২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ফের উত্তরপ্রদেশ, এবার বাড়িতে ঢুকে তিন দলিত নাবালিকার উপর অ্যাসিড হামলা

Published by: Paramita Paul |    Posted: October 13, 2020 2:51 pm|    Updated: October 13, 2020 4:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের উত্তরপ্রদেশে আক্রান্ত তিন দলিত নাবালিকা। হাথরাস কাণ্ডের প্রতিবাদে গোটা দেশ। এমন আবহেই মঙ্গলবার সকালে তিন দলিত বোনের উপর অ্যাসিড হামলা চালায় অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতীরা। এবার বাড়িতে ঢুকে হামলা চালাল দুষ্কৃতীরা। হামলার কারণ এখনও অজানা। তবে এই ঘটনায় যোগীর রাজ্যে দলিত এবং মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে আরও একবার প্রশ্ন উঠে গেল বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। এদিনই আবার ললিতপুরে এক ৬৫ বছরের দলিত বৃদ্ধ ও তাঁর ছেলেকে বেধড়ক মারধর করে, প্রস্রাব খাওয়ানোর অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এবার ঘটনাস্থল যোগী রাজ্যের গোন্দা জেলা। তিন বোনের বয়স যথাক্রমে ৮, ১২ এবং ১৭ বছর। তিনজনের উপর একইসময় বাথরুম পরিষ্কার অ্যাসিড নিয়ে হামলা করা হয়। গুরুতর জখম নিয়ে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিন বোনই। পরিবার সূত্রে খবর, বাড়ির ছাদে ঘুমোচ্ছিল তিন বোন। সেই সময় কেউ বাড়িপ রেইন ওয়াটার পাইপ বেয়ে ছাদে উঠে তাদের লক্ষ্য করে অ্যাসিড ছোড়ে। তারা চিৎকার করে উঠতেই বাড়ির বাকি সদস্যরা ছাদে ছুটে আসে। কিন্তু কে হামলা করেছে তাকে ধরা যায়নি। আক্রান্তদের বাবা রাম অবতার জানিয়েছেন, তাঁর সঙ্গে কারোর শত্রুতা ছিল না। তাঁর মেয়েদের উপর এমন নৃশংস হামলা কে করল, তা তিনি ভাবতেই পারছেন না।

[আরও পড়ুন : উত্তরপ্রদেশ থেকে সরানো হোক হাথরাস মামলার শুনানি, দাবি নির্যাতিতার পরিবারের]

লখনউয়ের ডিজিপি হেড কোয়ার্টারের এক পুলিশ অধিকর্তা জানিয়েছেন, ভোররাতে এই হামলা হয়েছে। হামলার ধরণ দেখে স্পষ্ট আততায়ী এই পরিবারের ব্যাপারে ওয়াকিবহাল। কারণ না হলে ছাদে উঠে আসার রাস্তা এবং তিন বোনের ঘুমানোর জায়গা জানা আততায়ীর পক্ষে সম্ভব ছিল না। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। পুলিশের তরফে আরও জানানো হয়েছে, মুখে এবং বুকে গুরুতর চোট পেয়েছে বড় বোন। বাকিদের চোট ততটা গুরুতর নয়। তিনজনকেই গোন্দার জেলা হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।

গোন্দার পুলিশ সুপার শৈলেশ কুমার জানিয়েছেন, তিন বোনেরই বয়ান রেকর্ড করেছে পুলিশ। বড় বোনের বয়স সামান্য বেশি তাই সে আততায়ীকে শনাক্তকরণে সাহায্য করতে পারবে বলে অনুমান করছেন তদন্তকারীরা। এছাড়াও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গেও কথা বলা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন : ফের উত্তরপ্রদেশ, এবার ঝাঁসিতে কলেজ হস্টেলে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করা হল নাবালিকাকে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement