BREAKING NEWS

১০ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ২৪ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

কাল সকাল থেকেই শুরু হবে শুটিং, জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 23, 2018 5:28 pm|    Updated: August 23, 2018 6:24 pm

Mamata meets Tollygunj artists, impasse ends

তরণকান্তি দাস: অবশেষে মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে মিলল সমাধান সূত্র। বৃহস্পতিবার নবান্নে শিল্পীদের পাশে নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিলেন, কাল সকাল থেকেই শুরু হবে শুটিং। সিরিয়ালের জট কাটাতে কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যার প্রধান উপদেষ্টা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। কমিটিতে আর্টিস্ট ফোরামের দিক থেকে থাকবেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায়রা। টেকনিশিয়ানদের পক্ষ সামলাবেন স্বরূপ বিশ্বাসরা। এছাড়াও থাকবেন প্রযোজক ও চ্যানেলের প্রতিনিধিরা। সকলে মিলে প্রতি মাসে একটি করে বৈঠক করবেন। যাতে শিল্পী-কলাকুশলীদের প্রয়োজন, অসুবিধা আলোচনা হবে। আর আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করা হবে।  

মউ না মিনিটস, এই বিতর্কে গত ছয় দিন ধরে বন্ধ ছিল টেলিপাড়ার শুটিং। ঘটনার সূত্রপাত হয় শনিবার। শিল্পী-কলাকুশলীদের বকেয়া টাকা মেটাননি একদল প্রযোজক। এই অভিযোগ তোলা হয় আর্টিস্ট ফোরামের পক্ষ থাকে। অবিলম্বে টাকা মেটানোর দাবি জানানো হয়। শিল্পী-কলাকুশলীরা ফ্লোরে এসেও সেদিন কাজ করতে পারেননি। শনিবার থেকেই কার্যত অচল ভারতলক্ষ্মী, টেকনিশিয়ান, এনটিওয়ান-এর মতো ব্যস্ত স্টুডিও। প্রথমে অভিযোগ উঠেছিল শিল্পী-কলাকুশলীরাই কাজ করতে অনিচ্ছুক। কিন্তু বুধবার স্বরূপ বিশ্বাসকে পাশে নিয়ে আর্টিস্ট ফোরামের চেয়ারম্যান প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় বলেন, শিল্পীরা কাজ করতে অনিচ্ছুক এ কথা ঠিক নয়। তাঁরা কেবল নিজেদের বকেয়া টাকা চেয়েছেন। সেই দাবিতেই অনড় শিল্পী ও কলাকুশলীরা। কিন্তু কাজ ফোরামের তরফে বন্ধ করা হয়নি। প্রযোজকদের তরফে বন্ধ করা হয়েছে। শনিবারও প্রত্যেকে নির্দিষ্ট সময়ে স্টুডিওতে পৌঁছে গিয়েছিলেন। অনেক জায়গায় তো রোলও হয়েছিল। কিন্তু তারপর কাজ বন্ধ হয়ে যায়। রুজিরুটি বন্ধ হওয়া মোটেও কাম্য নয়। ছোটখাটো সমস্যা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান সম্ভব। কাজ বন্ধ করে নয়। কল টাইম দেওয়া হলেই আর্টিস্টরা পৌঁছে যাবেন। কিন্তু প্রযোজকদের তরফ থেকে তা আসেনি বলে অভিযোগ।

[মাল্টিপ্লেক্সের দাপট, এলিটের পর এবার বন্ধ টালিগঞ্জের মালঞ্চ]

এর মধ্যেই মউ স্বাক্ষরের বিষয় নতুন করে গুরুত্ব পায়। টলিপাড়ার কলাকুশলীদের সংগঠন ফেডারেশন অফ সিনে টেকনিশিয়ান্স অ্যান্ড ওয়ার্কার্স অফ ইস্টার্ন ইন্ডিয়া এবং প্রযোজক ও হল মালিকদের সংগঠন ইমপার মধ্যে ত্রিবার্ষিক চুক্তিতে সম্প্রতি কিছু বদল এনেছিলেন সংশ্লিষ্ট প্রযোজকরা। ইমপা এবং ফেডারশনের মধ্যে এই ‘মউ’ স্বাক্ষরিত হওয়ার কথা ছিল মার্চ-এপ্রিল মাসে। গত কয়েকমাসে সেটি নিয়ে সেরকম হেলদোল ছিল না কোনওপক্ষেরই। কিন্তু মঙ্গলবার হঠাৎই ইমপার প্রযোজক বিভাগ বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নেয়, আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে ফেডারেশনের সঙ্গে সেই সমঝোতাপত্রে স্বাক্ষরপর্ব সারতে হবে। নতুন চুক্তি নিয়ে ফেডারেশনের সঙ্গে মতানৈক্য দেখা দিলে তাঁরা সিনেমার শুটিংও বন্ধ করে দিতেও পিছপা না হওয়ার ইঙ্গিত দেওয়া হয়। ফলে সিনেমার শুটিংও বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দেয়। এমন অবস্থায় স্টুডিওপাড়ার সংকটের জট কাটাতে উদ্যোগী হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নবান্নে সবপক্ষকে নিয়ে বৈঠকে বসেন তিনি। তারপরই সাংবাদিকদের জানিয়ে দেন শুক্রবার থেকে শুটিং শুরু হবে। এদিন মুখ্যমন্ত্রী জানান, তিনি নিজেও সিরিয়ালের দর্শক। ফলে বাংলা সিরিয়ালের বন্ধ হওয়া কোনওভাবেই কাম্য নয়। সমস্যার সমাধানে পৌরহিত্য করার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

[শুটিংয়ে ফেরার আশায় দিন গুনছে ‘রাসমণি’ দিতিপ্রিয়া]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে