে থিয়েটার এবং অভিনয় ছাড়াও সংগীত, নৃত্য, যোগব্যায়াম-সহ বিভিন্ন ধরনের সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করা হতে পারে। একইসঙ্গে গ্রাম তথা শহরতলি থেকে আগত অভিনয়ে আগ্রহী ব্যক্তি এবং গোষ্ঠীগুলিকে প্রচারের আলোয় নিয়ে আসারও চেষ্টা করবেন কার্যনির্বাহী দলের সদস্যরা। ঊষা গঙ্গোপাধ্যায়ের মঞ্চ থেকেই জন্ম নেবে নতুন প্রতিভা। এমনটাই পরিকল্পনা তাঁদের। 

[আরও পড়ুন: রিমেকের মোড়ক ছেড়ে টানটান রহস্যে জমজমাট ওয়েব সিরিজ ‘ব্ল্যাক উইডোজ’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement