৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo দিল্লি ২০২০ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুস্থ হয়ে উঠছেন শাবানা আজমি, জানালেন স্বামী জাভেদ আখতার। পাশাপাশি বৃহস্পতিবার অর্থাৎ আজই তাঁকে জেনারেল রুমে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথাও জানিয়েছেন তিনি।

বুধবার খ্যাতনামা জাভেদ টুইট করেছেন, “আমাদের পরিবারের পক্ষ থেকে প্রতিটি বন্ধু এবং শুভানুধ্যায়ীকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। শাবানার জন্য তাদের উদ্বেগ, তাঁদের প্রার্থনা এবং শুভেচ্ছা বার্তা পাঠানোর জন্য। তাঁদের সবাইকে জানাতে চাই যে শাবানা সুস্থ হয়ে উঠছেন এবং সম্ভবত আগামীকালই জেনারেল রুমে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে ওঁকে।” 

সোমবারই শাবানার শারীরিক অবস্থার উন্নতির কথা জানিয়েছিলেন জাভেদ আখতার। অভিনেত্রীর স্বামী গীতিকার জাভেদ বলেছিলেন, “এখনও আইসিইউতেই রাখা হয়েছে শাবানাকে। কিন্তু চিকিৎসকরা জানিয়েছেন ভয়ের কোনও কারণ নেই। তাঁর সমস্ত রিপোর্ট ইতিবাচক।” সোমবার শাবানার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন প্রযোজক বনি কাপুরও। কিন্তু তিনিও আইসিইউতে ঢুকতে পারেননি। বেরিয়ে এসে সংবাদ মাধ্যেমর উদ্দেশে জানিয়েছেন, জাভেদ আখতার, শাবানার ভাই বাবা আজমি ও বৌদি তানভি আজমি ছাড়া কাউকেই আইসিউইতে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। এছাড়াও অভিনেত্রীর শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিতে কোকিলাবেন হাসপাতালে পৌঁছেছিলেন ফারহান আখতার, জোয়া আখতার, অনিল কাপুর, তাবু, হবু বউমা শিবানী দান্দেকর থেকে জাভেদ আখতারের প্রাক্তন স্ত্রীও।

[আরও পড়ুন: ‘ওঁকেও নির্ভয়ার ধর্ষকদের সঙ্গে জেলে রাখা হোক’, আইনজীবী ইন্দিরাকে কদর্য মন্তব্য কঙ্গনার ]

প্রসঙ্গত গত শনিবার, মুম্বই-পুণে একপ্রেসওয়েতে ভয়াবহ দুর্ঘটনার জেরে গুরুতর আহত হয়েছিলেন শাবানা আজমি। তৎক্ষণাৎ মুম্বইয়ের এমজিএম হাসপাতালে ভরতি করা হয় তাঁকে। কিন্তু ঝুঁকি না নিয়ে সেই রাতেই আন্ধেরির কোকিলাবেন ধীরুভাই আম্বানী হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় অভিনেত্রীকে। এরপর শাবানার গাড়িচালকের বিরুদ্ধেও থানায় দায়ের হয় এফআইআর। শাবনা আজমীর দ্রুত আরোগ্য কামনা করে টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কেজরিওয়াল, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ একাধিক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। তবে এমন পরিস্থিতিতেও গেরুয়া সমর্থকদের নিশানায় পড়েছিলেন শাবানা আজমি। “হিন্দুবিদ্বেষী, যত তাড়াতাড়ি নরকে যায়, ততই মঙ্গল! দেশদ্রোহী শাবানা আজমি তাঁর অপকর্মের ফল হাতেনাতে পেয়েছে…” সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেয়ে গিয়েছিল এমন মন্তব্য।

[আরও পড়ুন: অনুপমকে ‘ভাঁড়’ বলে তোপ নাসিরুদ্দিনের, পালটা জবাব দিলেন অভিনেতা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং