BREAKING NEWS

৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Bipin Rawat: যান্ত্রিক ত্রুটি না নাশকতা? সেনা সর্বাধিনায়ক বিপিন রাওয়াতের মৃত্যু ঘিরে উঠছে প্রশ্ন

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: December 9, 2021 8:40 am|    Updated: December 9, 2021 8:40 am

Accident or sabotage, CDS Bipin Rawat's death sparks question | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কপ্টার দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন দেশের প্রথম সেনা সর্বাধিনায়ক জেনারেল বিপিন রাওয়াত (Bipin Rawat)। বুধবার তামিলনাড়ুর পাহাড় ঘেরা নীলগিরির জঙ্গলেই ভেঙে পড়ল তাঁর কপ্টার। সেনা সর্বাধিনায়কের কপ্টার ভেঙে পড়ার ঘটনায় বিস্মিত করেছে গোটা দেশকে। প্রশ্ন উঠছে এটি নিছকই দুর্ঘটনা না কি এর পিছনে নাশকতাও থাকতে পারে। ভিভিআইপি কপ্টারের রক্ষণাবেক্ষণ নিয়েও বিতর্ক দানা বেঁধেছে।

[আরও পড়ুন: CDS Bipin Rawat: সেনা সর্বাধিনায়ক বিপিন রাওয়াতের প্রয়াণের পর জরুরি বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর]

এই ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন জেনারেল রাওয়াতের স্ত্রী মধুলিকাও। সেনা ও বায়ুসেনার আধিকারিক মিলিয়ে আরও ১২ জন এই ঘটনায় মারা গিয়েছেন। তার মধ্যে রয়েছেন সিডিএসের পাঁচ নিরাপত্তারক্ষী। একজন ডিএ এবং এক এসও। ঘটনায় আহত একমাত্র গ্রুপ ক্যাপ্টেন বরুণ সিংকে কার্যত আধপোড়া অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। ঘটনার উচ্চপর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে ভারতীয় সেনা। রাতেই মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডেকে রাওয়াতের উত্তরসূরি ঠিক করার ব্যাপারে আলোচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সূত্রের খবর, নতুন সেনা সর্বাধিনায়ক হওয়ার তালিকায় ভেসে উঠছে বর্তমান সেনা প্রধান মনোজ মুকুন্দ নারাভানের নাম।

দক্ষিণের পর্যটন কেন্দ্র উটি লাগোয়া পাহাড়ি উপত্যকা ওয়েলিংটন। রয়েছে ভারতীয় সেনার একটি কলেজ। এদিন কলেজের অনুষ্ঠানে যোগ দিতেই দিল্লি থেকে সস্ত্রীক রওনা হয়েছিলেন প্রথম সেনা সর্বাধিনায়ক বিপিন রাওয়াত। সকাল ন’টায় দিল্লি থেকে তামিলনাড়ুর বায়ুসেনা ঘাঁটি সলুরের দিকে উড়ে যায় তাঁর বিশেষ বিমান। সেখান থেকে ১০ মিনিটের মধ্যেই বিপিন রাওয়াত-সহ ১৪ জনকে নিয়ে ওয়েলিংটন উপত্যকার দিকে রওনা হয় ভারতীয় বায়ুসেনার অত্যাধুনিক রুশ হেলিকপ্টার এমআই-সেভেনটিন ভি ফাইভ কপ্টার।

ঘড়ির কাঁটায় তখন বেলা সাড়ে বারোটা। জঙ্গলের মধ্যে থেকে একটা বিকট আওয়াজ শুনতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। দেখতে পান জঙ্গলের মাঝামাঝি জায়গা থেকে কুণ্ডলী পাকিয়ে বেরিয়ে আসছে কালো ধোঁয়া। ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁরা দেখেন দুমড়ে মুচড়ে পড়ে রয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনার একটি কপ্টার। তাঁরাই প্রথমে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন। তাঁদের বয়ানেই প্রথম জানা যায়, সুলুর থেকে ওয়েলিংটন যাওয়ার পথে ভেঙে পড়েছে চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের কপ্টার। বেলা দুটোর খানিক আগে তামিলনাড়ুর কপ্টার দুর্ঘটনা নিয়ে প্রথম টুইট করে ভারতীয় সেনা। রাওয়াতের কপ্টার দুর্ঘটনার খবর টুইটে স্বীকার করা হয়।

সেনার এই টুইটে রাজধানীর বিভিন্ন মহলে উদ্বেগের স্রোত বইতে থাকে। কেমন আছেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ? তিনি জীবিত না মৃত? প্রায় ঘন ঘনই প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সঙ্গে যোগাযোগ রাখেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর, কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালের সঙ্গে দফায় দফায় আলোচনা শুরু করেন তিনি। মন্ত্রিপর্যায়ের এই তৎপরতার মধ্যেই নর্থ ও সাউথ ব্লকের বিভিন্ন অলিন্দে রুশ হেলিকপ্টার অত্যাধুনিক এমআই-সেভেনটিন ভি ফাইভের গুণগত মান নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। প্রশ্ন ওঠে কী ভাবে এই ঘটনা তা নিয়েও। এই আশঙ্কার মধ্যেই সন্ধে ছ’টার খানিক পরেই বিপিন রাওয়াতের মৃত্যুসংবাদ দেশবাসীকে জানায় ভারতীয় সেনা। নতুন করে টুইট করে বলা হয়, “নীলগিরি পাহাড়ে কপ্টার দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিত রাওয়াত। দুর্ঘটনায় চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের স্ত্রী মধুলিকার মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও কপ্টারে থাকা ১৪ জনের মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ১৩ জন।” এই ঘোষণার পরেই টুইটে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শোকবার্তা, “তামিলনাড়ুতে ভারতীয় সেনার কপ্টার দুর্ঘটনার খবরে আমি মর্মাহত। এই ঘটনায় আমরা বিপিন রাওয়াতের মতো এক সেনানীকে হারালাম। ভারতীয় সেনাকে সর্বোচ্চ চূড়ায় নিয়ে গিয়েছিলেন জেনারেল রাওয়াত। এই অবদান কোনও দিন ভোলা সম্ভব নয়।” সেনার প্রথম সর্বাধিনায়কের মৃত্যুতে গভীরভাবে মর্মাহত প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। “ভারতীয় সেনার সংসারে জেনারেল রাওয়াতের মৃত্যু অপূর্ণ ক্ষতি।” টুইটে প্রতিক্রিয়া রাজনাথের। শোক প্রতিক্রিয়ায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানান, “তামিলনাড়ুর কপ্টার দুর্ঘটনায় আমরা ভারতীয় সেনার এক সেরা নায়ককে হারালাম। নিজের অধ্যবসায়ে উনি ভারতীয় সেনাকে সর্বোচ্চ চূড়ায় নিয়ে গিয়েছিলেন।” শোকপ্রকাশ করেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। মমতার টুইট, “চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের কপ্টার দুর্ঘটনার খবরে আমি মর্মাহত। তাঁর মৃত্যু দেশের কাছে অপূরণীয় ক্ষতি। আমরা সব সময় ওঁর সাহসকে মনে রাখব।” 

ইতিমধ্যেই তামিলনাড়ুতে কপ্টার দুর্ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ভারতীয় সেনা। আজ, বৃহস্পতিবার নীলগিরির জঙ্গলে ঘটনাস্থলে যাচ্ছে সেনার বিশেষ তদন্তকারী দল। হরিয়ানা এবং পুণে থেকে ডাকা হয়েছে কেন্দ্রীয় ফরেনসিক কর্তাদের। প্রস্তুত রাখা হয়েছে এনআইএকে। দুর্ঘটনার তদন্তে সেনাকে সাহায্য করবে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। প্রাথমিকভাবে সেনা মনে করছে, খারাপ আবহাওয়ার জন্য এই দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। কারণ পাহাড়ি ওই এলাকায় গত কয়েকদিন ধরেই বৃষ্টি হচ্ছিল। একই সঙ্গে কপ্টারের জরুরি অবতরণের বিষয়টিকেও উড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে না। সেনার দাবি, আকাশে ওড়ার ১০ মিনিটে মধ্যে হয়তো কপ্টারে কোনও প্রযুক্তিগত ক্রটি ধরা পড়তে পারে। এই ব্যাপারে ডিজিটাল অ্যানালিসিস না করা পর্যন্ত কোনও উত্তর দেওয়া সম্ভব নয় বলেই দাবি ভারতীয় সেনার।

২০১৯ সালে ভারতের তিন সেনাকে এক সুতোয় আনতে চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফের পদ তৈরি করেছিল মোদি সরকার। প্রথম সেনা সর্বাধিনায়ক হিসাবে ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি দায়িত্ব নেন গোখা রাইফেলস থেকে সেনা জীবন শুরু করা বিপিন রাওয়াত। এই দেড় বছরে নিজের জীবন দর্শনে ভারতীয় সেনাকে আরও গতি দিতে চেয়েছিলেন রাওয়াত। বুধবার পাহাড় ঘেরা নীলগিরির জঙ্গলে সব অতীত হয়ে গেল। আজ বৃহস্পতিবার তামিলনাড়ু থেকে দিল্লি আসছে বিপিন রাওয়াত ও তাঁর স্ত্রীর দেহ। শুক্রবার পূর্ণ সামরিক মর্যাদায় তাঁদের শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

[আরও পড়ুন: হাজারো যুদ্ধের সর্বাধিনায়ক, বহু সম্মানে সম্মানিত যোদ্ধা পরিবারের সন্তান বিপিন রাওয়াত]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে