১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৬ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চার নাবালিকাকে যৌন হেনস্তার অভিযোগ, মহারাষ্ট্রে গ্রেপ্তার মৌলবী

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: September 15, 2022 5:14 pm|    Updated: September 15, 2022 5:14 pm

A Cleric molests four minor girls in Maharashtra's Karjat | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহারাষ্ট্রে (Maharashtra) চার নাবালিকাকে যৌন হেনস্তার অভিযোগ উঠল এক মুসলিম ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজ্যে। দুই নাবালিকার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ওই মৌলবীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ঘটনাটি রায়গড়ের (Raigad District) জেলার কারজাত এলাকার। অভিযোগ, ৫ থেকে ১২ বছর বয়সি চার নাবালিকার সঙ্গে অশ্লীল ব্যবহার করেন ওই ধর্মগুরু। নাবালিকাদের বাবা-মায়ের অভিযোগ, খারাপভাবে মেয়েদের গায়ে হাত দেওয়া হয়েছে। সেই কথা নাবালিকারা বাবা-মাকে জানানোর পরে ঘটনা প্রকাশ্যে আসে। সাব-ইন্সপেক্টর মহেশ ধোন্দে (Mahesh Dhonde) বলেন, পাঁচ বছরের শিশুকে যৌন হেনস্তার সাক্ষী রয়েছে। নাবালিকাদের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ওই ধর্মগুরুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অভিযুক্ত মুসলিম ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ফের ভয়াবহ দুর্ঘটনা কাশ্মীরে, খাদে বাস পড়ে কমপক্ষে ৫ যাত্রীর মত্যু]

উল্লেখ্য, এর আগে ২০২১ সালে জুন মাসে উত্তর-পূর্ব দিল্লির (Delhi) একটি মসজিদের মধ্যে এক নাবালিকাকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় অভিযুক্ত ছিল ৪৮ বছরের এক ধর্মগুরু। পুলিশি তদন্তে জানা গিয়েছিল, ১২ বছরে ওই নাবালিকা জল আনতে ঢুকেছিল মসজিদের ভিতরে। তখনই তার উপর অত্যাচার চালায় অভিযুক্ত। মেয়েটি বাড়ি ফিরে যৌন হেনস্তার কথা বাবা-মাকে জানানোর পর প্রকাশ্যে আসে ঘটনা। গ্রেপ্তার করা হয় আদতে রাজস্থানের বাসিন্দা ওই ধর্মগুরুকে।

[আরও পড়ুন: কেন্দ্রে ক্ষমতায় এলে পিছিয়ে পড়া রাজ্যগুলিকে ‘বিশেষ মর্যাদা’, বড় ঘোষণা নীতীশের]

প্রসঙ্গত, গোটা দেশে মেয়েদের উপর সংঘটিত অপরাধের সংখ্যা বাড়ছে। বৃহস্পতিবার প্রকাশ্যে এসেছে উত্তরপ্রদেশের নৃশংস দলিত নির্যাতনে কথা। রাজ্যের লখিমপুর খেরি (Lakhimpur Kheri) জেলায় নাবালিকা দুই বোনকে ধর্ষণ করে খুন করার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার সকালে গ্রামের একটি গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার হয়েছে দুই বোনের দেহ। দলিত নাবালিকাদের মায়ের অভিযোগ, মেয়েদের অপহরণ করে ধর্ষণ করা হয়েছে। পরে খুন করে গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার ছয় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। দলিত নির্যাতনের এই ঘটনায় যোগী সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে সমাজবাদী পার্টি, কংগ্রেস ও তৃণমূল। প্রবাল অস্বস্তিতে পড়েছে গেরুয়া শিবির। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে