BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

এবার থেকে আধার মিলবে শুধুমাত্র সরকারি ভবনেই

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 2, 2017 2:45 pm|    Updated: July 2, 2017 2:45 pm

Aadhaar centres only at Govt premises from september

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আধার কার্ড নিয়ে ফের বড়সড় সিদ্ধান্তের পথে হাঁটল কেন্দ্র। ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অফ ইন্ডিয়া বা UIDAI সবক’টি রাজ্যকে পাঠানো এক নির্দেশিকায় জানিয়েছে, এবার থেকে সমস্ত বেসরকারি আধার এনরোলমেন্ট সেন্টারকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে কোনও সরকারি বা মিউনিসিপ্যালিটি ভবনে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বরের মধ্যে এই প্রক্রিয়া শেষ করে ফেলতে হবে।

প্রায় ২৫ হাজার আধার নথিভুক্তকরণ কেন্দ্রকে সরাসরি সরকারি নজরদারির আওতায় নিয়ে আসতেই এই পদক্ষেপ কেন্দ্রীয় সরকারের। কারণ, বেশ কিছু জায়গায় সাধারণ মানুষের থেকে আধার কার্ড তৈরি করে দেওয়ার নামে অতিরিক্ত টাকা দাবি করা হয়েছে বলে জানতে পেরেছে কেন্দ্র। নয়া নিয়ম চালু হলে আধার কার্ড তৈরি ও বিতরণ প্রক্রিয়ার উপর কেন্দ্রীয় নিয়ামক সংস্থা আরও কড়া নজর রাখতে পারবে বলে আশা প্রকাশ করেছে কেন্দ্র।

[আধার যোগ না করলে কি ১ জুলাই থেকে বাতিল প্যান কার্ড?]

ইতিমধ্যেই UIDAI-এর সিইও অজয় ভূষণ পাণ্ডে বেসরকারি আধার কেন্দ্রগুলিকে কাছের কোনও সরকারি ভবনে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়ে নির্দেশিকা পাঠিয়ে দিয়েছেন রাজ্যগুলিকে। ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে রাজ্য সরকারকে জানাতে হবে সংশিষ্ট রাজ্যের বেসরকারি আধার কেন্দ্রগুলিকে কোন সরকারি ভবনে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব। ৩১ আগস্ট, ২০১৭-র মধ্যে এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করতে হবে। এ বিষয়ে সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে পাণ্ডে জানিয়েছেন, বেসরকারি আধার কেন্দ্রগুলিকে ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টর, জেলা পরিষদ বা মিউনিসিপ্যালিটির ভবনে সরিয়ে নিয়ে যেতে হবে। অবশ্য ব্যাঙ্ক, ব্লক অফিস বা অন্য কোনও রাজ্য সরকার পরিচালিত ভবনেও সরিয়ে নিয়ে যাওয়া যাবে।

কিন্তু হঠাৎ এই নয়া সিদ্ধান্ত কেন?

এই বিষয়ে পাণ্ডে বলছেন, “সাধারণ মানুষের অভাব অভিযোগের সুরাহা করতেই এই সিদ্ধান্ত। অনেকেই আমাদের কাছে অভিযোগ করেছেন, স্থানীয় এলাকায় কোথায় কবে আধার কার্ড তৈরি বা আপডেট হচ্ছে, তাঁরা জানেনই না। অনেক সময় ঠিকানা জানলেও বৃদ্ধ, অশীতিপর ব্যক্তিরা সেখানে পৌঁছে দেখছেন আধার কেন্দ্র বন্ধ। আবার কখনও মানুষকে ঠকিয়ে অতিরিক্ত অর্থ চাওয়ার অভিযোগও এসেছে।” বেসরকারি সংস্থাগুলির উপর আরও বেশি নিয়ন্ত্রণের জন্য ও সাধারণ মানুষের অর্থ ও সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই এই নয়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। কোনও সরকারি ভবনে আধার কার্ড তৈরি ও বিলি হলে বেনিয়মের সুযোগ পাবে না অসাধু ব্যক্তি বা দালালচক্র, দাবি UIDAI-এর সিইওর।

[আপনার কাছেও কি আধার নম্বর চেয়ে ফোন, মেসেজ এসেছে? সতর্ক হোন এখনই]

এমনিতেই এখন কেন্দ্রের অধিকাংশ প্রকল্পের সুবিধা, ভরতুকি বা পরিষেবা যেমন প্যান কার্ড, জিএসটি, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট, পাসপোর্ট ও সম্পত্তি কেনাবেচার জন্য আধার কার্ড বাধ্যতামূলক করেছে কেন্দ্র। গত ২৮ জুন সব রাজ্যের মুখ্যসচিবের কাছে পাঠানো চিঠিতে UIDAI আরও জানিয়েছে, চাইলে রাজ্য সরকার নিজেও কোনও আধার কেন্দ্র স্থাপন করতে পারে। এর পাশাপাশি যে সমস্ত বেসরকারি সংস্থাগুলি আধার কার্ড তৈরির ছাড়পত্র পেয়েছে তাদের উপর আরও কড়া নজরদারি চালানোর ইঙ্গিত দিয়েছে কেন্দ্র। UIDAI সূত্রে খবর, এবার থেকে প্রতিটি ব্লকে অন্তত তিনটি করে আধার কেন্দ্র থাকতেই হবে। ১২টি সংখ্যাভিত্তিক বায়োমেট্রিক পরিচয়পত্র হিসাবে আধার তৈরির যাবতীয় দায়িত্ব রয়েছে UIDAI-এর উপর। এখনও পর্যন্ত ওই কেন্দ্রীয় সংস্থা ১১৫ কোটিরও বেশি মানুষের হাতে আধার কার্ড তুলে দিয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে