Advertisement
Advertisement
PM Narendra Modi

শেষবেলায় বিবেকানন্দ রকে ধ্যানে মোদি, বঙ্গবাসীর মন জিততেই স্বামীজি আবেগে শান, নাকি অন্য অঙ্ক?

২০১৯ সালের লোকসভা ভোট শেষে কেদারনাথের গুহায় ধ্যানমগ্ন হয়েছিলেন মোদি, এবার প্রচার শেষে ৪৮ ঘণ্টার জন্য ধ্যানে বসছেন তামিলনাডুর বিবেকানন্দ রকে।

2024 Lok Sabha Election: PM Narendra Modi likely to attract WB voters by meditating at Vivekananda Rock in Tamil Nadu
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:May 30, 2024 3:58 pm
  • Updated:May 30, 2024 5:48 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উনিশে উত্তর, চব্বিশে দক্ষিণ। ভোটের প্রচার শেষে আগামী ৪৮ ঘণ্টার জন্য ধ্যানমগ্ন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। স্থান তামিলনাড়ুর বিবেকানন্দ রক। চব্বিশের লোকসভা ভোটে শেষ প্রচার বৃহস্পতিবার। এদিন বিকেল থেকেই ধ্যানে বসছেন প্রধানমন্ত্রী। ঠিক যেমন উনিশের ভোটপ্রচার শেষে কেদারনাথের গুহায় তাঁকে ধ্যানমগ্ন হতে দেখা গিয়েছিল। আর এবার সাধনাস্থল হিসেবে মোদি যে কন্যাকুমারীর বিবেকানন্দ রক নির্বাচন করেছেন, তা অত্যন্ত সুপরিকল্পিত বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহলের একাংশ। তার নেপথ্যে বেশ কিছু যুক্তিও দিচ্ছেন তাঁরা।

বঙ্গে ভোটপ্রচারই হোক বা অন্য কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচি, বিজেপি বরাবর বাংলার মনীষীদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করে এসেছে। তা কখনও কখনও রাজনীতির হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে বলে অভিযোগ বিজেপি বিরোধীদের। চব্বিশের ভোটের (2024 Lok Sabha Election) প্রচারেই কলকাতায় এসে রোড শো করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। সেই রোড শো-র রুট ছিল শ্যামবাজার থেকে স্বামী বিবেকানন্দের বাসভবন সিমলা স্ট্রিট পর্যন্ত। রোড শো শেষে মোদি বিবেকানন্দর মূর্তিতে ফুল, মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এসবই ছিল তাঁর রাজনৈতিক কর্মসূচির অঙ্গ। এনিয়ে বিশেষজ্ঞ মহলের বিশ্লেষণ, কলকাতা উত্তরে আগে কখনও পদ্ম ফোটেনি। তৃণমূলত্যাগী তাপস রায়কে এবার এই কেন্দ্রের প্রার্থী করে সেই অপূরিত স্বপ্নই পূরণ করার লক্ষ্যে নেমেছে বিজেপি (BJP)। আর তাই তাঁর প্রচার কর্মসূচিতে ছিল মা সারদা দেবীর বাসভবন দর্শন, স্বামী বিবেকানন্দে বাড়ি পর্যন্ত মিছিল।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ভোটগণনায় কড়া নজরদারির সিদ্ধান্ত, বাংলায় আসছে ১৩৮ জন পর্যবেক্ষক]

এবার প্রচার শেষে বিবেকানন্দের স্মৃতিবিজড়িত এবং হিন্দু ধর্মের অন্যতম পবিত্র স্থান বলে বিবেচিত তামিলনাড়ুর বিবেকানন্দ রকে ৪৮ ঘণ্টা ধ্যানে বসছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি (PM Narendra Modi)। ওয়াকিবহাল মহলের একাংশের মত, পুরোপুরি বাংলার দিকে তাকিয়েই তাঁর বিবেকানন্দ রকে ধ্যানে বসার পরিকল্পনা। আরেকাংশ অবশ্য শুধু বাংলার মন জয় তত্ত্ব মানতে নারাজ। তাঁদের মতে, মোদির পাখির চোখ আসলে দক্ষিণ ভারতের তামিলনাড়ু (Tamil Nadu)। এই রাজ্যে গেরুয়া রং ফিকে। ১০ বছর কেন্দ্রের ক্ষমতায় থাকলেও বিজেপি তথা এনডিএ-র ঝুলিতে দাক্ষিণাত্য থেকে তেমন প্রাপ্তি নেই। এবারের লোকসভা ভোটে প্রথম বিজেপির নেতৃত্বে জোট হয়েছে। কিছুটা জনসমর্থন পাওয়া গিয়েছে। তাতে ভোট বৃদ্ধির আশা থাকলেও সংখ্যাগুরুর সমর্থন নিয়ে নিশ্চিত নন মোদি-শাহরা। ২০২৬ সালে তামিলনাড়ুতে বিধানসভা ভোট (Assembly Election)। আর সেখানে গেরুয়া ঝড় তুলে ক্ষমতা দখল করতে মরিয়া বিজেপি। তাই এখন থেকেই তামিলনাড়ুকে পাখির চোখ করা হয়েছে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশের মত, তাই এবার ধ্যানের স্থান হিসেবে বিবেকানন্দ রক (Vivekananda Rock) বেছে নেওয়া মোদির।

Advertisement

[আরও পড়ুন: গণনার ভুল না স্থানীয় কারণ! দিল্লির সর্বকালীন রেকর্ড তাপমাত্রা নিয়ে তদন্ত হবে]

কন্যাকুমারীর বিবেকানন্দ রকের মাহাত্ম্য নতুন করে বলার নেই। ১৮৯২ সালে দক্ষিণ ভারতে গিয়ে কন্যাকুমারীতে উত্তাল সমুদ্রের মাঝে একটি শিলাখণ্ডে ধ্যানে বসেছিলেন স্বামী বিবেকানন্দ (Swami Vivekananda)। দেশমাতাকে নিয়েই তাঁর চিরসাধনা ছিল। সেসময় পরাধীন দেশের ভবিষ্যতের চিন্তায় মগ্ন হয়েছিলেন স্বামীজি। আঁধার কাটিয়ে খুঁজেছিলেন আলোর পথ, খুঁজেছিলেন উত্তরণের পথ। সেই থেকেই পবিত্র স্থান হয়ে ওঠে এই স্থানটি। অনেক পরে, ১৯৭০ সাল নাগাদ এই জায়গাটিতে বিবেকানন্দ রক মেমোরিয়ালে স্মারক স্থাপন করা হয়। বাঁধিয়ে দেওয়া হয়। এখন অনেকেই কন্যাকুমারী বেড়াতে গিয়ে বিবেকানন্দ রকে ধ্যান করেন। এবার সেখানে ধ্যানে বসবেন দেশের প্রধানমন্ত্রী।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ