BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

প্রয়াত প্রবাদপ্রতীম সংগীতশিল্পী দ্বিজেন মুখোপাধ্যায়

Published by: Bishakha Pal |    Posted: December 24, 2018 2:50 pm|    Updated: December 24, 2018 3:04 pm

Legendary singer Dwijen Mukhopadhyay died

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রয়াত বাংলার বিশিষ্ট সংগীতশিল্পী দ্বিজেন মুখোপাধ্যায়। দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত কারণে ভুগছিলেন তিনি। সোমবার দুপুর ১টা ৫০ মিনিট নাগাদ সল্টলেকের বাড়িতে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৯১ বছর। তাঁর মৃত্যুতে শোকাহত বাংলার শিল্পীমহল।

এবছর আগস্ট মাস থেকেই ভুগছিলেন প্রবাদপ্রতীম এই সংগীতশিল্পী। একাধিক রোগে জর্জরিত দ্বিজেন মুখোপাধ্যায় বিছানায় শয্যা নিয়েছিলেন৷ রক্তে অক্সিজেনের ওঠানামার ফলে শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে এসএসকেএম হাসপাতালে ভরতি হয়েছিলেন তিনি৷ পাঁচজনের একটি মেডিক্যাল টিম চিকিৎসা করছিল বিশিষ্ট ওই সংগীতশিল্পীর৷ চিকিৎসায় সাড়া দিয়েছিলেন তিনি। সুস্থ হয়ে বাড়িও ফিরে এসেছিলেন। কিন্তু পরের মাসে ফের অবস্থার অবনতি হয়। ফুসফুসে তাঁর সমস্যা হচ্ছিল। সেপ্টেম্বর মাসের শেষের দিকে ফের হাসপাতালে ভরতি হন তিনি।

মঞ্চ থেকে দর্শকদের মননে ঠাঁই, বিপ্লব দীর্ঘজীবী হোন ]

১৯২৭ সালের ১২ নভেম্বর জন্ম নিয়েছিলেন আধুনিক বাংলা গানের জনপ্রিয় শিল্পী দ্বিজেন মুখোপাধ্যায়। তাঁর গানের গলার সঙ্গে অনেকেই হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের মিল খুঁজে পান। তাঁর গলায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গান অন্য মাত্রায় পৌঁছে যেত। এমনকী ছয়ের দশকে একাধিক ছবিতেও রবীন্দ্রসংগীত গেয়েছেন তিনি। তাঁর সঙ্গে সলীল চৌধুরির বন্ধুত্ব ছিল দীর্ঘদিনের। চল্লিশের শেষের দিকে একসঙ্গে অনেক গানও উপহার দিয়েছেন তাঁরা। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ‘রেখো মা দেশেরে মনে’, ‘একদিন ফিরে যাব চলে’। এর পাশাপাশি ‘জাগো দুর্গা’ গেয়ে জনপ্রিয়তার শিখর ছুঁয়েছিলেন শিল্পী। এপার বাংলার মতো ওপার বাংলাতেও তাঁর গান নিয়ে চর্চা হয়। তিনি নিজেও বাংলাদেশ গিয়েছেন একাধিকবার। সংগীতে তাঁর ব্যাপ্তি তাঁকে ২০১০ সালে এনে দিয়েছিল পদ্মভূষণ পুরষ্কার। পরের বছর বঙ্গবিভূষণ সম্মানে ভূষিত হয়েছিলেন তিনি। ছয় দশকের বেশি সময় বাংলা গান ও রবীন্দ্রসংগীতের জগতে দাপিয়ে বেড়িয়েছেন দ্বিজেন মুখোপাধ্যায়।

এদিকে আজই সকালে প্রয়াত হয়েছেন টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা গৌতম দে। তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ায় দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। সোমবার সকাল ৭টা নাগাদ শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তাঁর শোক সামলে ওঠার আগেই আরও এক নক্ষত্রপতন বাংলার সংস্কৃতি জগতে।

প্রয়াত পণ্ডিত অরুণ ভাদুড়ি, শোকস্তব্ধ সংগীত মহল ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে