১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ৩ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রাজপুত গরিমা ক্ষুণ্ন হয়নি ‘পদ্মাবত’-এ, এতদিনে স্বীকারোক্তি কর্ণি সেনার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 3, 2018 2:40 pm|    Updated: February 3, 2018 3:43 pm

Karni Sena withdraws ‘Padmaavat’ protest

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘ ক্লাইম্যাক্সের শেষমেশ অবসান ঘটল। ‘পদ্মাবত’ ছবিতে ইতিহাসকে বিকৃত করা হয়নি। পরিচালক থেকে ছবির বিশ্লেষক, সকলেই এ কথা বলে গলা ফাটালেও কর্ণি সেনার কানে তা ঢোকেনি। অবশেষে মাথা নত করল তারা। ১৮০ ডিগ্রি ভোলবদল তাদের। ‘পদ্মাবত‘কে স্বাগত জানিয়ে প্রতিবাদে ইতি টানল রাজপুত হিন্দু সংগঠন।

ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটে তৈরি যে ছবিকে ঘিরে গত কয়েক মাস ধরে চলছে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদের আগুন আরও গাঢ় হয়েছিল। রাজপুত রানি পদ্মীনির ইতিহাসকে বিকৃতি করা হয়েছে এই ছবিতে। এই দাবি তুলে ছবির নির্মাতাদের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিল হিন্দু সংগঠনগুলি। ছবির শুটিং থেকে শুরু হয়েছিল তাণ্ডব। শুটিং সেটে পরিচালককে মারধর করা থেকে সেটে আগুন লাগিয়ে দেওয়া, কিছুই বাদ যায়নি। এমনকী ছবির নায়িকা পদ্মাবতী ওরফে দীপিকা পাড়ুকোনের নাক কাটার হুমকিও দেওয়া হয়। তাদের চাপেই আদালতের হস্তক্ষেপে ছবির নামও পালটে দেয় সেন্সর বোর্ড। কিন্তু তা সত্ত্বেও ঠান্ডা করা যায়নি রাজপুত কর্ণি সেনাকে। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশকে উপেক্ষা করে ছবির মুক্তি রুখতে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে তাণ্ডব চালায় কর্ণি সেনা। ছবি মুক্তির পর পরিস্থিতি আরও ভয়ংকর রূপ নেয়। মাল্টিপ্লেক্সগুলিতে জ্বলে আগুন। এমনকী ভারত বন্ধের ডাকও দেওয়া হয়েছিল। সেই কর্ণি সেনাই এবার শান্ত হল। শুক্রবার তাদের তরফে জানিয়ে দেওয়া হল, ছবি নিয়ে আর তাদের কোনও ক্ষোভ নেই। তাই প্রতিবাদ তুলে নেওয়া হল।

[হাড়হিম করা ‘পরি’র নয়া টিজার, অনুষ্কাকে দেখে আতঙ্কিত দর্শকরা]

কিন্তু আচমকা এমন ডিগবাজি খাওয়ার কারণ কী? এমন কী হল যে শান্তির পথে ফিরল রাজপুত সংগঠন? জানা যাচ্ছে, শুক্রবার রাজপুত কর্ণি সেনার জাতীয় সভাপতি সুখদেব সিং গোগামাদি ও অন্যান্য সদস্যরা মুম্বইয়ের হলে ছবিটি দেখতে গিয়েছিলেন। ছবি দেখে গর্ববোধই হয় তাঁদের। তারপরই তাঁরা জানান, এ ছবিতে রাজপুতদের মর্যাদায় কোনও আঘাত করা হয়নি। বরং রানি পদ্মিনী ও রাজপুত ঐতিহ্যকে গৌরবান্বিতই করা হয়েছে। এতে আলাউদ্দিন খিলজির সঙ্গে রানি পদ্মাবতীর কোনও কাল্পনিক দৃশ্যও নেই।

এর আগে কর্ণি সেনা সংগঠন প্যানেলের দুই ইতিহাসবিদও ক্লিনচিট দিয়েছিল সঞ্জয় লীলা বনশালির এই ছবিকে। তাঁরা জানিয়েছিলেন, ছবির সঙ্গে ইতিহাসের কোনও সম্পর্কই নেই। তবে তাতেও ক্ষোভ কমেনি সংগঠনের। যদিও চাক্ষুষ করার পর অবশেষে পিছু হটল তারা। ছবি মুক্তির আগে থেকেই নির্মাতা ও বলিউডের অন্যান্য অভিনেতা-অভিনেত্রীরা এই এক কথাই বলে আসছিলেন। আগে ছবিটি দেখুন, তারপর প্রতিবাদ করার হলে করবেন। ছবি দেখার পরই ভুল ভাঙে তাদের। জলের মতো পরিস্কার হয়ে যায় পুরো বিষয়টি। আর তারপরই প্রতিবাদ তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় তারা।

[বলিউডের পানমশলা অ্যাওয়ার্ডের প্রয়োজন নেই: মনোজ জোশী]

এদিকে ছবি নিয়ে বিগ বি অমিতাভ বচ্চনের প্রশংসায় আপ্লুত দীপিকা পাড়ুকোন ওরফে পদ্মাবতী। টুইট করে বিগ বিকে ধন্যবাদ জানালেন তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে