BREAKING NEWS

১৬ ফাল্গুন  ১৪২৭  সোমবার ১ মার্চ ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

খদ্দের ভাঙানো নিয়ে লাঠালাঠি, রণক্ষেত্র উত্তরপ্রদেশের বাগপত! ভিডিও ভাইরাল

Published by: Biswadip Dey |    Posted: February 23, 2021 1:34 pm|    Updated: February 23, 2021 1:35 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাশাপাশি দু’টি চাটের দোকান। আচমকাই বেঁধে গেল লাঠালাঠি। রীতিমতো যুদ্ধক্ষেত্রের পরিস্থিতি তৈরি হতে দেখা গেল চোখের সামনে। একজনের খদ্দেরকে অন্যজন ডেকে নেওয়াতেই নাকি এত বড় গন্ডগোলের সূত্রপাত। ইতিমধ্যেই উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) বাগপতের ওই মারামারির ভিডিওটি ভাইরাল (Viral video) নেট দুনিয়ায়। এমন তুচ্ছ কারণে কী করে এত বড় অশান্তি শুরু হয়ে গেল ভেবে পাচ্ছেন না নেটিজেনরা।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বহু নেটিজেনই এই ভিডিও শেয়ার করেছেন। পুলিশ এই ঘটনায় আটজনকে গ্রেপ্তার করেছে। জানা গিয়েছে, দুই দোকানদারের মধ্যে গন্ডগোল শুরু হওয়ার পরে তাঁদের সমর্থকরাও মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন। অনেকক্ষণ ধরে এই মারামারি চলে। ভাইরাল ভিডিওতে সবথেকে বেশি নজর কেড়েছেন এক ব্যক্তি, যাঁর চুলের ধরন অনেকটাই বিশ্ববিশ্রুত বিজ্ঞানী আলবার্ট আইনস্টাইনের মতো। ‘চাচা’ নামে তিনি রীতিমতো জনপ্রিয় হয়ে গিয়েছেন নেট দুনিয়ায়।

[আরও পড়ুন:  গলছে সম্পর্কের বরফ, ৪৫টি চিনা লগ্নি প্রস্তাবে ছাড়পত্র দিতে চলেছে কেন্দ্র!]

জেলে যাওয়ার আগেই এক বিবৃতিতে গন্ডগোলের কারণ সম্পর্কে তাঁকে কথা বলতে শোনা গিয়েছে। চল্লিশ বছর ধরে চাটের ব্যবসায় থাকা চাচার কথায়, ”ওরা আমার খদ্দের নিয়ে প্রায়ই টানাটানি করে। এরকম ওরা চার-পাঁচবার করেছে। খদ্দেরদের সব সময়ই বলে চলে, ওদের দোকানে আসতে। কারণ আমার মাল নাকি গত রাতের, বাসি!” শেষ পর্যন্ত সব ধৈর্যের বাঁধ যেন ভেঙে যায় গত রাতে। এক খদ্দেরকে ডেকে নেওয়ার পরই শুরু হয়ে যায় মারামারি। লাঠালাঠি চলতে থাকে প্রায় ২০ মিনিট। কোনও এক প্রত্যক্ষদর্শী তাঁর ক্যামেরায় তুলে ফেলেন ভিডিওটি। দ্রুত তা ভাইরালও হয়ে যায়। সবচেয়ে বেশি চোখ টেনেছেন ‘আইনস্টাইন চাচা’। নিজের ঝাঁকড়া চুলের কারণ বলতে গিয়ে যিনি জানিয়েছেন, তিনি আসলে সাঁইবাবার ভক্ত। সেই জন্যই এমন বড় চুল রেখেছেন।

 

[আরও পড়ুন: রাজ্যের থেকে অনেক বেশি কর কেন্দ্রের! পেট্রোপণ্যের দাম নিয়ে কাঠগড়ায় মোদি সরকার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement