২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘লাদাখে দ্রুত পালটা দিতে তৈরি বাহিনী’, বায়ুসেনা দিবসে হুঙ্কার আর কে এস ভাদুড়িয়ার

Published by: Paramita Paul |    Posted: October 8, 2020 1:40 pm|    Updated: October 8, 2020 1:55 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় বায়ুসেনা দিবসেও রণহুঙ্কার দিয়ে রাখলেন সংশ্লিষ্ট সেনাপ্রধান রাকেশ কুমার সিং ভাদুরিয়া। তাঁর কথায়, “যে কোনও পরিস্থিতিতে ভারতের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করতে প্রস্তুত সেনা। এমনকী, মুহূর্তের মধ্যে শত্রুকে জবাব দিতেও তৈরি তাঁরা। লাদাখে দ্রুত পালটা দিতে তৈরি বায়ুসেনা।” আর এই বায়ুসেনার ক্ষমতার সাক্ষী রইল দিল্লির নিকটবর্তী গাজিয়াবাদের আকাশ। সেখানে চক্কর কাটল অ্যাপাচে, চিনুক। নিজেদের কারিকুরি দেখাল তেজস এলসিএ, জাগুয়ার, মিগ-২৯, মিগ-২১ ও সুখোই-৩০। কিন্তু বলাইবাহুল্য এদিন সকলের নজর ছিল সদ্য আসা রাফালের উপর।

Rafale on IAF Day

[আরও পড়ুন : ‘ধর্ষণ করিনি, নির্যাতিতাকে মেরেছে মা এবং দাদা’, পুলিশকে লেখা চিঠিতে দাবি অভিযুক্তদের]

মহামারী আবহেই এদিন পালিত হল ৮৮ তম ভারতীয় বায়ুসেনা দিবস (IAF Day 2020 ) । দিল্লির কাছে গাজিয়াবাদের হিন্দানে এয়ারফোর্স স্টেশনে বিভিন্ন শক্তিশালী যুদ্ধবিমান নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করে। নজর কেড়েছে রাফালের কারিকুরিও। অল্প জায়গার মধ্যে নিজের ক্ষমতার প্রদর্শন করল ‘দ্য বিউটি অ্যান্ড দ্য বিস্ট’। সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, হকির মাঠের চেয়ে কম জায়গায় টুইস্ট অ্যান্ড টার্ন করে হাওয়ায় ইংরাজি সংখ্যা ‘8’-এর মতো আকৃতি তৈরি করে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। ৪.৫ জেনারেশনের এই যুদ্ধবিমান ছিল সমরাস্ত্রে ঠাসা।

[আরও পড়ুন : করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রধানমন্ত্রীর নয়া দাওয়াই ‘জন আন্দোলন’ কর্মসূচি]

ভারতীয় বায়ুসেনার যাত্রা শুরু ১৯৩২ সালে। এদিন বায়ুসেনা দিবস উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী টুইটারে জানিয়েছেন, “ভারতীয় বায়ুসেনা বাহিনীর যোদ্ধাদের অভিনন্দন। সারা দেশের আকাশকে সুরক্ষিত রাখাই শুধু বায়ুসেনার কাজ নয়। বিপর্যয়ের সময় মানবতার সেবায় বায়ুসেনা অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। ভারত মাতার সুরক্ষার জন্য আপনাদের সাহস, বীরত্ব ও প্রাণ উত্‍সর্গ- সকল দেশবাসীর কাছেই অনুপ্রেরণা।” শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংও। তিনি বলেন, “নীল উর্দি পরা সকল পুরুষ মহিলার জন্য আমরা গর্বিত এবং বায়ুসেনার বীরত্বকে অভিবাদন জানাই।”

এদিনের অনুষ্ঠানে বায়ুসেনা প্রধান বলেন, “যে কোনও পরিস্থিতিতে ভারতের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করতে তৈরি বায়ুসেনা।” তিনি আরও জানান, “চিনের সঙ্গে উত্তেজনা চলাকালীন খুব কম সময়ের নোটিসে বায়ুসেনাকে তৈরি থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। নির্দেশ মেনে তাঁরা সামরিক সজ্জা মোতায়েন করেছিলেন নর্দান ফ্রন্টে।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement