১০  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দশ বছরের মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা! ধর্ষণে অভিযুক্ত সৎ বাবা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 14, 2017 8:02 am|    Updated: May 14, 2017 8:02 am

10-year-old has been found to be five months pregnant after being raped repeatedly by her stepfather

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের একটি নক্ক্যারজনক ধর্ষণের ঘটনা সামনে এল। ঘটনাস্থল সেই হরিয়ানার রোহতক। যেখানে সৎ পিতার লালসার শিকার দশ বছরের একটি মেয়ে। দীর্ঘদিন ধরেই তাকে যৌন হেনস্তা করে চলেছে ওই ব্যক্তি। এমনকী বর্তমানে পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ওই নাবালিকা। ইতিমধ্যে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাকে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ওই মেয়েটির অবস্থা আশঙ্কাজনক।

[‘আগামী বছর যত বয়স হবে আমি তার থেকে এক বছরের ছোট’]

জানা গিয়েছে, ওই মেয়েটির মা বিহারের বাসিন্দা। মেয়ের শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখে তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যান। এরপরে জানতে পারেন, দশ বছর বয়সী মেয়ে কিনা পাঁচ মাসের গর্ভবতী। তারপরেই সামনে আসে গোটা ঘটনাটি। জানা যায়, বহুদিন ধরেই এই নোংরা কাজ করে আসছিল ওই ব্যক্তি। এমনকী মেয়ে কাউকে যাতে না জানায়, সেজন্য হুমকিও দিতে থাকে। পরে মেয়েকে নিয়ে পুলিশের কাছে যান ওই মহিলা। ওই ব্যক্তির নামে অভিযোগ দায়ের করেন। আর এরপরেই অভিযুক্তকে আটক করে পুলিশ। গোটা ঘটনার তদন্তও করছে তাঁরা। অন্যদিকে, মেয়েটিকে সুস্থ করতে কী কী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে, সেটা ঠিক করতে বৈঠকে বসবে পিজিআইএমএস হাসপাতালের মেডিকেল বোর্ড।

[পর্ন ছবির মহড়ার ছুতোয় দেদার সঙ্গম, আটক ব্যক্তি]

এদিকে, শনিবারই অজ্ঞাতপরিচয় সাত দুষ্কৃতী মিলে এক মহিলাকে গণধর্ষণের পর নৃশংসভাবে তাঁর মাথা থেঁতলে হত্যা করে৷ পুলিশ জানিয়েছে, দুষ্কৃতীরা গণধর্ষণের পর আক্রান্ত মহিলার গোপনাঙ্গে ধারাল অস্ত্র ঢুকিয়ে ছিন্নভিন্ন করে দিয়েছে৷ শুধু তাই নয়, মহিলার মুখের উপর দিয়ে এমনভাবে গাড়ি চালিয়ে দিয়েছে, যাতে মৃতদেহ শনাক্ত করতেও পুলিশকে বেগ পেতে হয়৷ গত ৯ মে এই ঘটনা ঘটলেও অতি সম্প্রতি রোহতকের আইএমটি এলাকার খালি প্লট থেকে থেকে ওই মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার হয়৷ পুলিশ সূত্রে খবর, ওই মহিলা তাঁর পরিবারের সঙ্গে সোনপতে থাকতেন৷ সম্প্রতি তিনি বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়ে যান৷ ওই মহিলার খোঁজে মিসিং ডায়েরি দায়ের করার পর পুলিশ ওই মহিলার খোঁজ শুরু করে৷ তখনই জানা যায়, ওই মহিলাকে অপহরণ করে গণধর্ষণ করে সাত দুষ্কৃতী৷ মৃতদেহ উদ্ধার করার পর ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়৷ ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ধর্ষিতার গোপনাঙ্গে ধারাল অস্ত্র ঢুকিয়ে নৃশংসভাবে ছিন্নভিন্ন করে দিয়েছে দুষ্কৃতীরা৷ ভিসেরা নমুনা পরীক্ষার পর পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বেশ কিছু মাদকের হদিশ পেয়েছে৷ এই ঘটনায় এখনও অবধি দু’জনকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলাও দায়ের করা হয়েছে।

[হাতে শহিদ সন্তানের ছবি, এই মা তবু চান ভারতমাতার মঙ্গল হোক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে