BREAKING NEWS

১৯  মাঘ  ১৪২৯  শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

কড়া রোদে ২ ঘণ্টা ধরে ঘোরানো হল ৩ বছরের খুদে ‘কৃষ্ণ’কে!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 15, 2017 12:57 pm|    Updated: September 16, 2017 5:52 am

3 year old tied to vehicle for over 2 hours in kerala

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  কৃষ্ণ সেজেছিল ৩ বছরের ক্ষুদে। সেই সাজে তাকে রীতিমতো দড়ি দিয়ে বেঁধে রেখে ঘোরানো হল কড়া রোদে। তাও ২ ঘন্টা ধরে। এই ঘটনার ছবি প্রকাশ্যে আসার পরেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। উঠেছে নিন্দার ঝড়।

[পুজোর ভিড় সামলাতে নয়া দাওয়াই মেট্রো কর্তৃপক্ষর]

ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার কেরলের কান্নুর জেলায় একটি শোভাযাত্রায়। শিশুটিকে একটি বিশালাকার নকল পাতায় শুইয়ে রেখে শোভাযাত্রা করা হয়। কৃষ্ণজয়ন্তীতে বিজেপি ও আরএসএস-এর আদর্শে অনুপ্রাণিত বিভিন্ন সংগঠনগুলি গোটা রাজ্যেই এ ধরনের শোভাযাত্রার আয়োজন করে। সেরকমই এক শোভাযাত্রায় এই দৃশ্য দেখতে পান কেরলরেই পাইয়ানুর শহরের বাসিন্দা শ্রীকান্ত ঊষা প্রভাকরণ। তিনিই ছবিটি সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করেন। ছবির নিচে তিনি লেখেন  ‘বিবেকানন্দ সেবা সমিতি আয়োজিত’ শোভাযাত্রায় এই শিশুটির সঙ্গে এভাবেই আচরণ করা হল। প্রথমে শিশুটিকে দেখে তিনি মূর্তি ভেবেছিলেন। কিন্তু পরে দেহের নড়াচড়া দেখে বুঝতে পারেন সেটি একটি শিশু। সঙ্গে সঙ্গে প্রভাকরণ ফোন করেন চাইল্ডলাইনে। পুরো বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

[এবার পড়ুয়ারাও মোর্চার নিশানায়, স্কুলবাসে তাণ্ডব]

তবে কোনও কাজ হয়নি। তাঁরা যে এই বিষয়ে কোনও উদ্যোগ নিতে রাজি নয়, তা তাদের কথাবার্তা শুনেই বোঝা যাছিল বলেও জানিয়েছেন তিনি। তাই ফেসবুকে ছবি পোস্ট করেন তিনি। তবে কেন চাইল্ডলাইনের পক্ষ থেকে কোনও উদ্যোগ নেওয়া হল না, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। যদিও সাফাই দিয়েছে চাইল্ডলাইন। সংস্থাটির পাইয়ানুর শাখার ম্যানেজার পি অমৃতা জানান, ফোন পাওয়ার পরেই ঘটনা সম্পর্কে বিস্তারিত খোঁজখবর নেন তাঁরা। খবর পান যে শিশুটি সুস্থই আছে। তাই তাঁরা কোনও উদ্যোগ নেননি। শিশুটি অসুস্থ হলে নাকি তাঁরা শোভাযাত্রা থামিয়ে দিতেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত ছিল। পরেও চাইল্ডলাইনের তরফে শিশুটির পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। দেখাও করবেন তাঁরা শিশুটির পরিবারের সঙ্গে।

[ক্যানসার আক্রান্ত ছেলে, স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন জানিয়ে রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ মা]

তবে তাতেও থামেনি সমালোচনা। সোশ্যাল মিডিয়ায় শিশুটির ছবি শেয়ার হয়েছে একের পর এক।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে