২৮ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচন মিটতেই ফের চড়চড়িয়ে বাড়ছে পেট্রল-ডিজেলের দাম৷ বিগত ৯ দিনে পেট্রল-ডিজেলের দাম বেড়েছে ৭০ থেকে ৮০ পয়সা৷ মঙ্গলবার পেট্রলের দাম বেড়েছে লিটার প্রতি ১১ পয়সা এবং ডিজেলের লিটার প্রতি ৫ পয়সা৷ এই হারে দুই জ্বালানির দাম বাড়ায় স্বভাবতই মাথায় হাত পড়েছে সাধারণ মানুষের৷

[ আরও পড়ুন: রোগ নির্ণয়ে যন্ত্র নয়, রাজস্থানের চিকিৎসকদের ভরসা কোষ্ঠী-জ্যোতিষ ]

এই দামবৃদ্ধির ফলে কলকাতায় পেট্রলের দাম হয়েছে লিটার প্রতি ৭৩ টাকা ৯২ পয়সা এবং ডিজেলের নতুন দাম হয়েছে লিটার প্রতি ৬৮ টাকা ৪৫ পয়সা৷ দিল্লিতে পেট্রলের দাম ৭১ টাকা ৮৬ পয়সা প্রতি লিটার এবং ডিজেল পাওয়া যাচ্ছে লিটার প্রতি ৬৬ টাকা ৬৯ পয়সায়। মুম্বইয়ে এক লিটার পেট্রলের কিনতে খরচ পড়ছে ৭৭ টাকা ৪৭ পয়সা এবং ডিজেলে ৬৯ টাকা ৮৮ পয়সা। জানা গিয়েছে, গত ১৯ মে লোকসভা নির্বাচনের সপ্তম দফার ভোটগ্রহণ শেষ হতেই পেট্রল ও ডিজেলের দাম বাড়াতে শুরু করে রাষ্ট্রায়ত্ত তেল সংস্থাগুলি৷ ২০ মে থেকে এই দুই জ্বালানির দাম বাড়তে থাকে৷ মঙ্গলবারের দামবৃদ্ধি ধরে, এখনও পর্যন্ত পেট্রলের দাম বেড়েছে লিটারে ৮২ পয়সা এবং ডিজেলের দাম বেড়েছে লিটার প্রতি ৭৩ পয়সা৷

[ আরও পড়ুন: গেরুয়া ধাক্কায় নরম হিন্দুত্বের পথে তৃণমূল! সুদীপের মন্তব্যে জল্পনা ]

প্রায় মাস দুয়েকের ভোটপর্বে কিন্তু এই দুই জ্বালানির দাম কমেছিল। এবং ভোট পরবর্তী সময়ে যে হারে দাম বেড়েছে, ভোট চলাকালীন তার চেয়ে অনেক দ্রুত হারে দাম কমেছিল বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের। জানা গিয়েছে, ১১ এপ্রিল নির্বাচন শুরুর দিন থেকে ১৯ মে পর্যন্ত লিটারে পেট্রলের দাম কমেছে ১ টাকা ৭১ পয়সা এবং ডিজেলের ১৪ পয়সা। কিন্তু ১৯ মে-র পর পেট্রলে দাম বেড়েছে ৮২ পয়সা। ডিজেল ৭৩ পয়সা। নির্বাচন শেষ হয়েছে পেট্রল-ডিজেলের দাম বাড়ার ঘটনা, এবারেই প্রথম নয় বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা৷ আগেও নির্বাচনের সময় পেট্রল ও ডিজেলের দাম বৃদ্ধি করেনি রাষ্ট্রায়ত্ত তেল বিপণন সংস্থাগুলি৷ ২০১৮-র কর্ণাটকের বিধানসভা নির্বাচন, ২০১৭-র গুজরাটের বিধানসভার নির্বাচন সময় এবং তারও আগে পাঞ্জাব, গোয়া, উত্তরাখণ্ড, উত্তরপ্রদেশ ও মণিপুরের ভোটের সময়ও, একই রকমভাবে পেট্রোপণ্যের দাম ওঠাপড়া করেছিল৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং