BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাড়ছে জটিলতা, রাজস্থানের পর এবার গুজরাটেও নিষিদ্ধ ‘পদ্মাবত’

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 12, 2018 12:09 pm|    Updated: January 12, 2018 2:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যত দিন যাচ্ছে, বাড়ছে সংখ্যাটা। আগামী ২৫ জানুয়ারি নাম বদলে মুক্তি পেতে চলেছে সঞ্জয় লীলা বনশালির ড্রিম প্রজেক্ট ‘পদ্মাবত’। কিন্তু মুক্তির সপ্তাহ দুয়েক আগে জানা যাচ্ছে চার রাজ্যে মুক্তি পাবে না এই ছবি। রাজস্থান, হিমাচল প্রদেশের পর এবার গুজরাট ও মধ্যপ্রদেশেও নিষিদ্ধ হতে চলেছে ইতিহাসের প্রেক্ষাপটে তৈরি এই ছবি।

পদ্মাবতী ওরফে ‘পদ্মাবত‘ নিয়ে প্রথম থেকেই আপত্তি দেখিয়েছিল রাজস্থানের হিন্দু সংগঠনগুলি। ছবির নাম বদল থেকে বিভিন্ন দৃশ্যে পরিবর্তন, অনেকরকম চেষ্টা করেও তাদের ক্ষোভ কমানো যায়নি। তাই শেষমেশ সে রাজ্যে এই ছবি নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তই নেয় সরকার। একই পথে হাঁটে হিমাচল প্রদেশও। আর শুক্রবার গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপানি সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে জানিয়ে দিলেন, রাজ্যে শান্তি বজায় রাখতে নিষিদ্ধ করা হচ্ছে দীপিকা-রণবীর অভিনীত ‘পদ্মাবত’। একইসঙ্গে শোনা যাচ্ছে, মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীও একই সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন।

[OMG! দ্রাবিড়কে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে নগ্ন হলেন পুনম]

ছবির শুটিংয়ের শুরু থেকেই রাজপুত কর্ণি সেনা ছবির প্রতিবাদ করে আসছে। বলিউডের বিগ বাজেটের ছবিতে রানি পদ্মিনীর ইতিহাসকে বিকৃত করা হয়েছে। এই দাবিতেই সরব হয়েছিল কর্ণি সেনা। সেই প্রতিবাদের আগুনই ছড়িয়ে পড়ে দেশ জুড়ে। পরিচলকের মাথা কাটা ও দীপিকা পাড়ুকোনের নাক কাটার হুমকি দেওয়া হয়। এতেও থেমে থাকেনি ওই সংগঠন। ছবি মুক্তি বন্ধ করতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থও হয় তারা। সুপ্রিম কোর্ট ছবির দায়িত্ব দেয় সিবিএফসি-র হাতে। বিচার বিবেচনা করে ঐতিহাসিকদের একটি বিশেষ বেঞ্চে প্রথমে ছবিটি দেখানো হয়। ছবি দেখার পর বেশ কিছু জায়গায় পরিমার্জন, পরিবর্তন ও সংশোধনের নির্দেশ দেয় বেঞ্চ। সেই মতো পদ্মাবতী হয় পদ্মাবত। কিন্তু তাতেও যে বিক্ষোভ থামেনি। ফলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে জানিয়ে দেন, সে রাজ্যে ছবিটি মুক্তি পাবে না। যদিও কর্ণি সেনা গোটা দেশেই ছবির মুক্তি রুখতে চাইছে। হিন্দু সংগঠনের কাছে মাথা নত করে হিমাচল সরকারও। সংগঠনগুলির লাগাতার হুমকির পর জানিয়ে দেওয়া হয় সেখানেও নিষিদ্ধ ছবি। এবার একই ছবি ধরা পড়ল গুজরাটে। এদিকে ছবি নিষিদ্ধ করার ইঙ্গিত দিয়ে রাখলেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানও।

এর আগে ছবি মুক্তির প্রতিবাদে শিবরাজ সিং চৌহানের বাড়ি ঘেরাও করেছিল বিক্ষোভ দেখায় বিভিন্ন ক্ষত্রিয় সংগঠন। চাপের মুখে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, সে রাজ্যে নিষিদ্ধ করা হবে পদ্মাবত। রানি পদ্মিনীকে ‘রাষ্ট্রমাতা’ সম্বোধন করে চৌহান বলেছিলেন, যে ছবিতে রানিকে অসম্মান করা হয়েছে, তার মুক্তি রুখে দেওয়া হবে। এদিনও সাংবাদিকদের তিনি জানান, আগে যা বলা হয়েছিল, সেটাই হবে। এদিকে শুক্রবারই মুম্বইয়ের সেন্সর বোর্ডের অফিস ঘেরা করেছে কর্ণি সেনা বলে খবর।

[রামুর হাত ধরে এবার বলিউডে পা রাখছেন আরও এক বিখ্যাত পর্নস্টার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement