১৪ মাঘ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

পরকীয়ার চরম পরিণতি! ভারী পাথরে গয়না ব্যবসায়ীর মাথা থেঁতলে দিল স্ত্রী-কন্যা

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: September 5, 2022 7:33 pm|    Updated: September 5, 2022 9:41 pm

40-Year-Old Jeweller Killed by Wife and Daughter Over Extramarital Affair | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পরকীয়ার চরম পরিণতির সাক্ষী হল উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) গাজিয়াবাদ (Ghaziabad)। স্ত্রী ও কন্যার হাতে খুন হলেন এক গয়না ব্যবসায়ী। বচসার মধ্যেই ভারী পাথর দিয়ে ওই ব্যক্তির মাথা থেঁতলে দেয় তাঁর স্ত্রী ও মেয়ে। গ্রেপ্তারির পর খুনের কথা স্বীকার করেছে অভিযুক্তরা।

স্ত্রী ও মেয়ের অভিযোগ, বছর চল্লিশের গয়না ব্যবসায়ীর অন্য মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক ছিল। ওই মহিলার বাড়ি সাহারানপুর (Saharanpur) এলাকায়। সেখানে মৃত গয়না ব্যবসায়ীর নিয়মিত যাতায়াত ছিল। এই নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে স্ত্রী ও মেয়ের সঙ্গে অশান্তি চলছিল তাঁর। খুনে অভিযুক্ত স্ত্রীর অভিযোগ, ইচ্ছাকৃত সাহারানপুরের বাসিন্দা মহিলার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় স্ত্রীকে ভিডিও কল করতেন মৃত ব্যবসায়ী।

[আরও পড়ুন: দিল্লিতেও অভিষেকের ‘পাপ্পু’ খোঁচা! অমিত শাহর বিরুদ্ধে স্লোগান লেখা টি-শার্ট পরে সংসদে ডেরেক]

গোটা বিষয়ে ক্ষোভ জমছিল স্ত্রী ও কন্যার মধ্যে। শনিবার ওই ব্যক্তি বাড়িতে ফিরলে এই বিষয় নিয়েই তুমুল ঝামেলা শুরু হয়। বচসার মধ্যে ভারী পাথর দিয়ে মাথায় আঘাত করে ব্যবসায়ীকে খুন করে তাঁর স্ত্রী ও মেয়ে। এরপর মৃতদেহ একটি গাড়িতে তুলে স্থানীয় রাহিসপুর এলাকায় নিয়ে গিয়ে ফেলে রেখে পালায় তাঁরা।

রবিবার ভোর চারটে নাগাদ পুলিশি পেট্রলিংয়ের সময় গাড়িটি নজরে আসে। গাড়ির পিছনের সিটে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার হয় গয়না ব্যবসায়ীর দেহ। গাড়ির নথি উদ্ধার হতেই খুনিদের শনাক্ত করা সহজ হয়ে যায় পুলিশের জন্য। দোষীদের গ্রেপ্তারির পাশাপাশি খুনের ব্যবহৃত ‘অস্ত্র’ ভারী পাথরটিকেও উদ্ধার করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: আপৎকালীন দরজা না থাকাতেই বিপত্তি! লখনউয়ের হোটেলে বিধ্বংসী আগুনে মৃত্যু বেড়ে ৬]

প্রসঙ্গত, ক’দিন আগে দেশে অপরাধ সংক্রান্ত যে তথ্য প্রকাশিত হয়েছে, সেখানে দেখা গিয়েছে, দিল্লি-সহ উত্তরভারতে অপরাধের হার বেশি। সম্প্রতি মাকে হত্যা করে নিজের গলায় ছুরি চালিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন দিল্লির (Delhi) বাসিন্দা এক তরুণ। মৃতের বাড়ি থেকে ৭৭ পাতার সুইসাইড নোট উদ্ধার করে পুলিশ।দিল্লি পুলিশের (Delhi Police) তদন্তে জানা গিয়েছে, আত্মঘাতী যুবকের নাম মিথিলেশ। বেকারত্বের কারণে অবসাদে ভুগছিলেন বিপত্নীক মিথিলেশ।  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে