BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘পদ্মাবত’ মুক্তি রুখতে বেপরোয়া কর্ণি সেনা, ভারত বনধের ডাক

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 21, 2018 4:08 am|    Updated: January 21, 2018 4:08 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্ট সবুজ সংকেত দেওয়ার পর পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালি হয়তো ভেবেছিলেন, জট কাটিয়ে নির্বিঘ্নেই মুক্তি পাবে ‘পদ্মাবত‘। কিন্তু নাহ..। তেমনটা হচ্ছে না। ‘পদ্মাবত’ ঘিরে উত্তপ্ত পরিবেশ ঠান্ডা হওয়ার নাম গন্ধ নেই। কারণ কর্ণি সেনা এবার ছবি মুক্তির প্রতিবাদে ২৫ জানুয়ারি ভারত বনধের ডাক দিল।

[বহু বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে মুক্তি আসন্ন, প্রকাশ্যে ‘পদ্মাবত’-এর নয়া ঝলক]

আগামী বৃহস্পতিবারই হিন্দি, তামিল ও তেলুগু ভাষায় দেশ জুড়ে মুক্তি পাবে বনশালির ড্রিম প্রোজেক্ট। ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটে তৈরি যে ছবিকে ঘিরে গত কয়েক মাস ধরে চলছে লাগাতার বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ। রাজপুত রানি পদ্মীনির ইতিহাসকে বিকৃতি করা হয়েছে এই ছবিতে। এই দাবি তুলে ছবির নির্মাতাদের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিল হিন্দু সংগঠনগুলি। শুটিং সেটে ভাঙচুর থেকে আগুন লাগিয়ে দেওয়া, কিছুই বাদ যায়নি। এমনকী ছবির নায়িকা পদ্মাবতী ওরফে দীপিকা পাড়ুকোনের নাক কাটার হুমকিও দেওয়া হয়। তাদের চাপেই আদালতের হস্তক্ষেপে ছবির নামও পালটে দেয় সেন্সর বোর্ড। কিন্তু তা সত্ত্বেও ঠান্ডা করা যায়নি রাজপুত কর্ণি সেনাকে। এবার ভারত বন্ধের ডাক দিল তারা। জানা যাচ্ছে, আম্বালার প্রতিবাদ মঞ্চ থেকে কর্ণি সেনা হুমকি দিয়েছে, যেসব সিনেমা হলে ছবির প্রদর্শনী হবে, তারা সেখানে আগুন লাগিয়ে দেবে। কর্ণি সেনার প্রধান লোকেন্দ্র সিং কালভি আগামী বৃহস্পতিবারের বনধ সফল করতে মুম্বইয়ে থাকবেন।

সম্প্রতি হিন্দু সংগঠনের চাপের সামনে নতি স্বীকার করেছিল বিজেপি শাসিত রাজস্থান, হরিয়ানা, গুজরাট ও মধ্যপ্রদেশ। চার রাজ্যের সরকার ছবির মুক্তিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। এর বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন ছবির নির্মাতারা। শীর্ষ আদালত সাফ জানিয়ে দেন, গোটা দেশেই ছবি মুক্তি পাবে। তবে এর পরেও হল পুড়িয়ে দেওয়ার লাগাতার হুমকির ফলে অনেক প্রেক্ষাগৃহের মালিকই পদ্মাবত প্রদর্শনে ভয় পাচ্ছেন। এরই মধ্যে কর্ণি সেনা দাবি করেছে, পরিচালক বনশালি ছবির স্পেশ্যাল স্ক্রিনিংয়ের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। যদিও পরিচালকের আমন্ত্রণের সাড়া দেননি তাঁরা। আর এবার ভারত বনধের ডাক দেওয়া হল তাদের তরফে। অর্থাৎ ২৫ জানুয়ারি ছবি মুক্তির দিন যে দেশের বিভিন্ন রাজ্যের পরিবেশই উত্তপ্ত থাকবে, তেমনটাই আশঙ্কা করা হচ্ছে।

[ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড নমিনেশনে সবার আগে ‘তুমহারি সুলু’ ও ‘হিন্দি মিডিয়াম’]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement