১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শাহরুখের মুকুটে জুড়ল আরও এক পালক, সুইজারল্যান্ডে পুরস্কৃত অভিনেতা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 23, 2018 6:02 am|    Updated: January 23, 2018 9:32 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অভিনেতা হিসাবে তিনি আমাদের কাছে জনপ্রিয়, অভিনয়ের পাশাপাশি এখন তিনি একজন সফল প্রযোজকও। বর্তমানে তাঁর সাম্রাজ্য আর শুধুই বলিউডে থেমে নেই, বলিউডের পাশাপাশি তিনি নিজের প্রভাব বিস্তার করেছেন বাইশ গজ ও সমাজ সেবার জগতেও। এভাবেই শুধুমাত্র ভারতবর্ষে নয়, দেশের বাইরে গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে তাঁর নাম।

SRK 03_Web

আর সেই জন্যই বোধহয় এবার দেশের বাইরে সুদূর সুইজারল্যান্ড থেকেও মানবাধিকার সচেতনতার জন্য পুরস্কৃত হতে চলেছেন কিং খান। অনেকদিন ধরেই ইন্ডাস্ট্রিতে কানাঘুষো চলছিল শাহরুখ খান নাকি সামনেই সুইজারল্যান্ড পাড়ি দেবেন, কিন্তু ঠিক কী কারণে যাচ্ছেন তা কেউ জানতেন না। অবশেষে সব ধোঁয়াশা কাটিয়ে ২২শে জানুয়ারি টুইটারে একটি পোস্ট করলেন তিনি, যেখান থেকে জানা গেল সুইজারল্যান্ডের দাভস শহরের ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম থেকে তাঁকে মানবাধিকার সচেতনতার জন্য ২৪তম ক্রিস্টাল অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হচ্ছে।

SRK 02_Web

আর সুইজারল্যান্ডে পৌঁছেই বরফের মধ্যে দাঁড়িয়ে তিনি নিজের টুইটারে সেই সংবাদ জানান তাঁর ভক্তদের।

 

পুরস্কারটি হাতে পাওয়ার পর অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের মঞ্চে দাঁড়িয়ে শাহরুখ বলেন “অস্ট্রেলিয়ান অভিনেত্রী কেট উইনস্লেট এবং বিশ্ব বিখ্যাত গায়ক এলটন জনের সঙ্গে এক মঞ্চে দাঁড়িয়ে পুরস্কার নেওয়াটা আমার কাছে দারুণ সম্মানের বিষয়। আমাকে এরকম একটা পুরস্কার দেওয়ার জন্য আমি ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি”।

SRK 01_Web

পুরস্কারটি নেওয়ার কিছু ঘণ্টার মধ্যেই সুইজারল্যান্ডের বরফের মধ্যে দাঁড়িয়ে আবার  কিং খান তাঁর চিরাচরিত রোমান্টিক ভঙ্গিতে একটি ছবি টুইটারে পোস্ট করেন।

 

পর্যটনকে চাঙ্গা করতে সতীর্থদের নিয়ে নেপাল যাচ্ছেন ভাইজান

আবার শাহরুখ খানকে নিয়ে আরো একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য উড়ে বেড়াচ্ছে বলিউদের হাওয়ায়। অনেকেই বলছেন তিনি নাকি চতুর্থবার বাবা হতে চলেছেন। তিনি নিজেও টেড টকস ইন্ডিয়ার একটি এপিসোডের শ্যুটিংয়ে ‘আকাঙ্খা’ শব্দটি উচ্চারণ করতে গিয়ে বেশ কয়েকবার  হোঁচট খান। তারপর তিনি মজা করে বলেছেন হয়ত চতুর্থ  সন্তান আসছে আমার, আর  আমি ওর নাম রাখতে চলেছি ‘আকাঙ্খা’। তাই এই নামটা নিয়ে এত সমস্যা হচ্ছে আমার।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement