BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অভিনেতাদের বুদ্ধি কম, বিজেপি নেতার মন্তব্যে ক্ষিপ্ত ফারহান

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 23, 2017 9:18 am|    Updated: October 23, 2017 9:24 am

Farhan Akhtar dares BJP leader for trifling his IQ

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘মার্শাল’ বিতর্কে এবার নয়া মোড়। বেশিরভাগ অভিনেতার বুদ্ধসুদ্ধি কম। বিজেপি  নেতার এহেন মন্তব্যে ক্ষিপ্ত অভিনেতা ফারহান আখতার। কড়া জবাব তো দিয়েইছেন। টুইটারে এ নিয়ে বেশ একপ্রস্থ কথা চালাচালিও হল।

বিজ্ঞাপনী ভিডিওতেই উষ্ণতার পারদ চড়ালেন বিপাশা-করণ ]

দক্ষিণী তারকা বিজয়ের ছবি ‘মার্শা’ল বেশ কয়েকদিন ধরেই খবরের শিরোনামে। ছবিতে মোদি সরকারের জিএসটি, ডিজিটাল উদ্যোগ নিয়ে কিছু সমালোচনা ছিল। কিন্তু সরকারপক্ষ কোনও গোলোযোগ সইতে পারে না। তাই সেন্সরের পরও এ নিয়ে বিস্তর গোলোযোগ হাঙ্গামা শুরু হয়। শেষমেশ জিএসটি-র প্রসঙ্গ বাদই দিয়ে দিতে হয় ছবি থেকে। এ নিয়েই মন্তব্য করতে গিয়ে এক সর্বভারতীয় টিভি চ্যানেলে বিজেপি মুখপাত্র জিভিএল নরশিমা রাও বলেন, “আমাদের দেশের বেশিরভাগ অভিনেতাদেরই বুদ্ধি কম। সাধারণ বিষয়েও জ্ঞান কম।” এ কথা শুনেই বেজায় চটে যান ফারহান আখতার। প্রশ্ন তোলেন, এরকম মন্তব্য করার সাহস তিনি পেলেন কোথা থেকে? সিনে ইন্ডাস্ট্রির বাকিদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে জানান, নেতারা তাঁদের সম্পর্কে ঠিক কীরূপ মনোভাব পোষণ করেন।

এদিকে ফারহানের প্রত্যাঘাতের পরও দমেননি নরশিমা। পালটা জবাব দিয়ে জানিয়েছেন, এটা সাহসের প্রশ্ন নয়, সমালোচনা। এবং তা সহিষ্ণুতার সঙ্গে মেনে নিতেই ফারহানকে অনুরোধ করেন তিনি। এক নেটিজেন আবার ফারহানকে বলেছেন, বিজেপি মুখপাত্র বেশিরভাগ অভিনেতার কথা বলেছেন। সকলের দিকে তো আঙুল তুলেননি। খামোখা ফারহান মুখ খুলে নিজেকেই হীনবুদ্ধি প্রমাণ করছেন।

যদিও ‘মার্শাল’ ইস্যু এত সহজে ফুরোচ্ছে না। খোদ সরকার যে কতটা সমালোচনা নিতে অপারগ, তা প্রমাণ করতে হাতেগরম নমুনা এই ঘটনা। তাই এটিকে সামনে রেখেই মোদি সরকারকে বিঁধতে শুরু করেছেন রাহুল গান্ধীরা।

OMG! এই কারণেই ঐশ্বর্য-সলমন জুটির বিচ্ছেদ হয়েছিল? ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে