BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২২ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

শিল্পীরা নয় কাজ বন্ধ করেছে প্রযোজকরা, দাবি আর্টিস্ট ফোরামের

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 21, 2018 3:49 pm|    Updated: August 21, 2018 3:49 pm

Tollygunge studio stalemate continues, shooting suspended

ছবি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সময়ের সঙ্গে সঙ্গে প্লট আরও জটিল হচ্ছে। মেগা সিরিয়ালের মেগা সমস্যা মেটার কোনও আশাই এখনও পর্যন্ত দেখা যাচ্ছে না। আর্টিস্ট ফোরাম-প্রযোজকরা কেউ কাউকে সূচাগ্র মেদিনী ছাড়তে নারাজ। মঙ্গলবারও নজরুল মঞ্চে বৈঠকে বসেছিলেন আর্টিস্ট ফোরামের সদস্যরা। কিন্তু বৈঠকের পরও সমস্যার সমাধানের কোনও সম্ভাবনাই দেখা গেল না। ফোরামের অভিযোগ, টলিপাড়ার শুটিং শিল্পী-কলাকুশলীরা বন্ধ করেননি। তাঁরা কেবল বকেয়া টাকা চেয়েছিলেন মাত্র। শুটিং বন্ধ করা হয়েছে প্রযোজকদের পক্ষ থেকে। কালও (বুধবার) যদি কল টাইম দেওয়া হয়, তাহলে নির্দিষ্ট সময় ফ্লোরে পৌঁছে যাবেন শিল্পী ও কলাকুশলী। সমস্যার সমাধানের জন্য আলোচনা অবশ্যই প্রয়োজন। কিন্তু কোনও অগ্রিম শর্ত ছাড়াই আলোচনায় বসা সম্ভব।

[প্রযোজক-আর্টিস্ট ফোরামের কাজিয়া অব্যাহত, পুরনো এপিসোডই দেখবেন দর্শকরা?]

শনিবার থেকে কার্যত অচলাবস্থা স্টুডিও পাড়ায়। ভারতলক্ষ্মী, ইন্দ্রপুরী, এনটি ওয়ান-এর মতো ব্যস্ত স্টুডিওগুলি চারদিন ধরে খাঁ খাঁ করছে। শুটিংয়ের চেনা ছন্দ কোথায় যেন হারিয়ে গিয়েছে। স্বরূপ বিশ্বাসকে পাশে নিয়ে আর্টিস্ট ফোরামের চেয়ারম্যান প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় বলেন, শিল্পীরা কাজ করতে অনিচ্ছুক এ কথা ঠিক নয়। তাঁরা কেবল নিজেদের বকেয়া টাকা চেয়েছেন। সেই দাবিতেই অনড় শিল্পী ও কলাকুশলীরা। কিন্তু কাজ ফোরামের তরফে বন্ধ করা হয়নি। প্রযোজকদের তরফে বন্ধ করা হয়েছে। শনিবারও প্রত্যেকে নির্দিষ্ট সময়ে স্টুডিওতে পৌঁছে গিয়েছিলেন। অনেক জায়গায় তো রোলও হয়েছিল। কিন্তু তারপর কাজ বন্ধ হয়ে যায়। রুজিরুটি বন্ধ হওয়া মোটেও কাম্য নয়। ছোটখাটো সমস্যা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান সম্ভব। কাজ বন্ধ করে নয়। বুঝবারও কল টাইম দেওয়া হলে আর্টিস্টরা পৌঁছে যাবেন।

[আজ থেকে বন্ধ সমস্ত বাংলা ধারাবাহিকের সম্প্রচার, বিপাকে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ]

তবে তা বলে নিজেদের বকেয়া মেটানোর দাবি থেকে সরছেন না ফোরামের সদস্যরা। অগ্রিম শর্ত নিয়ে বৈঠকে বসতেও নারাজ। শোনা গিয়েছে, ফোরামের এই সিদ্ধান্তের খবর ইতিমধ্যেই প্রযোজককূলের কাছে পৌঁছে গিয়েছে। এবার বল কিছুটা হলেও তাঁদের কোর্টে। এই তরজাতে মঙ্গলবারও বন্ধ রইল শুটিং। ইতিমধ্যেই টেলিভিশন চ্যানেলগুলিতে রিপিট টেলিকাস্ট শুরু হয়ে গিয়েছে। এমতাবস্থায় শোয়ের টিআরপি নিয়ে চিন্তিত চ্যানেলকর্তারা। হতাশ সিরিয়ালের দর্শকরাও ছ’টা-ন’টার প্রাইম টাইমে যাঁরা অভ্যস্ত, তাঁদের বিনোদনে ছেদ পড়েছে। তবে কাজ না হওয়ায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন সেই শিল্পী ও কলাকুশলীরা, যাঁরা রোজের টাকা রোজ পান। আর এই রোজগারেই সংসার চলে। তাঁদেরই ভবিষ্যত অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।  

[প্রকাশ্যে টলি অভিনেতাকে মারধর, ফেসবুক লাইভে দুষ্কৃতীদের দাপট]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে